০৪ জুলাই ২০২২, ২০ আষাঢ় ১৪২৯, ৪ জিলহজ ১৪৪৩
`

ভারতসহ ১৬ দেশে যেতে মানা সৌদিদের

ভারতসহ ১৬ দেশে যেতে মানা সৌদিদের। - ছবি : সংগৃহীত

বিভিন্ন দেশে করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব ফের বাড়ছে। যে কারণে এমন ১৬টি দেশে নাগরিকদের ভ্রমণে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে সৌদি আরব।

রোববার সৌদি আরবের জেনারেল ডিরেক্টরেট অব পাসপোর্টস (জাওয়াজাত) এ ঘোষণা দেয়।

ভ্রমণ নিষিদ্ধ দেশগুলো হলো—লেবানন, সোমালিয়া, ইথিওপিয়া, ডেমোক্র্যাটিক রিপাবলিক অব দ্য কঙ্গো, লিবিয়া, ইন্দোনেশিয়া, ভিয়েতনাম, আর্মেনিয়া, সিরিয়া, তুরস্ক, ইরান, আফগানিস্তান, ভারত, ইয়েমেন, বেলারুশ ও ভেনিজুয়েলা।

গালফ নিউজ জানায়, গত কয়েক সপ্তাহ ধরে এসব দেশে ক্রমাগত কোভিড-১৯ রোগী সংখ্যা বাড়ছে। তবে সৌদি আরবে এ যাবত কোনো মাঙ্কিপক্স রোগী পাওয়া যায়নি। সৌদি স্বাস্থ্য উপমন্ত্রী ডা: আবদুল্লাহ আসিরি বলেন, মাঙ্কিপক্স রোগ শনাক্ত ও পর্যবেক্ষণের সক্ষমতা আমাদের স্বাস্থ্যখাতের আছে। আমরা যেকোনো সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়তে পারি।

তিনি বলেন, এখানে সন্দেহভাজন রোগীর মানসম্মত সংজ্ঞা আছে। সেভাবেই আমরা রোগী শনাক্ত, পর্যবেক্ষণ ও রোগনির্ণয় করি। নমুনা পরীক্ষার জন্য আমাদের ল্যাবরেটরি আছে।

আবদুল্লাহ আসিরি বলেন, মাঙ্কিপক্সের সংক্রমণ অনেকটা সীমিত। কাজেই ভাইরাসটির সংক্রমণের কোনো শঙ্কা নেই। এমনকি যেসব দেশে ভাইরাসটি পাওয়া গেছে, সেখানেও প্রদুর্ভাব সীমিত।

করোনা মহামারীর ধকল মানুষ এখনো কাটিয়ে উঠতে পারেনি। রয়ে গেছে হাসপাতাল, মৃত্যু ও ঘরবন্দি থাকার রেশ। আতঙ্ক থেকে সামান্য ফুরসত পেতে যাচ্ছিল বিশ্ব। এরইমধ্যে নতুন দুঃসংবাদ নিয়ে এল আরেক বিরল রোগ মাংকিপক্স। আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে ১১টি দেশের ৮০ জনের শরীরে রোগটি শনাক্ত হয়েছে।

ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হলে জ্বর, মাথাব্যথা, শরীর ফুলে যাওয়া ও অস্বস্তিকর ব্যথার মতো সমস্যা হয়। অবসাদের পাশাপাশি চুলকানি, ফুসকুড়ি, হাত-পা-মুখে ক্ষত দেখা যায়। আক্রান্ত ব্যক্তি কিংবা প্রাণির ঘনিষ্ঠ সংস্পর্শ ছাড়াও ফুসকুড়ি ওঠা রোগীর ব্যবহৃত বিছানা ও শয্যা ব্যবহার করলে রোগটি ছড়াতে পারে।

সূত্র : এক্সপ্রেস নিউজ ও অন্যান্য


আরো সংবাদ


premium cement