১০ এপ্রিল ২০২০

যে কৌশলে ইসরাইলি সেনাদের ঘায়েল করছে হামাস

সশস্ত্র হামাস যোদ্ধা - সংগৃহীত

নারীর ভুয়া ছবি ব্যবহার করে বেশ কয়েকজন ইসরাইলি সেনার ফোন হ্যাক করেছে ফিলিস্তিনের মুক্তিকামী সংগঠন হামাস বা ইসলামি প্রতিরোধ আন্দোলন। ইসরাইলের সামরিক বাহিনীর পক্ষ থেকে এ তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করা হয়েছে।

তাদের একজন মুখপাত্র বলেন, তরুণীদের ভুয়া প্রোফাইল ছবি সেনাদের কাছে পাঠিয়ে তাদের একটি অ্যাপ ডাউনলোডে প্রলুব্ধ করা হয়। এতে হ্যান্ডসেটের তথ্য বেহাত হতে পারে, তা বুঝতে পারেনি সেনারা। ওই স্ক্যাম আগেভাগেই ধরা পড়ে যাওয়ায় গুরুত্বপূর্ণ কোনো তথ্য বেহাত হয়নি বলেও দাবি করেছেন ইসরাইলি সেনাবাহিনীর মুখপাত্র। হামাস ও ইসরাইল একে অন্যকে শত্রু হিসেবে দেখে। ইসরাইলের সেনাদের ফোন হ্যাকিংয়ের ক্ষেত্রে হামাসের এটি তৃতীয় প্রচেষ্টার ঘটনা। লেফটেন্যান্ট কর্নেল জোনাথান কনরিকাস বলেন, এর আগে আক্রমণ চালানো হলেও এবার সবচেয়ে জটিল আক্রমণ চালিয়েছে হামাস। তারা এখন অনেক বেশি কিছু শিখেছে এবং আক্রমণ জোরদার করেছে।

কনরিকাস বলেন, ভুল হিব্রু ভাষা ব্যবহার করে তরুণীর ছদ্মবেশে সেনাদের নানাভাবে প্রলুব্ধ করেছে হ্যাকাররা। এ ছাড়া অভিবাসী বা প্রতিবন্ধী হিসেবেও ছদ্মবেশ নিয়ে সেনাদের কাছে নিজেদের বিশ্বাসযোগ্য করে তুলেছে হ্যাকাররা। অনলাইনে বন্ধু হওয়ার পর ওই ভুয়া প্রোফাইল থেকে একটি অ্যাপ ডাউনলোড করার জন্য বলা হয়, যাতে ছবি আদান-প্রদান করা সম্ভব। এভাবে সেনাদের ফোনে ম্যালওয়্যার ঢুকে পড়েছে। ওই ম্যালওয়্যার স্মার্টফোন ও কম্পিউটার থকে তথ্য সরাতে পারে। দূর থেকেই ফোনের নিয়ন্ত্রণ নিতে পারে হ্যাকাররা। সূত্র : বিবিসি।


আরো সংবাদ