১৮ মে ২০২২, ০৪ জৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৬ শাওয়াল ১৪৪৩
`

রাজধানীর মাতুয়াইলে সড়কে ঝরল একই পরিবারের তিনজনের প্রাণ

-

রাজধানীর মাতুয়াইলে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে বেপরোয়া বাসের চাপায় সিএনজিচালিত অটোরিকশার তিন যাত্রী নিহত হয়েছেন। নিহতরা সবাই একই পরিবারের সদস্য। নিহতরা হলেন আব্দুর রহমান (৬৫), তার মেয়ে শারমিন বেগম (৩৮) ও মেয়ের জামাতা মো: রিয়াজুল ইসলাম (৪৮)। এ সময় শারমিন রিয়াজের মেয়ে মিষ্টি (১১) ও অটোরিশকাচালক রফিক (৪২) আহত হয়েছেন। গতকাল শুক্রবার সকালে মাতুয়াইল মা ও শিশু হাসপাতালের সামনের সড়কে এ মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকাল ৭টার দিকে বেপরোয়া গতির সেন্টমার্টিন পরিবহনের একটি যাত্রীবাহী বাস যাত্রীবাহী সিএনজিকে চাপা দেয়। এতে সিএনজিটি দুমড়ে মুচড়ে যায়। এ সময় দুমড়ে মুচড়ে যাওয়া সিএনজির ভেতর থেকে এক শিশুসহ পাঁচ যাত্রীকে বের করে দ্রুত ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক আবদুর রহমান, শারমিন ও রিয়াজুলকে মৃত ঘোষণা করেন।
নিহত আবদুর রহমানের ছেলে তানভীর আহমেদ জানান, তার মা মহাখালী ক্যান্সার হাসপাতালে ভর্তি। তার অবস্থাও গুরুতর। মাকে দেখতে গ্রামের বাড়ি বরিশাল উজিরপুর থেকে বাবা আবদুর রহমান, বোন শারমিন, ভগ্নিপতি রিয়াজুল, শারমিন দম্পতির শিশুসন্তান মিষ্টিকে নিয়ে ভোরে সদর ঘাট নামেন। সেখান থেকে তারা আমার মাতুয়াইলের বাসায় আসছিলেন।
তানভীর জানান, বাসার অদূরে মাতুয়াইল মা ও শিশু হাসপাতালে আসার পথে একটি যাত্রীবাহী বাস তাদের সিএনজিকে চাপা দেয়। সেখান থেকে তাদের উদ্ধার করে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক বাবা, বোন ও বোন জামাতাকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত ভাগ্নি মিষ্টিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
তানভীর জানান, তাদের প্রথমে আমার বাসায় ওঠার কথা ছিল। সেখান থেকে ক্যান্সার হাসপাতালে অসুস্থ মায়ের কাছে নিয়ে যাওয়ার কথা ছিল।
যাত্রাবাড়ী থানার ওসি মো: মাজহারুল ইসলাম জানান, সকালে মাতুয়াইল মাতৃসদন হাসপাতালের সামনে সিএনজি অটোরিকশা রাস্তা ক্রস করে উত্তর পাশ থেকে দক্ষিণপাশে আসছিলেন। এ সময় কাঁচপুর থেকে ঢাকামুখী সেন্টমার্টিন পরিবহনের একটি বাস ওই সিএনজিকে সজোরে ধাক্কা দেয়। এতে সিএনজি পাঁচ যাত্রী গুরুতর আহত হয়। পরে সকাল ৮টার দিকে তাদেরকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক তিনজনকে মৃত ঘোষণা করেন। ওসি জানান, বাস নিয়ে চালক পালিয়ে গেছে। তাকে ধরার চেষ্টা চলছে।
যাত্রাবাড়ী থানার এসআই বিশ্বজিৎ সরকার জানান, সকালে মাতুয়াইল মেডিক্যালের সামনে সেন্টমার্টিন পরিবহনের একটি বাস সিএনজিকে চাপা দিলে একই পরিবারের তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। আর দু’জন আহতাবস্থায় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বিকেলে নিহতের স্বজনরা থানায় এসেছে। মামলা করা হলে লাশগুলো ময়নাতদন্ত হবে।
রামপুরায় দুই গাড়ির চাপায় সিএনজি অটোরিকশা চালক নিহত : এ দিকে গত বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে রাজধানীর রামপুরায় পিকআপ ও কাভার্ডভ্যানের মধ্যে চাপায় পড়ে সিএনজি চালিত একটি অটোরিকশা দুমড়ে মুচড়ে যায়। এতে সিএনজি চালক মো: রাজিব হাওলাদারের (৩৮) মৃত্যু হয়েছে। নিহতের বড় ভাই মিজান হাওলাদার জানান, বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ১২টার দিকে রামপুরা বাজার এলাকায় দিয়ে সিএনজি অটোরিকশা চালিয়ে যাওয়ার সময়ে একটি পিকআপ পেছন দিয়ে ধাক্কা দেয়। সিএনজি চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে কিছুক্ষণের মধ্যে আরেকটি কাভার্ডভ্যান চাপা দিলে অটোরিকশাটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। পরে স্থানীয়রা সিএনজি চালক রাজীবকে গুরুতর আহতাবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে পঙ্গু হাসপাতালে নিয়ে যান। এরপর শুক্রবার সকালে সেখান থেকে তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আনা হয়। এ সময় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। নিহতের ভাই জানান, তাদের গ্রামের বাড়ি বরিশালের বাকেরগঞ্জ উপজেলার রিয়ামতি গ্রামে। বাবার নাম আইয়ুব আলী হাওলাদার। দুই ভাই, এক বোনের মধ্যে তিনি ভাই রাজীব দ্বিতীয়। স্ত্রী, দুই মেয়ে ও এক ছেলেকে নিয়ে খিলগাঁও সিপাহীবাগ এলাকায় থাকতেন রাজীব।
রামপুরা থানার এসআই মো: মোমিনুল রহমান জানান, এ ঘটনায় পিকআপ ভ্যানটি জব্দ করা হয়েছে। চালককে আটক করে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

 


আরো সংবাদ


premium cement
গ্রীষ্মকালীন ছুটি বাতিলের দাবি ইবি শিক্ষার্থীদের ফুলবাড়ীতে জালিয়াতির মামলায় প্রধান শিক্ষক কারাগারে বগুড়ায় পানিতে ডুবে ফুফু-ভাতিজার মৃত্যু বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইটের আয়-ব্যয় তদন্তের দাবি বিএনপির সুপ্রিম কোর্ট বার : বিএনপি ও সরকার সমর্থক আইনজীবীদের মধ্যে ব্যাপক হট্টগোল গুজরাটে দেয়াল ধসে ১২ শ্রমিক নিহত বড়াইগ্রামে ট্রাক-মাইক্রো মুখোমুখি সংঘর্ষে চালকসহ নিহত ২ মুশফিকের টেস্ট সেঞ্চুরি, অতঃপর তার স্ত্রীর হাসিমুখে ‘বিদায়’ মুশফিকের রেকর্ড গড়া ইনিংসে লিড পেল বাংলাদেশ ভারতের গম রফতানি বন্ধের সিদ্ধান্ত বাংলাদেশের জন্য প্রযোজ্য নয় : বাণিজ্যমন্ত্রী আলেমদের বিরুদ্ধে গণকমিশনের তালিকার ব্যাপারে কী পদক্ষেপ নিচ্ছে দুদক

সকল