২০ জানুয়ারি ২০২১
`

জুরাইনে যুবকের শরীরে আগুন লাগিয়ে হত্যার চেষ্টা : গ্রেফতার ৩

প্রতীকী ছবি -

রাজধানীতে সিএনজি ফিলিং স্টেশনের এক নজেল অপারেটরের শরীরে অকটেন ঢেলে আগুন লাগিয়ে হত্যার চেষ্টার অভিযোগে তিনজনকে গ্রেফতার করেছে শ্যামপুর থানা পুলিশ।

রাজধানীর শ্যামপুর থানার জুরাইন এস আহাম্মেদ ফিলিং ষ্টেশনের স্ট্যাফ রুমে মোঃ রিয়াদ হোসেনের (২০) নামে এক যুবকের শরীরে অকটেন দিয়ে আগুন লাগানো হয় বলে মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলো মাহমুদুল হাসান ইমন (২২), মোঃ ফাহাদ আহাম্মেদ পাভেল (২৮) ও মোঃ শহিদুল ইসলাম রনি (১৮)।

তারাও ফিলিং স্টেশনে কর্মরত ছিল।

শ্যামপুর থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ভিকটিম গত ৪ নভেম্বর হতে শ্যামপুর থানার ৩৩১/১ জুরাইন মাজার গেট, এস আহাম্মেদ সিএনজি ফিলিং ষ্টেশনে নজেল অপারেটর হিসাবে চাকুরিতে যোগদান করে। এরপর থেকে গ্রেফতারকৃত ফাহাদ ভিকটিমের সাথে অকারণে খারাপ আচরণ করতে থাকে। এক পর্যায়ে বুধবার ভোর আনুমানিক সোয়া ৪টার দিকে ফিলিং ষ্টেশনের স্ট্যাফ রুমে ইমন ও রনি রিয়াদের গায়ে অকটেন ঢেলে দিয়াশলাই দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। ফাহাদের পূর্ব পরিকল্পনা ও প্রত্যক্ষ প্ররোচণায় এসব করা হয় বলে জানা যায়।

আগুনে ভিকটিমের হাটু হতে গলা পর্যন্ত শরীরের অধিকাংশ পুড়ে দগ্ধ হয়। তারপর পাম্পের লোকজন ভিকটিমকে শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটে নিয়ে ভর্তি করেন। বর্তমানে তার অবস্থা অশঙ্কাজনক।

ডিএমপি’র এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ এ কথা জানানো হয়।

এ ঘটনায় ভিকটিমের বাবা শ্যামপুর থানায় একটি মামলা করেন। পাঁচ দিনের রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে তাদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

সূত্র : বাসস



আরো সংবাদ