২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১, ০৮ আশ্বিন ১৪২৮, ১৫ সফর ১৪৪৩ হিজরি
`

আইসক্রিম বিক্রি বন্ধের সিদ্ধান্তকে ‘সন্ত্রাস’ বললেন ইসরাইলি প্রেসিডেন্ট

ইসরাইলে বেন অ্যান্ড জেরিসের একটি নির্ধারিত দোকান - ছবি : মিডল ইস্ট আই/ এএফপি

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক আইসক্রিম কোম্পানি বেন অ্যান্ড জেরিসের অধিকৃত ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড পশ্চিম তীরের ইসরাইলি বসতিতে আইসক্রিম বিক্রি না করার সিদ্ধান্তকে ‘নতুন ধরনের সন্ত্রাস’ হিসেবে মন্তব্য করেছেন ইসরাইলি প্রেসিডেন্ট আইজ্যাক হ্যারজগ। ইসরাইলের প্রয়াত প্রেসিডেন্ট ও প্রধানমন্ত্রীদের স্মরণে এক অনুষ্ঠানে তিনি এই মন্তব্য করেন বলে বুধবার ইসরাইলি সংবাদমাধ্যম হারেৎজে খবর প্রকাশ করা হয়।

ইসরাইলি প্রেসিডেন্ট বলেন, ‘ইসরাইলকে বয়কট করা নতুন ধরনের সন্ত্রাস, অর্থনৈতিক সন্ত্রাস।’

তিনি বলেন, ‘সন্ত্রাসের মাধ্যমে চেষ্টা করা হচ্ছে ইসরাইলের জনগণ ও ইসরাইলের অর্থনীতির ক্ষতি করার। আমরা যে কোনো ধরনের এই বয়কট ও সন্ত্রাসের বিরোধিতা করবো।’

এর আগে গত ১৯ জুলাই নিজেদের ওয়েবসাইটে এক বিবৃতিতে পশ্চিম তীরে অবস্থিত ইসরাইলি বসতিতে নিজেদের পণ্য বিক্রি না করার সিদ্ধান্তের কথা জানায় বেন অ্যান্ড জেরিস।

বিবৃতিতে কোম্পানিটি জানায়, ‘আমরা বিশ্বাস করি অধিকৃত ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে বেন অ্যান্ড জেরির আইসক্রিম বিক্রি আমাদের মূল্যবোধের সাথে অসংগতিপূর্ণ। আমাদের ভক্ত ও বিশ্বাসী অংশীদারদের থেকেও একই উদ্বেগ আমরা জানতে ও বুঝতে পেরেছি।’

তবে ইসরাইল ভূখণ্ডে কোম্পানিটি তাদের বিক্রয় কার্যক্রম অব্যাহত রাখবে বলে বিবৃতিতে জানায়।

১৯৬৭ সালে ছয় দিনের আরব-ইসরাইল যুদ্ধের পর ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড পশ্চিম তীর দখল করে ইসরাইল। ওই সময় থেকে ইসরাইলি নাগরিকরা পশ্চিম তীরে বসতি স্থাপন শুরু করে। দখলকৃত ভূমিতে আন্তর্জাতিক আইন অনুসারে অবৈধ হলেও এখনো পর্যন্ত পশ্চিম তীরে ইহুদি বসতি সম্প্রসারণ করে আসছে ইসরাইলি কর্তৃপক্ষ।

১৯৯৩ সালে অসলো শান্তিচুক্তির মাধ্যমে পশ্চিম তীর থেকে ধীরে ধীরে ইহুদি বসতি সরিয়ে নিয়ে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের হাতে তার নিয়ন্ত্রণ হস্তান্তরের কথা থাকলেও ইসরাইল এই বিষয়ে এখনো কোনো উদ্যোগ নেয়নি।

ইসরাইলি ও ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের ধারণা অনুসারে, বর্তমানে পশ্চিম তীরে ১৬৪ বসতি ও ১১৬ উপনিবেশে প্রায় সাড়ে ছয় লাখ ইহদি বসতি স্থাপনকারী বাস করছেন।

সূত্র : মিডল ইস্ট মনিটর



আরো সংবাদ


ইরানের জেনারেল সোলাইমানির হত্যাকারী মার্কিন ও ইসরাইলি ২ কমান্ডার নিহত (২০৬৪৮)মুস্তাফিজদের দারুণ বোলিংয়ে রোমাঞ্চকর লড়াই জিতল রাজস্থান (৮৫৩৬)অন্য দেশে পাচার হচ্ছে আফগান সেনাবাহিনীর হেলিকপ্টার ও সাঁজোয়াযান (৮০৯৩)ফিলিস্তিন রাষ্ট্র ইসরাইলের সাথে সংঘাত সমাধানের ‘উত্তম পন্থা’ : বাইডেন (৭৯৭৯)সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে জাতিসঙ্ঘকে চিঠি দিল তালেবান (৭৭২৬)অন্যদেশে পাচার হচ্ছে আফগান সেনাবাহিনীর হেলিকপ্টার ও সাঁজোয়াযান (৬৯৩৫)শিশু সন্তানকে হত্যা পর মায়ের আত্মহত্যা (৬৫৩৫)ড. মাহফুজুরকে ছেড়ে আসায় ট্রল, যা বললেন ইভা (৬১২৫)নতুন ঘরে বসবাস করা হলো না স্বামী-স্ত্রীর (৫৯৭৩)জামায়াতের কাছে হারল আ’লীগ প্রার্থী (৫৬৪৫)