০৬ এপ্রিল ২০২০

মাওলানা আব্দুস সুবহানের আপিল সমাপ্তি ঘোষণা

মাওলানা আব্দুস সুবহান
মাওলানা আব্দুস সুবহান - ছবি : সংগৃহীত

চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যাওয়া মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত জামায়াতে ইসলামীর নায়েবে আমির মাওলানা আব্দুস সুবহান (৮০) এর আপিল অ্যাবেটেড (চূড়ান্তভাবে সমাপ্তি ঘোষণা) করেছেন আপিল বিভাগ।

আজ মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন চার বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

আদালতে সুবহানের পক্ষে ছিলেন জ্যেষ্ঠ আইনজীবী খন্দকার মাহবুব হোসেন। সঙ্গে ছিলেন আইনজীবী শিশির মনির। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

পরে শিশির মনির বলেন, এ মামলার বিষয়বস্তু (আব্দুস সুবহান) আর নেই। এ কারণে আপিল বিভাগ আপিলটিকে চূড়ান্তভাবে সমাপ্তি ঘোষণা (অ্যাবেটেড) করেছেন। ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় শুক্রবার দুপুর দেড়টার দিকে তিনি মারা যান।

গত ২৪ জানুয়ারি তাকে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর থেকে হাসপাতালের নতুন ভবনের মেডিসিন ওয়ার্ডে ভর্তি ছিলেন তিনি।

জামায়াত নেতা আব্দুস সুবহান পাবনা-৫ আসন থেকে পাঁচবার সংসদ সদস্য (এমপি) নির্বাচিত হন। সবশেষ ২০০১ সালের নির্বাচনে চারদলীয় জোটের মনোনয়ন নিয়ে এমপি হন তিনি।

তিনি পাকিস্তান আমলে পাবনা জেলা জামায়াতের আমির ও কেন্দ্রীয় শুরা সদস্য ছিলেন। পাবনা আলিয়া মাদ্রাসার সাবেক হেড মাওলানাও ছিলেন সুবহান।

২০১৫ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি তাকে মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ড দেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। এরপর থেকে কাশিমপুর কারাগারে বন্দি ছিলেন তিনি।

এদিকে ২০১৫ সালের ১৮ মার্চ এ রায়ের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে আপিল করেছিলেন মাওলানা সুবহানের আইনজীবীরা।


আরো সংবাদ