০৩ ডিসেম্বর ২০২০

ভাবিকে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ ও চাঁদা দাবি দেবরের

ভাবিকে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ ও চাঁদা দাবি দেবরের - ছবি : নয়া দিগন্ত

নোয়াখালীর সেনবাগের ছাতারপাইয়া ইউনিয়নে ভাবিকে ধর্ষণ করে ভিডিও ধারণ ও চাঁদা দাবির অভিযোগে দেবরের তিন সহযোগীকে আটক করেছে পুলিশ। তাদেরকে গ্রেফতার দেখিয়ে বুধবার দুপুর পৌণে ২টার দিকে আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।

ওই গৃহবধূ বুধবার সকালে ধর্ষণের অভিযোগে চাচাতো দেবর পারভেজকে প্রধান আসামি করে আরো আটজনের নামে মামলা দায়ের করেন। এর আগে উপজেলার পূর্ব ছাতারপাইয়া গ্রাম থেকে মঙ্গলবার রাতে পুলিশ তাদের আটক করে।

আটক করা হয়েছে উপজেলার ছাতারপাইয়া ইউনিয়নের পূর্ব ছাতারপাইয়া এলাকার আব্দুল কাইয়ুমের ছেলে শুভ (১৯), ছাতারপাইয়া বদর বাড়ির হাসান (১৯) ও আব্দুল হকের ছেলে রকি (২০)।

মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ৯ অক্টোবর রাতে চাচাতো দেবর পারভেজ ঘরে ঢুকে ওই গৃহবধূকে ধর্ষণ করে। ধর্ষকের সহযোগীরা ওই গৃহবধূকে ধর্ষকের পাশে বসিয়ে মোবাইল ফোনে ভিডিও চিত্র ধারণ করে। পরে ইন্টারনেটে ভিডিও ছেড়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে ওই গৃহবধূ ও তার স্বামীর কাছে ত্রিশ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে ধর্ষক পারভেজ ও তার সহযোগীরা।

সেনবাগ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ইকবাল হোসেন জানান, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে ওই গৃহবধূ মামলা করেন। মামলার সূত্র ধরে পুলিশ আসামিদের গ্রেফতার করে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বুধবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠিয়েছে।


আরো সংবাদ