০৭ মার্চ ২০২১
`

তিউনিয়ায় ৪র্থ দিনেও বিক্ষোভ অব্যাহত : সংযমের আহ্বান প্রেসিডেন্টের

বিক্ষোভকারীদের সংযমের আহ্বান জানিয়েছেন তিউনিসিয়ার প্রেসিডেন্ট - ছবি : টিএপি

তিউনিসিয়ায় চলমান বিক্ষোভের চতুর্থ দিনে বিক্ষোভকারীদের সংযমের আহ্বান জানালেন দেশটির প্রেসিডেন্ট কায়েস সাঈদ। সোমবার রাজধানী তিউনিসের কাছে আরিয়ানা শহর সফরের সময় এই আহ্বান জানান তিনি।

সফরের সময় জনতার উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনাদের মাধ্যমে আমি তিউনিসিয়ার জনগণকে বলতে চাই, আমি আপনাদের দারিদ্র্যের অবস্থা সম্পর্কে জানি এবং আমি তাও জানি যে, কারা আপনাদের দারিদ্র্যকে ব্যবহার করছে। কাউকে আপনাদের দুর্দশার সুযোগ নিতে দেবেন না, সরকারি বা ব্যক্তিগত সম্পত্তিতে হামলা করবেন না। নৈতিক মূল্যবোধের জোরেই আমরা আজকে টিকে আছি, চুরি বা লুটপাটের জোরে নয়।’

তিনি আরো বলেন, ‘তরুণদের যারা ব্যবহার করে নিজেরা অন্ধকারের আশ্রয় নিচ্ছে, তাদের উদ্দেশ্য জনগণের মাঝে বিশৃঙ্খলা ছড়িয়ে দেয়া।’

শুক্রবার থেকে তিউনিসিয়ার সিলিয়ানা ও অন্য শহরে বিক্ষোভ শুরু হয়। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সিলিনিয়ায় একজন মেষপালককে এক পুলিশ কর্মকর্তার তিরস্কার ও নির্যাতনের ভিডিও ছড়িয়ে পড়লে এ বিক্ষোভ শুরু হয়। ওই মেষপালকের ভেড়া স্থানীয় সরকারি কার্যালয়ের ভেতর ঢুকে পড়েছিল।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমের ওই ভিডিওর পরিপ্রেক্ষিতে রাজধানীসহ তিউনিসিয়ার বিভিন্ন শহরে নতুন এই বিক্ষোভ ছড়িয়ে পড়েছে।

বিক্ষোভকারীদের কাছ থেকে কোনো সুনির্দিষ্ট দাবি উপস্থাপন করা হয়নি বা কোনো রাজনৈতিক দলকেও তাদের সমর্থনে দেখা যাচ্ছে না। এই বিক্ষোভ চলমান থাকা বা প্রশমিত হওয়ার কোনো লক্ষণ এখনো নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না।

এক দশক আগে দারিদ্র্য, দুর্নীতি ও অবিচারের বিরুদ্ধে বিপ্লবের মাধ্যমে তিউনিসিয়ায় গণতন্ত্রের উত্তরণ হলেও দেশটির অর্থনৈতিক অবস্থা এখনো শোচনীয়। রাষ্ট্রীয় সেবা ব্যবস্থার দুর্গতির সাথে সাথে তিউনিসিয়ার অর্থনীতি মারাত্মক বিপর্যয়ের প্রান্তে রয়েছে।

সূত্র : আলজাজিরা, টিএপি



আরো সংবাদ