১৯ মে ২০২২, ০৫ জৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৭ শাওয়াল ১৪৪৩
`

চাঞ্চল্যকর জাকিয়া হত্যা মামলার রায় ২৭ জানুয়ারি

জাকিয়া বেগম হত্যা মামলার রায় আগামী ২৭ জানুয়ারি ঘোষণা করা হবে। - ছবি : সংগৃহীত

গোপালগঞ্জের চাঞ্চল্যকর গৃহবধূ জাকিয়া বেগম হত্যা মামলার রায় আগামী ২৭ জানুয়ারি ঘোষণা করা হবে।

বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) ঢাকার দ্রুতবিচার ট্রাইব্যুনাল-২ এর বিচারক মো: জাকির হোসেনের আদালত বাদিপক্ষ রাষ্ট্র ও আসামিপক্ষের যুক্তিতর্কের শুনানি গ্রহণ করে রায়ের এ দিন ধার্য করেন।

এ মামলার আসামিরা হলেন- নিহতের স্বামী মোর্শেদায়ান নিশান, এহসান সুশান, আনিচুর রহমান ও হাসান শেখ।

বাদিপক্ষের আইনজীবীরা আদালতে অভিযোগ করেন, নিশান হত্যাকাণ্ডের পর গ্রেফতার হলেও জামিন নিয়ে পালিয়ে যান। আসামি নিশান তার স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তি ভাই-বোনদের নামে লিখে দিয়ে পালিয়ে যান।

বৃহস্পতিবার বাকি তিন আসামি আদালতে হাজির ছিলেন। আদালত তাদের জামিন বাতিল করে তাদের কারাগারে পাঠান।

আদালতে বাদিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী আব্দুস সোবহান তরফদার, রাষ্ট্রপক্ষে আবু আব্দুল্লাহ ভূঞা এবং আসামিপক্ষে ছিলেন আইনজীবী ফারুক আহাম্মদ।

আইনজীবী মো: আবু আবদুল্লাহ্ ভূঞা জানান, বৃহস্পতিবার উভয় পক্ষের যুক্তিতর্ক শুনানি শেষে আগামী ২৭ জানুয়ারি এ মামলার রায়ের দিন ধার্য করেছেন। আমরা সাক্ষী ও তথ্য-প্রমাণ দিয়ে এ মামলা প্রমাণ করতে সক্ষম হয়েছি। আমরা আসামিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

তিনি জানান, ২০২০ সালে এ মামলা ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-২ এ আসে। এ মামলায় বাদিপক্ষে ২০ জন সাক্ষী সাক্ষ্য দেন।

এর আগে গত ১৫ ডিসেম্বর উভয় পক্ষের যুক্তি উপস্থাপন শেষে ৩০ ডিসেম্বর এ মামলার রায়ের জন্য রাখা হয়।

আইনজীবীরা জানান, ২০১৬ সালের ৪ ফেব্রুয়ারি রাতে গৃহবধূ জাকিয়াকে নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় তার বাবা জালাল উদ্দিন মল্লিক বাদি হয়ে গোপালগঞ্জ সদর থানায় জাকিয়ার স্বামী মোর্শেদায়ান নিশানকে প্রধান আসামি করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।

মামলার অভিযোগে বলা হয়, নিশান, এহসান সুশান, আনিচুর রহমান, হাসান শেখ মিলে ধারালো অস্ত্র দিয়ে গৃহবধূ জাকিয়াকে কুপিয়ে হত্যা করে।


আরো সংবাদ


premium cement