০২ জুন ২০২০

চীনফেরত ৭ জনকে নেয়া হয়েছে কুর্মিটোলা হাসপাতালে

উহান থেকে তিন শতাধিক বাংলাদেশিকে একটি বিশেষ বিমানে ঢাকায় আনা হয়। - ছবি : বিবিসি

করোনাভাইরাস উপদ্রুত চীন থেকে ফেরত আনা ব্যক্তিদের মধ্যে সাতজনকে নেয়া হয়েছে রাজধানীর কুর্মিটোলা হাসপাতালে। জানা গেছে, তাদের শরীরে স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি তাপমাত্রা পাওয়া যাওয়ায় এ পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

এর আগে চীনের উহান শহর থেকে তিন শ’র বেশি বাংলাদেশিকে একটি বিশেষ বিমানে চড়িয়ে ঢাকায় ফিরিয়ে আনা হয়েছে।

শনিবার বেলা ১১টা ৫০ মিনিটের দিকে বিমানটি ঢাকার বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

কর্মকর্তারা জানাচ্ছেন, আগামী দু’সপ্তাহ বিমানবন্দর সংলগ্ন আশকোনার হজ্ব ক্যাম্পে সাধারণ মানুষ থেকে বিচ্ছিন্ন করে তাদেরকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে।

পুরো প্রক্রিয়াটি সমন্বয় করছে পররাষ্ট্র, স্বরাষ্ট্র, স্বাস্থ্য, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনাসহ বেশ কয়েকটি মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।

আশকোনার হজ্ব ক্যাম্পে কোয়ারেন্টাইন চলাকালে এই বাংলাদেশিদের ব্যবস্থাপনার দায়িত্বে সেনাবাহিনী থাকবে বলে জানা যাচ্ছে।

আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতরের পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আব্দুল্লাহ ইবনে জায়েদ বিবিসি বাংলাকে বলেন, সেনাবাহিনী মূলত উহান থেকে ফেরত আসা এই বাংলাদেশিদের স্বাস্থ্যের দিকটি দেখবে।

সেনাবাহিনীর চিকিৎসকেরা নিয়মিত এদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা করবেন এবং কোয়ারেন্টাইন কর্মসূচি দেখভাল করবেন।

এখানে যদি কেউ অসুস্থ হয়ে পড়েন, তাহলে তাদেরকে চিকিৎসা দেয়ার জন্য তিনটি হাসপাতাল প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

এগুলো হচ্ছে সমন্বিত সামরিক হাসপাতাল বা সিএমএইচ, কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতাল এবং উত্তরার কুয়েত-বাংলাদেশ মৈত্রী সরকারি হাসপাতাল।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বিশেষ ফ্লাইটটি গতকালই উহানের উদ্দেশে রওয়ানা হয় এবং রাতে সেখান থেকে বাংলাদেশীদের নিয়ে ফিরতি পথ ধরে।

এদিকে, সরকারি কর্মকর্তারা অনুরোধ করেছেন, চীন ফেরত নাগরিকদের আত্মীয়স্বজন যেন ক্যাম্পে ভিড় না করেন। ক্যাম্পে অবস্থানরত নাগরিকদের পরিস্থিতি নিয়মিত জানানোর আনুষ্ঠানিক ব্যবস্থা থাকবে। প্রয়োজনে তারা এসব নম্বরে ফোন করে খবর জানতে পারবেন: ০১৯২৭৭১১৭৮৪; ০১৯২৭৭১১৭৮৫; ০১৯৩৭০০০০১১; ০১৯৩৭১১০০১১।


আরো সংবাদ