০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

ইসরাইল কেন গাজায় হামলা করে

ইসরাইল কেন গাজায় হামলা করে - ছবি : সংগ্রহ

ইসরাইলি বাহিনী আবারো ফিলিস্তিন অধ্যুষিত গাজা উপত্যকায় হামলা চালিয়েছে। রোববার রাতে মিসরের মধ্যস্ততায় সাময়িক যুদ্ধবিরতি পর্যন্ত তিন দিনে ইসরাইলি হামলায় অন্তত ৪১ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে।

ইসরাইলি সামরিক বাহিনীর এই হামলাকে বেশ কয়েকজন ফিলিস্তিনি ও ইসরাইলি বিশ্লেষক মিডল ইস্ট আইকে বিনা প্ররোচনায় হামলা বলে অভিহিত করেছেন। তারা এই হামলায় অবাক হয়েছেন বলেও মিডল ইস্ট আইকে জানিয়েছেন।

যেভাবে শুরু হলো
গত সপ্তাহের শুরুর দিকে ইসরাইল পশ্চিম তীরের নগরী জেনিন থেকে ফিলিস্তিনি ইসলামিক জিহাদের (পিআইজে) সশস্ত্র শাখার সিনিয়র সদস্য বাসাম আল-সাদিকে গ্রেফতার করে।

এই গ্রেফতারের কোনো প্রতিক্রিয়া গ্রুপটি প্রদর্শন করেনি। কিন্তু তবুও ইসরাইল গাজায় বিমান হামলা চালিয়ে বেশ কয়েকজন ফিলিস্তিনিকে হত্যা করে। এর মধ্যে গ্রুপের অন্যতম নেতা তাইসির জাবারিও ছিলেন।

গাজায় বোমা হামলার জবাবে পিআইজে জানায়, তারা ইসরাইলে শতাধিক রকেট নিক্ষেপ করেছে। তারা জানায়, 'এই যুদ্ধে কোনো রেড লাইন নেই' এবং তেল আবিব নগরী রকেট হামলার মুখে পড়বে।

গাজার শাসক গ্রুপ হামাস এবং উপত্যকার দ্বিতীয় বৃহত্তম সশস্ত্র গ্রুপ পিআইজে ইসরাইলি আগ্রাসনের তীব্র জবাব দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়।

কেন গাজায় হামলা?

ইসরাইল দাবি করেছে, পিআইজের হামলা প্রতিরোধ করার চেষ্টায় তারা এই আক্রমণ করেছে। তবে সবাই তাদের এই ভাষ্য গ্রহণ করেনি।

ইসরাইলি বিশ্লেষক মেরন র‌্যাপোর্ট মিডল ইস্ট মনিটরকে বলেন, 'শেষ কথা হলো, ইসরাইল কথিত ইসলামিক জিহাদের হামলা প্রতিরোধ করার চেষ্টা করতে গিয়ে রকেট হামলার মুখে পড়েছে। ইসরাইল প্রথমে হামলা না করলে এমনটি সম্ভবত হতো না।'

তিনি উল্লেখ করেন, ইসরাইল আসলে সাদির গ্রেফতারের পরই প্রতিশোধমূলক হামলা না করার জন্য গাজায় হামলা করেছে। আর গাজায় ইসরাইলের বিমান হামলার পরই কেবল গ্রুপটি রকেট নিক্ষেপ করেছে।

ইসরাইলে আগামী নভেম্বরে নির্বাচন হবে। ইসরাইলি রাজনীতিবিদেরা জনমত জরিপে এগিয়ে থাকা সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুকে পেছনে ফেলতে তাদের লৌহমানব ভাবমূর্তি গড়ে তুলতে চাচ্ছেন।

র‌্যাপোর্ট বলেন, "একটি সম্ভাবনা হলো, নির্বাচন তিন মাস বাকি থাকতে বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ব্লক জরিপে এগিয়ে থাকায় [প্রধানমন্ত্রী ইয়ির] লাপিদ 'শক্তিশালী' প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নিজের অবস্থান জোরদার করতে চাচ্ছেন।"

এদিকে ইসরাইলি পার্লামেন্টে ফিলিস্তিনি সদস্য সামি আবু শেহাদে নির্বাচনী প্রচারণার অংশ হিসেবে তত্ত্বাবধায়ক প্রধানমন্ত্রী লাপিদ ও প্রতিরক্ষামন্ত্রী বেনি গাঞ্জের গাজায় সামরিক অভিযানের তীব্র সমালোচনা করেছেন।

তিনি মিডল ইস্ট আইকে বলেন, 'গাজায় ইসরাইলের সর্বশেষ আগ্রাসন প্রমাণ করছে, ক্ষমতায় থাকতে জোট সরকার যেকোনো কিছু করতে প্রস্তুত। এই নতুন যুদ্ধাপরাধ বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর মতোই অনৈতিক নির্বাচনী প্রচারণামূলক অপরাধ করার সামিল।'

বর্তমানে বিরোধী দলীয় নেতা হিসেবে থাকা নেতানিয়াহু তার প্রধানমন্ত্রীর আমলে তিনবার গাজায় সামরিক অভিযানে নেতৃত্ব দিয়েছেন।


আরো সংবাদ


premium cement