০৩ ডিসেম্বর ২০২১, ১৮ অগ্রহায়ন ১৪২৮, ২৭ রবিউস সানি ১৪৪৩ হিজরি
`

ইরানি পরমাণু বিজ্ঞানীকে 'রোবট' দিয়ে হত্যা করেছে মোসাদ

বন্দুক হামলায় বিধ্বস্ত ড. মহসিন ফখরিজাদেহের গাড়ি, ইনসেটে ড. মহসিন ফখরিজাদেহ - ছবি : সংগৃহীত

ইরানি পরমাণু বিজ্ঞানী ড. মহসিন ফখরিজাদেহকে দূরনিয়ন্ত্রিত 'রোবটের' মাধ্যমে ইসরাইলি গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদ হত্যা করেছে। শনিবার যুক্তরাষ্ট্রের দৈনিক নিউ ইয়র্ক টাইমসে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়।

এর আগে গত বছর ২৭ নভেম্বর তেহরানের নিকট আবসারদ উপশহরে নিজ বাড়ির কাছে অতর্কিত বন্দুক হামলায় নিহত হন ড. ফখরিজাদেহ।

নিউ ইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, হত্যার আগে 'অন্তত ১৪ বছর' ড. ফখরিজাদেহের ওপর নজরদারি চালানো হয়।

প্রতিবেদনে বলা হয়, হত্যাকাণ্ড পরিচালনায় বেলজিয়ান প্রযুক্তির এফএন মেশিন গান ব্যবহার করা হয়, যা দূরনিয়ন্ত্রিত রোবটের হাতে যুক্ত ছিলো।

নিউ ইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়, আর্টিফিশিয়াল ইনটেলিজেন্সের ক্ষমতাসম্পন্ন এই রোবট স্যাটেলাইটের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ করা যেতো এবং এর বহন করা অস্ত্র থেকে মিনিটে ছয় শ' রাউন্ড গুলি করা যেতো।

এই রোবটটি একটি পিকআপের ওপর বসানো ছিলো। এর সাথে নজরদারির জন্য বিভিন্ন দিকে ক্যামেরা বসানো ছিলো। ওই ট্রাকে বিস্ফোরক যুক্ত ছিলো, যাতে অপারেশনের পর হত্যাকাণ্ডের আলামত ধ্বংস করা যায়।

পুরো যন্ত্রটির ওজন এক টন ছিলো বলে প্রতিবেদনে জানানো হয়। এটি ছোট ছোট অংশে ভাগ করে ইরানে নিয়ে আসা হয় এবং আবসারদে ড. ফখরিজাদেহর বাড়ির সামনে প্রস্তুত করা হয়।

নিউ ইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে জানানো হয়, হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত মোসাদ সদস্যরা পুরো অভিযান ইরানের বাইরে একটি কমান্ড সেন্টার থেকে পরিচালনা করে।

ইরানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীন অর্গানাইজেশন অব ডিফেন্সিভ ইনোভেশন অ্যান্ড রিসার্চের প্রধান হিসেবে দায়িত্ব পালন করা ড. মহসিন ফখরিজাদেহ ২০০৭ সালে থেকেই মোসাদের হিটলিস্টে (হত্যার তালিকা) ছিলেন বলে নিউ ইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনে বলা হয়। প্রতিবেদনে আরো বলা হয়, মোসাদ কখনোই তাকে নজরদারির বাইরে যেতে দেয়নি।

এর মধ্যে ২০০৯ সালে ড. ফখরিজাদেহকে হত্যার একটি পরিকল্পনা করা হলেও ইরানের গোয়েন্দা সংস্থা তা জেনে যাওয়ায় শেষ মুহূর্তে মোসাদ তা বাতিল করে।

এদিকে নিউ ইয়র্ক টাইমসের প্রতিবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে রোববার এক সংবাদ সম্মেলনে ইরানের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র সাইদ খতিবজাদেহ বলেন, ইরানের গোয়েন্দা ও নিরাপত্তা সংস্থা এই বিষয়ে তদারক করছে এবং এই বিষয়ে বিস্তারিত তথ্যের সন্ধান করছে।

তিনি বলেন, গোয়েন্দা ও নিরাপত্তা সংস্থার সহায়তায় ইরান আইনি পথ অনুসরণ করবে, যাতে হত্যাকারীদের শাস্তি নিশ্চিত হয়।

সূত্র : প্রেস টিভি



আরো সংবাদ


করোনাভাইরাসের বাহানায় শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ করবেন না : জাগপা বিনামূল্যে ঠোঁটকাটা ও তালুকাটা অপারেশন ক্যাম্প ৪২ যাত্রী নিয়ে সোয়া ঘণ্টা আকাশে : পরে চট্টগ্রামে অবতরণ অজ্ঞান পার্টির কবলে পড়ে হাসপাতালে দুই বাস যাত্রী রাজশাহী অ্যাডভোকেট বার অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মোজাম্মেল আর নেই সৌদি ও মিসরের সাথে সুসম্পর্ক চায় তুরস্ক শোক সংবাদ সিলেবাস কমানোর দাবিতে আশুলিয়ায় শিক্ষার্থীদের অবরোধ, বিক্ষোভ মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে স্কিল ল্যাবের উদ্বোধন নামের ভুলে ফাঁসির রায় পুনর্বিবেচনার দাবিতে ঢাকা বরিশাল মহাসড়ক অবরোধ সেচ ব্যবস্থার টেকসই উন্নয়নে সরকার কাজ করছে : কৃষিমন্ত্রী

সকল

রিসোর্টে নিয়ে তরুণীকে ধর্ষণ করলেন টিকটকার (১০৫৯৯)ভয়াবহ বিস্ফোরণে কাঁপল বাড়ি, ছিন্নভিন্ন ৩ জনের দেহ (৭৫৯০)তুরস্কের অর্থনৈতিক সঙ্কট, বাংলাদেশে শঙ্কা (৭৫৫৯)'কোনো রকমের পূর্বশর্ত ছাড়াই এনপিটিতে যুক্ত হতে হবে ইসরাইলকে' (৭৫১৭)ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড় ‘জাওয়াদ’, চলতি সপ্তাহেই ঝড়-বৃষ্টির পূর্বাভাস (৬৪৪৪)সামরিক হামলার ভীতিই ইরানকে পারমাণবিক কার্যক্রম থেকে বিরত রাখবে : ইসরাইল (৫৮৮৩)দেশ ছেড়ে পালাতে চেয়েছিলেন কাটাখালীর মেয়র আব্বাস (৫৩৮২)টানা ৬ষ্ঠবারের মতো নির্বাচিত চেয়ারম্যান ফজু (৫০৩৭)হাইকোর্টের দ্বারস্থ সেই তুহিনারা, হিজাব পরায় বসতে পারবে না এসআই পরীক্ষায়ও! (৪৫৪০)করোনা শেষ ওমিক্রনেই ! (৩৬০৯)