২০ অক্টোবর ২০২০

ইসরাইলের সাথে সম্পর্ক স্থাপনে সুদানি প্রতিনিধি দল আমিরাতে!

সুদানের শাসক পরিষদের প্রধান জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ আল বুরহানের নেতৃত্বে প্রতিনিধি দল সংযুক্ত আরব আমিরাত পৌঁছেছে - ছবি : আলজাজিরা

আমিরাত ও যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তাদের সাথে বৈঠক করার জন্য সুদানের শাসক পরিষদের প্রধানের নেতৃত্বে উচ্চ পর্যায়ের একটি প্রতিনিধি দল সংযুক্ত আরব আমিরাত পৌঁছেছেন। এ সময় তারা যুক্তরাষ্ট্রের ‘সন্ত্রাসে মদদদাতা’র তালিকা থেকে নাম মোছার ব্যাপারে আলোচনা করবেন বলে সুদানের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যম জানিয়েছে।

সুদানের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সুনা রোববার জানিয়েছে, প্রেসিডেন্ট ওমর আল-বশিরকে সরিয়ে দেয়ার পর থেকে দেশটির সার্বভৌম কাউন্সিলের প্রধানের দায়িত্ব পালন করা জেনারেল আবদেল ফাত্তাহ আল বুরহান আমিরাতের নেতাদের সাথে ‘সুদান সংশ্লিষ্ট আঞ্চলিক বিষয়গুলো’ নিয়ে বৈঠক করবেন।

এতে আরো বলা হয়, সুদানের বিচারমন্ত্রী নাসের উদ্দিন আবদেরবারি বৈঠক করবেন আবুধাবিতে অবস্থানরত যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তাদের সাথে। এ সময় তারা যুক্তরাষ্ট্রের সন্ত্রাসের মদদদাতার তালিকা থেকে সুদানের নাম কাটার ব্যাপারে আলোচনা করবেন। এছাড়া রাজনৈতিক ক্রান্তিকাল ও সুদানকে আমেরিকার ঋণ প্রদান বাতিল করার বিষয়গুলোও আলোচনা হবে।

তবে মার্কিন ওয়েবসাইট এক্সিওস তাদের এক প্রতিবেদনে বলেছে, যুক্তরাষ্ট্র, আমিরাত ও সুদানের কর্মকর্তারা সোমবার আবুধাবিতে ইসরাইলের সাথে সুদানের সম্পর্ক স্বাভাবিকীকরণের একটি ‘সিদ্ধান্তমূলক’ বৈঠক করবেন। সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাহরাইন সাম্প্রতিক সপ্তাহে যেমনটা করেছে।

নাম প্রকাশ না করা সূত্রে ওয়েবসাইটটি জানিয়েছে, ইসরাইলের সাথে সম্পর্ক স্বাভাবিকীকরণের বদৌলতে সুদান সন্ত্রাসের মদদদাতার তালিকা থেকে তাদের নাম কাটা ছাড়াও ৩ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের মানবিক সাহায্য এবং সরাসরি বাজেট সহায়তা আদায়ের চেষ্টা করবে।

এছাড়া পরবর্তী তিন বছর অর্থনৈতিক সহায়তা দেয়ার ব্যাপারে আমিরাত ও যুক্তরাষ্ট্রের কাছে থেকেও ‘একটি প্রতিশ্রুতি’ আদায় করতে চাইছে ‍সুদান, রোববারের প্রতিবেদনে এমনটাই জানিয়েছে এক্সিওস।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও গত আগস্টে খার্তুম সফরের সময় ইসরাইলের সাথে সুদানের সম্পর্ক স্থাপনের বিষয়টি সামনে আনেন। এ সময় সুদানের প্রধানমন্ত্রী আবদাল্লাহ হামদোক বলেন, এ ব্যাপারে তার সরকারের জনসমর্থন নেই। অন্তর্বর্তীকাল শেষে ২০২২ সালের নির্বাচনের পর এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত হতে পারে।

বেশকিছু আরব দেশকে ইসরাইলের সাথে সম্পর্ক স্থাপনে রাজি করানোর সফরের অংশ হিসেবে পম্পেও সেখানে যান।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছিলেন, ইসরাইলের সাথে সম্পর্ক স্বাভাবিকীকরণের ব্যাপারে অন্য আরব দেশগুলোও আরব আমিরাত ও বাহরাইলের পদাঙ্ক অনুসরণ করবে বলে তিনি আশা করেন।

তবে ফিলিস্তিন বলছে, এটা তাদের সাথে আরব দেশগুলোর বিশ্বাসঘাতকতা।

সূত্র : আলজাজিরা


আরো সংবাদ

ফেনীতে বেড়াতে এসে ধর্ষণের শিকার উপজাতি কিশোরী অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘটে নৌযান-শ্রমিকরা ফাইনালে খেলার স্বপ্ন জিইয়ে থাকলো মাহমুদউল্লাহ বাহিনীর প্রাথমিকে সহকারী শিক্ষক নিয়োগে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ ২০২০ সালের পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতি : পর্বসংখ্যা-৯৪ গণিত সংক্ষিপ্ত উত্তর প্রশ্ন নবম-দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের লেখাপড়া : বাংলা দ্বিতীয় পত্র বাংলা দ্বিতীয় পত্র প্রথম অধ্যায় : প্রথম পরিচ্ছেদ-ভাষা অষ্টম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতি : বিজ্ঞান ষষ্ঠ অধ্যায় : পরমাণুর গঠন প্রয়োজনীয় বই- প্রাথমিক সহকারী শিক্ষক নিয়োগ সহায়িকা অষ্টম শ্রেণীর প্রস্তুতি : বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় অধ্যায়-৫ : সামাজিকীকরণ ও উন্নয়ন রুবেলের বলে আগুন ঝরছেই

সকল