০৫ এপ্রিল ২০২০

সালমান শাহের আত্মহত্যার ৫ কারণ

-

জনপ্রিয় নায়ক সালমান শাহের আত্মহত্যার পেছনে পাঁচটি কারণ তুলে ধরেছে মামলার তদন্ত সংস্থা পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)। সোমবার এক সংবাদ সম্মেলনে সংস্থাটি জানিয়েছে, সালমান শাহকে হত্যা করা হয়নি। নায়িকা শাবনূরের সাথে অন্তরঙ্গতার কারণে পারিবারিক কলহের জেরে তিনি আত্মহত্যা করেছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে পিবিআইয়ের প্রধান বনজ কুমার মজুমদার বলেন, 'সালমান শাহের রহস্যজনক মৃত্যুর মামলার তদন্ত প্রতিবেদন চূড়ান্ত করা হয়েছে। তাকে হত্যার কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি। পারিবারিক কলহ ও মানসিক যন্ত্রণা সহ্য করতে না পেরে তিনি আত্মহত্যা করেছেন।'

পিবিআই'র বিশেষ পুলিশ সুপার মোঃ বশির আহমেদের স্বাক্ষর করা বিজ্ঞপ্তিতে আজ ওই তদন্তের বিষয়ে জানানো হয়।

তদন্ত প্রতিবেদন অনুসারে সালমান শাহের আত্মহত্যার পাঁচটি কারণ হলো চিত্রনায়িকা শাবনূরের সাথে সালমানের অতিরিক্ত অন্তরঙ্গতা, স্ত্রী সামিরার সাথে দাম্পত্য কলহ, মাত্রাধিক আবেগপ্রবণতার কারণে একাধিকবার আত্মঘাতী হওয়ার বা আত্মহত্যার চেষ্টা, মায়ের প্রতি অসীম ভালোবাসা জটিল সম্পর্কের বেড়াজালে পড়ে পুঞ্জীভূত অভিমানে রূপ নেয়া এবং সন্তান না হওয়ায় দাম্পত্য জীবনে অপূর্ণতা।

১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর সালমান শাহকে ঢাকায় তার বাসভবনে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। তবে তার পরিবার এবং ভক্তদের অনেকেই দাবি করছিলেন, তাকে হত্যা করা হয়েছে।

সালমান শাহের মৃত্যুর ঘটনায় সর্বশেষ তদন্তটি করার দায়িত্ব পায় পিবিআই।


আরো সংবাদ