২৬ মে ২০২২
`

মাহাথিরের মৃত্যুর গুজব না রটাতে অনুরোধ মেয়ে মেরিনার

-

বাংলাদেশের সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ইতোমধ্যে একটি ভুয়া খবর ছড়িয়ে পড়েছে। তাতে বলা হচ্ছে আধুনিক মালয়েশিয়ার রূপকার ডা: তুন মাহাথির মোহাম্মদ মারা গেছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে অনেকেই স্ট্যাটাস দিয়ে এই মাহাথিরের মৃত্যুর গুজব ছড়াচ্ছেন। খবরটি এরই মধ্যে ভাইরাল হয়ে গেছে। প্রকৃত খবর হচ্ছে ৯৬ বছর বয়সী সাবেক তিনবারের প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ মারা যাননি। তিনি চিকিৎসা নিচ্ছেন।
গত শনিবার হার্টের সমস্যা নিয়ে মালয়েশিয়া ন্যাশনাল হার্ট ইনস্টিটিউটে ভর্তি হয়েছিলেন। এখনো তিনি সেখানেই চিকিৎসা নিচ্ছেন। মাহাথির হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর সিসিইউ ইউনিটে ছিলেন। এরপর দেশটির ইলেকট্রনিকস ও প্রিন্ট মিডিয়ার সাংবাদিকরা ওই হাসপাতালের সামনে খবর সংগ্রহের জন্য হুমড়ি খেয়ে পড়েন। এই বিষয়টি নিয়ে গতকাল গণমাধ্যমে মাহাথির মোহাম্মদের মেয়ে দাতিন পাদুকা মেরিনা মাহাথির কিছুটা বিরক্ত হয়ে বলেন, আমার পিতা আগের চেয়ে খানিকটা সুস্থ আছেন, আপনাদের অতিমাত্রায় কৌতূহলের কারণে আমরা পারিবারিকভাবে উদ্বিগ্ন। এ সময় তিনি আরো বলেন, দয়া করে মাহাথির মোহাম্মদকে নিয়ে কোনো ভুয়া খবর প্রচার করবেন না এবং তাকে নিয়ে অতিমাত্রায় খবর প্রচার বন্ধ রাখুন।
গতকাল মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে ৫টায় প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত দেশটির সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচারিত খবরে বলা হয়েছে মাহাথিরের অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে এবং উন্নতির দিকে আছে।
মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী ও আধুনিক মালয়েশিয়ার স্থপতি ডা: তুন মাহাথির মোহাম্মদ । তিনি ১৯৮১ সালে মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণ করেন এবং ২০১৮ সালে তৃতীয় বারের মতো প্রধানমন্ত্রী হয়ে দুই বছর পর ২০২০ সালে পদত্যাগ করেন। তার নেতৃত্বে ক্ষমতাসীন দল পর পর পাঁচবার পার্লামেন্ট নির্বাচনে জয়ী হয়ে সরকার গঠন করে। তিনি এশিয়ার সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ধরে গণতান্ত্রিকভাবে নির্বাচিত প্রধানমন্ত্রী ছিলেন।


আরো সংবাদ


premium cement