২৪ অক্টোবর ২০২০

শ্যুটিংয়ে ক্যাম্প শুরুর উদ্যোগ

শ্যুটিংয়ে ক্যাম্প শুরুর উদ্যোগ - সংগৃহীত

চলছে করোনার ধাক্কা। সাথে ফেডারেশন সভাপতি এবং সেক্রেটারীর দ্বন্দ্ব। ঘাঁড়ের উপর নি:শ্বাস ফেলছে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের তদন্ত কমিটি। যারা কাজ করছে শ্যুটিং ফেডারেশনের অনিয়ম নিয়ে।
আন্তর্জাতিক অঙ্গনে বাংলাদেশের অন্যতম উজ্জ্বল এই ফেডারেশনের কার্যক্রমের উপর আছে ক্রীড়া পরিষদের নিষেধাজ্ঞা। এরপরও থেমে থাকলেতো চলবে না। ২০২১ সালে টোকিও অলিম্পিক গেমস ঘিরে প্রস্তুতি শুরু হয়েছে আরচারী দলের।

বাংলাদেশ অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনও ( বিওএ) চিঠি দিয়ে বলেছে শ্যুটারদের ট্রেনিং শুরু করতে। তাই শ্যুটিং ফেডারেশনও অনুশীলন শুরু করতে চায় আবদুল্লাহ হেল বাকী, রিসালাতুল ইসলাম, জাকিয়া সুলতানা টুম্পা আতিকায় হাসান দিশা, আনোয়ার হোসন ও শাকিল আহমেদদের। কয়েকদিন আগে অনুষ্ঠিত ফেডারেশনের সভায় ক্যাম্প শুরুর সিদ্ধান্ত। ফেডারেশন সেক্রেটারী ইন্তিখাব হামিদ অপু জানান এই তথ্য।

তবে ফেডারেশন চাইলেও এখনই শুরু করা যাচ্ছে না ক্যাম্প। শ্যুটারদের অস্ত্র নিয়ে মুভমেন্টে এনবিআর-এর নিষেধাজ্ঞা আছে। নিতে হবে ক্রীড়া মন্ত্রনালয়ের অনুমিত। যেখানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সব কিছু করার প্রতিশ্রুতি দিতে হবে ফেডারেশনকে। এছাড়া গুলশানস্থ জাতীয় শ্যুটিং কমপ্লেক্স বিমান বাহিনীর করোনা আইসোলেশন ক্যাম্প হিসেবে ব্যবহারের জন্য বরাদ্ধ।

সেক্রেটারী অপু জানান, এই সব বাধা ডিঙ্গিয়েই আমরা চাচ্ছি যত শীগ্রই সম্ভব ক্যাম্প শুরু করতে। যদি আমরা শ্যুটিং রেঞ্জে ক্যাম্প করতে না পারি তাহলে বিকেএসপিতে শুরু করবো ক্যাম্প জানান তিনি।

মার্চে দেশে করোনা ছড়িয়ে পড়লে ১২/১৩ সে মাসের মাঝামাঝিতে বন্ধ করে দেয়া হয় শ্যুটারদের ক্যাম্প। এই ক্যাম্প শুরু হয়েছিল ফেব্রুয়ারিতে। টোকিও অলিম্পিক এবং বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক শ্যুটিং উপলক্ষেই ছিল ক্যাম্প। তাতে ১০ মিটার এয়ার রাইফেল এবং ১০ মিটার এয়ার পিস্তল ইভেন্টে সিনিয়র- জুনিয়র মিলে ৪২ জন শ্যুটারকে ডাকা হয়েছিল ক্যাম্পে।

এরপর করোনার ছোবল এবং অস্ত্র- গুলি ফেলে শ্যুটারদের বাড়ী চলে যেতে বাধ্য হওয়া। এরপর আরো আগ থেকে চলে আসা ফেডারেশনের সভাপতি ও সেক্রেটারীর দ্ব›দ্ব এবং ক্রীড়া পরিষদের তদন্ত। মাঝে শ্যুটারদের ডাকা হয় দুদকে। সব কিছুই স্থবির করে দেয় শ্যুটিং এর কার্যক্রমকে।

তাই এখন আগামী বছর অলিম্পিক গেমসকে সামনে রেখে ফের ক্যাম্প শুরুর উদ্যোগ ফেডারেশনের। ছয় শ্যুটারকে নিয়ে হবে এই ক্যাম্প। কোচ হিসেবে এয়ার রাইফেলে সাইফুল আলম চৌধুরী রিংকি এবং পিস্তুলে আবদুর রহমানকে দায়িত্ব দেয়া হতে পারে।


আরো সংবাদ