০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৯, ১২ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

বিশ্ব পর্যটন দিবস আজ

-

বিশ্ব পর্যটন দিবস আজ। প্রতি বছরের মতো এ বছরও বিশ্বের অন্যান্য দেশের সাথে বাংলাদেশে দিবসটি পালিত হচ্ছে। এ বছর বিশ্ব পর্যটন দিবসের প্রতিপাদ্য ‘পর্যটনে নতুন ভাবনা’।
দিবসটি উপলক্ষে বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন র‌্যালি, খাদ্য উৎসব, লাইভ কুকিং শো, সিটি প্যাকেজ ট্যুর ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানসহ দিনব্যাপী কর্মসূচি পালন করবে। এ ছাড়া হোটেল-মোটেলের আবাসনে ৩০ শতাংশ ছাড় দিয়েছে পর্যটন করপোরেশন।
বিশ্বের দীর্ঘতম সমদ্রসৈকতে আরো বেশি পর্যটক টানতে সপ্তাহব্যাপী বর্ণিল অনুষ্ঠানের (বিচ কার্নিভ্যাল) আয়োজন করা হয়েছে। এ সময় হোটেলের কক্ষভাড়ায় সর্বোচ্চ ৭০ শতাংশ পর্যন্ত বিশেষ মূল্যছাড়ের ঘোষণা দেয়া হয়েছে। খাবারের দাম ৫০ শতাংশ কমানোর ঘোষণাও এসেছে। দিবস ঘিরে সৈকতের লাবণী পয়েন্টে বসছে পর্যটন মেলা। দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী পৃথকভাবে বাণী প্রদান করেছেন। রাষ্ট্রপতি মো: আবদুল হামিদ তার বাণীতে পরিবেশের ভারসাম্য ও দেশের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য অক্ষুণœ রেখে পর্যটন শিল্পে উন্নয়ন কার্যক্রম পরিচালনার জন্য সংশ্লিষ্ট সবার প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেন, প্রতি বছর বিশ্ব পর্যটন দিবস পালনের মাধ্যমে সবাইকে পর্যটনের সামাজিক, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক ও অর্থনৈতিক গুরুত্ব সম্পর্কে সচেতন করার পাশাপাশি টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট অর্জন ও জাতীয় অর্থনীতিতে পর্যটনের অবদান সম্পর্কে অবহিত করা হয়। রাষ্ট্রপতি মনে করেন, এ উদ্যোগ অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়নে পর্যটন শিল্পের গুরুত্ব অনুধাবনের পাশাপাশি পর্যটনবিষয়ক কর্মকাণ্ডে সর্বজনীন অংশগ্রহণকে উৎসাহিত করবে।
অন্য দিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তার বাণীতে বলেন, ‘নয়নাভিরাম প্রাকৃতিক সৌন্দর্য, সমৃদ্ধ ইতিহাস, বৈচিত্র্যপূর্ণ সংস্কৃতি আমাদের দেশকে পরিণত করেছে একটি বহুমাত্রিক আকর্ষণসমৃদ্ধ অনন্য পর্যটন গন্তব্যে।’ প্রধানমন্ত্রী বলেন, স্থানীয় কৃষ্টি, ঐতিহ্য ও মূল্যবোধকে সমুন্নত রেখে পর্যটনের উন্নয়নের পাশাপাশি জাতীয় অর্থনৈতিক উন্নয়নে পর্যটন সংশ্লিষ্ট সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানসহ সবাইকে এক সাথে কাজ করতে হবে।


আরো সংবাদ


premium cement