১৯ জানুয়ারি ২০২১
`

‘পরমাণু বিজ্ঞানী ফাখরিজাদে হত্যায় ব্যবহৃত হয়েছে ইসরাইলি অস্ত্র’


দখলদার ইসরাইলের তৈরি অস্ত্রের সাহায্যে ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের বিশিষ্ট পরমাণু বিজ্ঞানী মোহসেন ফাখরিজাদে-কে হত্যা করা হয়েছে। হত্যাকাণ্ডে ব্যবহৃত অস্ত্রের ভগ্নাংশ বিশ্লেষণের পর এ বিষয়ে নিশ্চিত হয়েছে ইরানি বিশেষজ্ঞরা। ইরানের বার্তা সংস্থা 'ইরান প্রেস' আজ (সোমবার) এ তথ্য জানিয়েছে।

এই বার্তা সংস্থার খবরে বলা হয়েছে, তাদের হাতে বিশ্বাসযোগ্য তথ্য-প্রমাণ রয়েছে যাতে এটা স্পষ্ট দূরনিয়ন্ত্রিত অটোমেটিক মেশিনগানের সাহায্যে ইরানি বিজ্ঞানীকে হত্যা করা হয়েছে। দূর নিয়ন্ত্রিত মেশিনগানটি একটি নিশান ভ্যানের ওপরে বসানো ছিল এবং তা দিয়েই ফাখরিজাদে-কে লক্ষ্য করে গুলি চালানো হয়েছে। এরপর ওই নিশান গাড়িতেও বিস্ফোরণ ঘটানো হয়।

দু'টি উদ্দেশ্যে নিশান ভ্যানে বিস্ফোরণ ঘটানো হয়েছে বলে খবরে উল্লেখ করা হয়েছে, প্রথমত তারা চেয়েছিল বিস্ফোরণের মাধ্যমে ড. ফাখরিজাদে'র দেহরক্ষী দলের সদস্যদের ওপর আঘাত হানতে। দ্বিতীয়ত দূর নিয়ন্ত্রিত মেশিনগান ও যন্ত্রাংশসহ সব প্রমাণ পুরোপুরি ধ্বংস করতে চেয়েছিল। কিন্তু ব্যবহৃত অস্ত্রের একাংশ উদ্ধারের পর বিশেষজ্ঞরা নিশ্চিত হয়েছেন, এটি ইসরাইলে তৈরি হয়েছে।

ইরান প্রেস বার্তা সংস্থা আরো জানিয়েছে, তারা নিশ্চিত হতে পেরেছে ইসরাইলি পরিকল্পনা অনুযায়ী তাদেরই অস্ত্র ব্যবহার করে হত্যাকাণ্ড ঘটানো হয়েছে। আর এতে সহযোগিতা করেছে ইরানবিরোধী সন্ত্রাসী গোষ্ঠী এমকেও'র সদস্যরা।

ইসরাইলের যুদ্ধবাজ প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ২০১৮ সালের একটি অনুষ্ঠানে ইরানবিরোধী আলোচনা করতে গিয়ে বিজ্ঞানী ফাখরিজাদে'র নাম বার বার উল্লেখ করেছিলেন। সে সময় তিনি হুমকি দিয়ে বলেছিলেন- "স্মরণ রাখবেন নামটি হচ্ছে ফাখরিজাদে"। পার্সটুডে



আরো সংবাদ