১৬ মে ২০২২
`

কেনা হচ্ছে ভেহিক্যাল মাউন্টেড ডাটা ইন্টারসেপ্টর

-

ন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন মনিটরিং সেন্টার-এনটিএমসির জন্য টিওএন্ডটিভুক্ত আরো একটি ‘ভেহিক্যাল মাউন্টেড ডাটা ইন্টারসেপ্টর-ভিওআইপি কেনা হচ্ছে। সরাসরি ক্রয় পদ্ধতিতে উৎপাদক প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে ভিওআইপি’টি কেনা হবে। এ জন্য ব্যয় হবে ৫৬ কোটি ৩২ হাজার টাকা।
সূত্র জানায়, এ-সংক্রান্ত একটি ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদনের জন্য অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠেয় অর্থনৈতিক বিষয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির পরবর্তী সভায় উপস্থাপন করা হতে পারে।
জানা গেছে, যন্ত্রটি কেনার জন্য দরদাতা প্রতিষ্ঠান যুক্তরাষ্ট্রের ‘মোবাইলিয়াম ইনকরপোরেশনকে’ আমন্ত্রণ জানানো হয়। কারিগরি কমিটির মূল্যায়নে প্রতিষ্ঠানটি কমপ্লাইড বিবেচিত হয়। তবে দাখিল করা দাম বাজার দরের সাথে অসামঞ্জস্যপূর্ণ হওয়ায় টিইসি কর্তৃক এ লক্ষ্যে দরদাতার সাথে পিপিআর-২০০৮ এর বিধি-৭৫(৩) এর আলোকে নেগোশিয়েশন শেষে আগের দাম ৫৫ লাখ ইউএস ডলারের জায়গায় ৪৪ লাখ ইউএস ডলার, যা দেশীয় মুদ্রায় ৩৭ কোটি ৮৪ হাজার টাকা (মূল্য সংযোজন কর ও ভ্যাট ছাড়া) প্রস্তাব করে। এটি ক্রয়কারী সংস্থা প্রধান (এইচওপিই) অনুমোদন করেছে।
সূত্র জানায়, ন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন মনিটরিং সেন্টার (এনটিএমসি) এর টিওএন্ডইতে ভেহিক্যাল মাউন্টেড ডাটা ইন্টারসেপ্টরের মঞ্জুরি সংখ্যা দু’টি। এর আগে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের ২০১৯ সালের ১৮ জুন তারিখের একটি স্মারকের মাধ্যমে একটি ভেহিক্যাল মাউন্টেড ডাটা ইন্টারসেপ্টর কেনার অনুমতি দেয়া হয়। প্রস্তাবিত যন্ত্রাংশটি টিওএন্ডটিভুক্ত ২য় ভেহিক্যাল মাউন্টেড ডাটা ইন্টারসেপ্টর।
জানা গেছে, চলতি ২০২১-২২ অর্থবছরে এনটিএমসির বার্ষিক ক্রয় পরিকল্পনায় যন্ত্রাংশটি অন্তর্ভুক্ত রয়েছে; যা এসটিএমসির বাজেট বরাদ্দ থেকে ব্যয় করা হবে এবং এ খাতে ১৯০ কোটি ৯০ লাখ ৮০ হাজার টাকা বরাদ্দ রয়েছে।
সূত্র জানায়, এর আগে এনটিএমসির জন্য গত ২০১৯ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি তারিখে একটি ভেহিক্যাল মাউন্টেড ডাটা ইন্টারসেপ্টর কেনার লক্ষ্যে প্রশাসনিক অনুমোদন করা হয়। সরাসরি ক্রয়পদ্ধতি (ডিপিএম) অনসুরণ করে যন্ত্রটি কেনার জন্য একই বছর ৫ মে তারিখে অর্থনৈতিক বিষয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি (সিসিইএ) সভায় উপস্থাপনের জন্য সার-সংক্ষেপ পাঠানো হয়; যা একই বছর ১৫ মে’র সভায় উপস্থাপিত হলে হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার ভবিষ্যতে নির্ধারিত কোম্পানির বাইরের উৎস থেকে নেয়ার সুযোগ আছে কি না, সেটি নির্ণয়ের কথা বলা হয়। এতে আরো বলা হয়, তিন বছর সেবা দেয়ার পর পরে দেশীয় জনবল প্রশিক্ষিত করে তাদের দিয়ে সার্বিক ব্যবস্থা নিশ্চিত করার ব্যবস্থা থাকবে কি না ইত্যাদি বিষয় গভীরভাবে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে হবে এবং একটি স্বয়ংসম্পূর্ণ প্রস্তাব পরবর্তীতে অর্থনৈতিক বিষয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় উপস্থাপন করার জন্য সুপারিশ করা হয়।
সূত্র জানায়, এনটিএমসি থেকে যন্ত্রটি সরাসরি ক্রয় পদ্ধতি অনুসরণ করে সিসিইএ-এর চাওয়া হার্ডওয়্যার ও সফটওয়্যার নির্ধারিত কোম্পানির বাইরের উৎস থেকে কমার্শিয়াল হার্ডওয়্যার ব্যবহারের মাধ্যমে ভবিষ্যতে সিস্টেমটি কার্যক্ষম রাখা সম্ভব এবং তিন বছর সেবা দেয়ার পরে আমাদের দেশীয় জনবল প্রশিক্ষিত করার বিষয়টি উল্লেখ করে আবার প্রস্তাব পাঠায়। প্রস্তাবটি পুনর্বিবেচনার জন্য অর্থনৈতিক বিষয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটিতে উপস্থাপনের লক্ষ্যে গত ২০১৯ সালের ২৮ জুলাই তারিখে পাঠানো হয়। সে পরিপ্রেক্ষিতে ২০১৯ সালের ৭ আগস্ট তারিখে অনুষ্ঠিত অর্থনৈতিক বিষয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির সভায় একটি সিদ্ধান্ত হয়।
সিদ্ধান্তে বলা হয়েছে, জননিরাপত্তা বিভাগের প্রস্তাবের পরিপ্রেক্ষিতে ন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন মনিটরিং সেন্টারের (এনটিএমসি) আওতায় পাবলিক প্রকিউরমেন্ট আইন, ২০০৬ এর ধারা ৬৮(১) অনুযায়ী জাতীয় নিরাপত্তার স্বার্থে সর্বোচ্চ গোপনীয়তা বজায় রাখতে হবে। এ জন্য সরাসরি ক্রয় পদ্ধতি অবলম্বন করে একটি ভেহিক্যাল মাউন্টেড ডাটা ইন্টারসেপ্টর কেনার লক্ষ্যে প্রকিউরমেন্ট আইন, ২০০৮ এর বিধি ৭৬(২)-এ উল্লিখিত মূল্যসীমার ঊর্ধ্বের ক্রয়ের ক্ষেত্রে নীতিগত অনুমোদন দেয়া যেতে পারে পারে বলে সর্বসম্মতিভাবে সুপারিশ করা হয়।


