২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৭ আশ্বিন ১৪২৮, ১৪ সফর ১৪৪৩ হিজরি
`

পশ্চিম তীরে ইসরাইলি বাহিনীর হামলায় আহত ১৪৬ ফিলিস্তিনি

আহত এক ফিলিস্তিনিকে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাচ্ছেন রেড ক্রিসেন্ট কর্মীরা - ছবি : আলজাজিরা/এএফপি

অধিকৃত ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড পশ্চিম তীরে নাবলুস শহরের কাছাকাছি বাইতা গ্রামে ইসরাইলি বাহিনীর হামলায় ১৪৬ জন ফিলিস্তিনি আহত হয়েছেন। শুক্রবার ওই গ্রামের কাছে স্থানীয় কৃষকদের কৃষিজমি দখলে নিয়ে ইহুদি বসতি স্থাপনের প্রতিবাদে শত শত ফিলিস্তিনি বাসিন্দার অংশ গ্রহণে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভে হামলায় এই বিক্ষোভকারীরা আহত হন।

ফিলিস্তিনি রেড ক্রিসেন্ট জানিয়েছে, আহতদের মধ্যে তাজা গুলিবিদ্ধ হয়ে নয়জন, রাবারে মোড়ানো গুলিবিদ্ধ হয়ে ৩৪ জন এবং কাঁদানে গ্যাসে অসুস্থ হয়ে ৮৭ জন আহত হয়েছেন।

অপরদিকে ইসরাইলি সামরিক বাহিনী জানিয়েছে, ফিলিস্তিনি বিক্ষোভকারীদের সাথে মোকাবিলায় গিয়ে দুই সৈন্য ‘সামান্য আহত’ হয়েছেন।

এর আগে গত মে মাসে বাইতা গ্রামের পাশে এই ইহুদি বসতি স্থাপনের পরিকল্পনা প্রকাশ করা হয়। এই লক্ষ্যে কিছু বসতি স্থাপনকারী এই স্থানে এসে ঘর তৈরি শুরু করে।

ইসরাইলের এই উদ্যোগের প্রতিবাদে স্থানীয় ফিলিস্তিনি বাসিন্দারা বিক্ষোভ শুরু করেন। বিক্ষোভের মুখে ইহুদি বসতি স্থাপনকারীরা এই মাসের শুরুতে বসতি ছাড়লেও ইসরাইলি সামরিক বাহিনী এখনো দখল করা স্থানটি ফিলিস্তিনিদের হাতে ছেড়ে দেয়নি।

ইসরাইলি প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, তারা এই স্থানটি জরিপ করে দেখবেন যে ইসরাইলের আইন অনুসারে একে রাষ্ট্রীয় ভূমি হিসেবে নেয়া যায় কি না।

১৯৬৭ সালে ছয় দিনের আরব-ইসরাইল যুদ্ধের পর ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড পশ্চিম তীর দখল করে ইসরাইল। ওই সময় থেকে ইসরাইলি নাগরিকরা পশ্চিম তীরে বসতি স্থাপন শুরু করে। দখলকৃত ভূমিতে আন্তর্জাতিক আইন অনুসারে যেকোনো স্থাপনা নির্মাণ অবৈধ হলেও এখনো পর্যন্ত পশ্চিম তীরে ইহুদি বসতি সম্প্রসারণ করে আসছে ইসরাইলি কর্তৃপক্ষ।

১৯৯৩ সালে অসলো শান্তিচুক্তির মাধ্যমে পশ্চিম তীর থেকে ধীরে ধীরে ইহুদি বসতি সরিয়ে নিয়ে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের হাতে তার নিয়ন্ত্রণ হস্তান্তরের কথা থাকলেও ইসরাইল এই বিষয়ে এখনো কোনো উদ্যোগ নেয়নি।

ইসরাইলি ও ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের ধারণা অনুসারে, বর্তমানে পশ্চিম তীরে ১৬৪ বসতি ও ১১৬ উপনিবেশে প্রায় সাড়ে ছয় লাখ ইহদি বসতি স্থাপনকারী বাস করছেন।

সূত্র : টিআরটি ওয়ার্ল্ড



আরো সংবাদ


খেলাপিদের বিশেষ সুবিধা আরো এক বছর চায় বিজিএমইএ মুস্তাফিজদের দারুণ বোলিংয়ে রোমাঞ্চকর লড়াই জিতল রাজস্থান সাবমেরিন ইস্যু : ‘ক্রুদ্ধ’ ম্যাক্রঁ কি বেশি ঝুঁকি নিয়ে ফেললেন? গাড়িচালক মালেকের বিরুদ্ধে চার্জশিট অনুমোদন দুদকের আফগানিস্তানে আইপিএলের সম্প্রচার নিষিদ্ধ হার এড়ালো বার্সেলোনা অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় নিজেকে নির্দোষ দাবি সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর স্বাস্থ্যের ২৮৩৯ পদে নিয়োগপ্রক্রিয়া বাতিল দুয়েকটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া নির্বাচন শান্তিপূর্ণ হয়েছে : ওবায়দুল কাদের মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশিদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা শিথিল খালেদা জিয়ার মুক্তি ইস্যুতে আপস করা যাবে না: বিএনপি

সকল