০৩ আগস্ট ২০২১
`

পশ্চিম তীরে ফিলিস্তিনি কিশোরকে ইসরাইলি সৈন্যদের গুলি করে হত্যা

নিহত কিশোরের লাশ নিয়ে বিক্ষোভকারীদের মিছিল - ছবি : এএফপি

অধিকৃত ফিলিস্তিনি ভূখণ্ড পশ্চিম তীরের নাবলুসের দক্ষিণে বাইতায় ইসরাইলি সৈন্যদের গুলিতে ১৫ বছর বয়সী এক ফিলিস্তিনি কিশোর নিহত হয়েছে। শুক্রবার ওই স্থানে ইহুদি বসতি স্থাপনের পরিকল্পনার বিরুদ্ধে প্রতিবাদে অনুষ্ঠিত বিক্ষোভে সৈন্যরা গুলি করলে গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হয় ওই কিশোর।

ফিলিস্তিনি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ইসরাইলি সৈন্যদের গুলিতে আরো ছয় ফিলিস্তিনি আহত হয়েছেন। চিকিৎসার জন্য তাদের নাবলুসের হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

ফিলিস্তিনি বার্তা সংস্থা ওয়াফা জানায়, বিক্ষোভ দমনে ইসরাইলি বাহিনী তাজা গুলি, টিয়ার গ্যাস ও রাবার মোড়ানো ধাতব গুলি নিক্ষেপ করে। তাৎক্ষণিকভাবে ইসরাইলি সামরিক বাহিনীর পক্ষ থেকে কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি।

নিহত মোহাম্মদ সাইদ হেমায়েল পশ্চিম তীরে চলতি বছর ইসরাইলি বাহিনীর গুলিতে নিহত অষ্টম ফিলিস্তিনি শিশু।

এদিকে পশ্চিম তীরে অবৈধ ইসরাইলি বসতি স্থাপনের বিরুদ্ধে নাবলুস ছাড়াও পশ্চিম তীরের রামাল্লাহ, কালকিলইয়া, সিলওয়াদসহ বিভিন্ন স্থানে বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়।

ইসরাইলি ও ফিলিস্তিনি সূত্র অনুসারে, অধিকৃত পশ্চিম তীর ও পূর্ব জেরুসালেমে ১৬৪টি বসতি ও ১১৬টি আউট পোস্টে প্রায় ছয় লাখ ৫০ হাজার ইহুদি ইসরাইলি বাস করছে।

১৯৬৭ সালে ছয় দিনের আরব-ইসরাইল যুদ্ধের পর ইসরাইল পূর্ব জেরুসালেমসহ পশ্চিম তীর ভূখণ্ড ও গাজা উপত্যকা দখল করে নেয়। আন্তর্জাতিক আইন অনুসারে এই ভূখণ্ডকে দখল করা ভূমি হিসেবে বিবেচনা করা হয়। দখলকৃত এই ভূমিতে আইন অনুসারে ইসরাইলের যে কোনো স্থাপনা নির্মাণ অবৈধ।

জাতিসঙ্ঘ নিরাপত্তা পরিষদে দখল করা এই ভূখণ্ডের নিয়ন্ত্রণ ছেড়ে দিতে ইসরাইলের প্রতি আহ্বান জানিয়ে বিভিন্ন সময় প্রস্তাব পাস করা হলেও ইসরাইল তা অবজ্ঞা করে পশ্চিম তীরে দখল অব্যাহত রেখেছে।

সূত্র : আলজাজিরা ও আনাদোলু এজেন্সি



আরো সংবাদ