০৭ অক্টোবর ২০২২, ২২ আশ্বিন ১৪২৯, ১০ রবিউল আওয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

ইরাকি সুপ্রিম কোর্টকে মুকতাদা সদরের আল্টিমেটাম

মুকতাদা আল সদর - ছবি : সংগৃহীত

ইরাকের জাতীয় সংসদ ভেঙে দেয়ার জন্য দেশটির সর্বোচ্চ আদালতকে এক সপ্তাহের সময়সীমা বেঁধে দিয়েছেন শিয়া নেতা মুকতাদা আল সদর।

বুধবার (১০ আগস্ট) তিনি এই সময়সীমা বেঁধে দিয়ে বলেছেন, আগামী সপ্তাহের শেষ হওয়ার আগেই দেশের বিচার বিভাগ যদি তার কথাকে গুরুত্ব না দেয় এবং জাতীয় সংসদ ভেঙে দিয়ে আগাম জাতীয় নির্বাচনের ব্যবস্থা গ্রহণ না করে তাহলে মারাত্মক পরিণতি বরণ করতে হবে।

গত অক্টোবরে ইরাকে জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। সেই থেকে এ পর্যন্ত দেশটিতে কার্যকর কোনো সরকার নেই। প্রায় ১০ মাস আগে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলেও এখন পর্যন্ত নতুন সরকার গঠন করা সম্ভব হয়নি। এ নিয়ে ইরাকে রাজনৈতিক অচলাবস্থা বিরাজ করছে। এই অবস্থায় মুকতাদা আল সদর সংসদ ভেঙে দেয়ার জন্য সময়সীমা বেঁধে দিলেন।

গত নির্বাচনে মুকতাদা সদরের নেতৃত্বাধীন রাজনৈতিক জোট ইরাকের সংসদে সবচেয়ে বড় শক্তি হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেছে কিন্তু সরকার গঠনের মতো একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি। ফলে এই রাজনৈতিক অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়েছে।

গত দুই সপ্তাহ ধরে সদর ও তার সমর্থকরা ইরাকে মারাত্মক রাজনৈতিক উত্তেজনা সৃষ্টি করেছে। গত সপ্তাহে তার সমর্থকরা ইরাকি সংসদ ভবনে ঢুকে পড়ে এবং সেখানে অবস্থান কর্মসূচি পালন করতে থাকে। পরে অবশ্য মুকতাদা সদরের নির্দেশে তারা চলে যায়।

সাবেক প্রধানমন্ত্রী নুরি আল মালিকির ঘনিষ্ঠ রাজনীতিক শিয়া সুদানির নেতৃত্বে সরকার গঠনের উদ্যোগ নেয়ার খবর শুনে মূলত মুকতাদা সদর তাতে বাধা সৃষ্টির উদ্দেশ্যে ইরাকি সংসদ ভবন দখল করেন এবং সংসদ ভেঙে দিয়ে নতুন নির্বাচনের দাবি তোলেন।

সূত্র : পার্সটুডে


আরো সংবাদ


premium cement