১৯ এপ্রিল ২০২১
`

সিরিয়ার যুদ্ধে ১০ বছরে ক্ষতি ১.২ ট্রিলিয়ন ডলার

সন্তানসহ নিজের ধ্বংসস্তুপে পরিণত বাড়ি ছাড়ছেন সিরীয় এক নারী শরণার্থী - ছবি : ব্লুমবার্গ/এএফপি

এক দশক চলমান সিরিয়ার গৃহযুদ্ধে লাখ লাখ মানুষের শরণার্থী বা নিহত হওয়ার সাথে সাথে দেশটি বিপুল পরিমাণ অর্থনৈতিক ক্ষতির মুখোমুখি হয়েছে। ২০১১ সাল থেকে শুরু হয়া এই গৃহযুদ্ধে দেশটির মোট দেশীয় উৎপাদনে (জিডিপি) এক দশমিক দুই ট্রিলিয়ন ডলার কমেছে।

বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়াভিত্তিক ত্রাণ সংস্থা ওয়ার্ল্ড ভিশন ইন্টারন্যাশনালের প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে এই তথ্য প্রকাশ করা হয়।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, যুদ্ধ এই মুহূর্তে বন্ধ হলেও সিরিয়ায় এই ক্ষতির জের ২০৩৫ সাল পর্যন্ত চলতে থাকবে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, যুদ্ধের কারণে সিরিয়ার শিশুদের প্রত্যাশিত আয়ুস্কাল ১৩ বছর কমেছে।

প্রতিবেদনে জানানো হয়, ১০ বছরে সিরিয়ায় পাঠানো মানবিক সহায়তার পরিমাণ ১৯ দশমিক চার বিলিয়ন ডলার যা দেশটির মোট অর্থনৈতিক ক্ষতির এক দশমিক ছয় ভাগ মাত্র।

২০১১ সালের মার্চে আরব বসন্তের পরিপ্রেক্ষিতে সিরিয়ার একনায়ক বাশার আল আসাদের পদত্যাগের দাবিতে দেশটির বিভিন্ন শহরে রাস্তায় বিক্ষোভে নামে সাধারণ জনতা। বাশার আল আসাদ সামরিক উপায়ে এই বিক্ষোভ দমন করতে চাইলে দীর্ঘস্থায়ী গৃহযুদ্ধের মুখে পড়ে দেশটি।

দশ বছর চলমান এই গৃহযুদ্ধে দেশটির জনসংখ্যার অর্ধেকই বাস্তুচ্যুত হয়। জাতিসঙ্ঘের তথ্যানুসারে এক কোটির বেশি লোক যুদ্ধের কারণে বাস্তুচ্যুত হয়।

অপরদিকে ১০ বছরের যুদ্ধে সিরিয়ায় অন্তত ছয় লাখ বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন।

সূত্র : ইয়েনি শাফাক



আরো সংবাদ