০৩ এপ্রিল ২০২০

মোবাইল টাওয়ার স্থানান্তর

-

বিগত ১৭ অক্টোবর ২০১৯ সালে হাইকোর্টের রায়ে নির্দেশ দেয়া হয়েছিলÑ ঘনবসতিপূর্ণ এলাকায় অবস্থিত মোবাইল টাওয়ার চার মাসের মধ্যে বসতিহীন স্থানে সরাতে হবে। সে হিসাবে, এই ১৫ ফেব্রুয়ারির মধ্যে ওই মোবাইল টাওয়ার সরানোর চূড়ান্ত সময়সীমা ছিল। অথচ এখনো সাতক্ষীরা শহরে অবস্থিত বসতিপূর্ণ এলাকা, হাসপাতাল, স্টেডিয়াম, স্কুল-কলেজ, কিন্ডারগার্টেন, কাঁচাবাজার, মসজিদ-মাদরাসা, সরকারি-বেসরকারি অফিস এলাকায় বহাল তবিয়তে মোবাইল টাওয়ারগুলো রয়েছে। এগুলো তেজস্ক্রিয়তা ছড়িয়ে জনস্বাস্থ্যের প্রতি মারাত্মক হুমকি সৃষ্টি করেছে। টাওয়ারের বেশির ভাগই বাড়ির ছাদ ও হাসপাতাল সংলগ্ন। ফলে স্বাস্থ্য অধিদফতর এবং পরিবেশ অধিদফতরের তদন্ত রিপোর্টের কার্যকারিতা দেখা যায় না। জনগণ (শিশুসহ) তেজস্ক্রিয়তার হুমকির আওতায়। বিশেষ করে শিশু এবং বৃদ্ধরা চর্মরোগে, চুরোগে, রক্তচাপ, শ্বাসকষ্ট, হার্টের দুর্বলতা ( বুক ধড়ফড়ানি) ইত্যাদি ব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে পড়েছে। মোবাইল টাওয়ার কোম্পানি এ বিষয়কে আদৌ গুরুত্ব দেবে কি না জনগণ জানে না। কর্তৃপক্ষকে ব্যবস্থা নিতে বিশেষভাবে অনুরোধ জানাচ্ছি।
আমিনুল হাকিম
পলাশপোল, সাতক্ষীরা


আরো সংবাদ

সব দরজা খুলে দিলো বাংলাদেশ ব্যাংক (১৯২১৭)এশিয়ায় করোনা কত দিন থাকবে? জানালো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (১৮৯৮১)যেভাবে রেবিয়ে আসছে আরো ভয়ঙ্কর অনেক প্রাণঘাতী ভাইরাস (১৫৫০০)‘একটা পয়সাও হাতে নেই, চারদিন ধরে শুধু পানি খেয়ে বেঁচে আছি’ (১৩২৩৫)আবেগে কেঁদে ফেললেন আবুধাবির ক্রাউন প্রিন্স (১১৭৫৯)করোনাভাইরাস : ভারতে মাওলানা সাদ ও তাবলিগ জামাত কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে মামলা (৯৭৬৯)মার্কিন বিমানবাহী জাহাজের ৫০০০ নৌ সেনা মারা পড়বে! (৮৯৪০)করোনার বিপক্ষে জিতবে বাংলাদেশ (৮৫৬৯)মুসলিমদেরকে দোষারোপের জন্য দিল্লির মসজিদকে ব্যবহার করা হচ্ছে : ক্রুদ্ধ ওমর আবদুল্লাহ (৬৯১৬)এশিয়ায় করোনা কত দিন থাকবে? জানালো বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (৬৭৭৪)