১৩ জুলাই ২০২০

রক্তের গ্রুপ কি করোনার ঝুঁকি সম্পর্কে ধারণা দেয়

রক্তের গ্রুপ কি করোনার ঝুঁকি সম্পর্কে ধারণা দেয় - ছবি : সংগৃহীত

যাদের রক্তের গ্রুপ ‘ও’তাদের করোনা প্রতিরোধ ক্ষমতা বেশি থাকে, ঠিক বিপরীত অবস্থা ‘এ’গ্রুপের। এই গ্রুপের রক্তের বাহকরা করোনা সংক্রমণের অধিক ঝুঁকিতে রয়েছেন। করোনায় আক্রান্ত ১ হাজার ৯৮০ জনকে নিয়ে পরিচালিত ইউরোপের নতুন একটি গবেষণায় এ তথ্য পাওয়া গেছে।

এর আগে চীনে দুই হাজার ১৭৩ জন কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীর উপর করা গবেষণায় জানা গেছে, ‘এ’গ্রুপধারীদের রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বেশি। অন্যদিকে ‘ও’ গ্রুপে সংক্রমণের ঝুঁকি কম।

এছাড়াও নিউইয়র্কের ১ হাজার ৫৫৯ জন করোনাভাইরাস আক্রান্তের মধ্যে গবেষণায় বলছে রক্তের গ্রুপ ‘এ’ রোগীর সংখ্যা ৩৩ শতাংশের বেশি। অপরদিকে ‘ও’গ্রুপধারীদের করোনা আক্রান্তের সংখ্যা তূলনামূলক কম।

সাধারণত প্রধান চারটি রক্তের গ্রুপের বিশ্লেষণ করলে দেখা যায়।

রক্তের গ্রুপ এ-লোহিত রক্ত ​​কণিকায় এ অ্যান্টিজেনের সাথে প্লাজমায় বি অ্যান্টিবডি রয়েছে।

রক্তের গ্রুপ বি- প্লাজমায় অ্যান্টি-এ অ্যান্টিবডির সাথে বি অ্যান্টিজেন রয়েছে।

রক্তের গ্রুপ ও- কোনো অ্যান্টিজেন নেই। তবে প্লাজমায় অ্যান্টি-এ ও অ্যান্টি-বি অ্যান্টিবডি উভয়ই রয়েছে।

রক্তের গ্রুপ এবি- যার এ ও বি উভয়ই অ্যান্টিজেন রয়েছে তবে অ্যান্টিবডি নেই।

করোনাভাইরাস সম্পর্কিত পূর্ববর্তী করা সকল গবেষণায় দেখা গেছে, ‘ও’ গ্রুপের রক্তে যে অ্যান্টিবডি রয়েছে তা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে শরীরকে সহায়তা করে।

তাহলে কি ‘এ’ রক্তের গ্রুপের ব্যক্তিদের আক্রান্তের ঝুঁকি বেশি?

এ প্রশ্নের উত্তরে কার্ডিওভাসকুলার ও ভেনম ফার্মাকোলজির সহযোগী অধ্যাপক সাকটিভেল ভিয়াপুরী বলেছেন, নতুন এই গবেষণাটি উচ্চমানের হলেও করোনা আক্রান্তের ক্ষেত্রে রক্তের গ্রুপ দায়ী তা জানতে এটি ‘দৃঢ় প্রমাণ নয়’।

তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত কোনো প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়নি যাতে বলা হয়েছে ‘ও’ রক্তের গ্রুপ আক্রান্তরা করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে ১০০ শতাংশ সুরক্ষিত। আর এ রক্তের গ্রুপধারীরা ১০০ শতাংশ ঝুঁকিতে রয়েছে। কিছু সংখ্যক ব্যক্তির মাঝে করা গবেষণা থেকে এ বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া যায় না, এর জন্য আরো গবেষণার প্রয়োজন।

ইম্পেরিয়াল কলেজ লন্ডনের মেডিসিন বিভাগের অধ্যাপক ড্যানি আল্টম্যান বলেছেন, উচ্চ বা নিম্ন ঝুঁকি জানলেও করোনা প্রতিরোধে আচরণগত ক্ষেত্রে তেমন কোনো পরিবর্তন হবে না। তবে রক্তের গ্রুপের প্রভাব কার্যকর, তা সম্পূর্ণভাবে প্রমাণিত হলে করোনা চিকিত্সায় গবেষণা ও ড্রাগ আবিষ্কারের ক্ষেত্রে নতুন এক দরজা উন্মুক্ত হবে বলে তিনি মনে করেন।

অধ্যাপক ভিয়াপুরীর মতে, রক্তের গ্রুপ সম্পর্কিত এ গবেষণায় কারো আতঙ্কিত হওয়া উচিত নয়। একই সাথে ‘ও’ রক্তের গ্রুপের ব্যক্তিদের নিশ্চিন্ত হওয়ারও কিছু নেই। তিনি আরো বলেন, প্রত্যেকেরই লকডাউন নিয়ম মেনে সামাজিক দূরত্ব, নিয়মিত হাত ধোয়া, বাইরে বেরোনোর ​​সময় নাকে-মুখ স্পর্শ না করা ও মাস্ক ব্যবহার করা উচিত।

সূত্র : হাফপোস্ট


আরো সংবাদ

ডা. সাবরিনাকে নিয়েও অনুসন্ধান করবে দুদক মরহুম রাষ্ট্রপতি এরশাদের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী মঙ্গলবার মেয়াদোত্তীর্ণ ওষুধ বিক্রি করায় কাকরাইলে লাজ ফার্মাকে ২৯ লাখ জরিমানা সাহেদের বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করোনা সংক্রমণ বাড়ায় শ্রীলঙ্কায় ফের স্কুল বন্ধের নির্দেশ উন্মুক্ত স্থানে বর্জ্য না ফেলতে ডিএসসিসি মেয়রের আহ্বান ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মিরে সেব্রেনিৎসা স্টাইলে গণহত্যার আশঙ্কা! কিশোরগঞ্জে করোনা ও উপসর্গে ২৪ ঘণ্টায় ৪ জনের মৃত্যু আনোয়ারায় হাতকড়াসহ যুবকের লাশ উদ্ধার জামায়াত কর্মী হাবিবুর রহমানের ইন্তেকালে আমিরের শোক রিজেন্ট-জেকেজি কেলেঙ্কারি বিশ্বে বাংলাদেশকে কলঙ্কিত করেছে : মানববন্ধনে বক্তারা

সকল