আরো সংবাদ


premium cement
দক্ষিণ কোরিয়ায় হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে ৩ জন হতাহত মিঠাপুকুরে স্লুইস গেট সংস্কারের অভাবে কয়েক হাজার কৃষকের স্বপ্ন পানিতে ভাসছে শিরিনকে স্মরণ রাখতে জমজ সন্তানের বাবার অভিনব উদ্যোগ পিরোজপুরে বাড়িতে ঢুকে বৃদ্ধাকে শ্বাসরোধে হত্যা ম্যাথুজ-বিশ্বর ব্যাটে অস্বস্তিতে বাংলাদেশ কাটছে না ভিসা সঙ্কট : হতাশায় জার্মানগামী বাংলাদেশী শিক্ষার্থীরা যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুক হামলায় কয়েক মাসে প্রাণহানি দুই শতাধিক বাংলাদেশে ফিরতে চান পি কে হালদার আশুলিয়ায় কুকুরের গোশত দিয়ে বিরিয়ানি বিক্রি, আটক ১ রাশিয়ার হামলা ঠেকাতেই নদীর বাঁধ কাটলেন গ্রামবাসী শিগগিরই একটি কার্যকর যুদ্ধের ঘোষণা আসবে : ছাত্রদল সম্পাদক

সকল