২৮ জানুয়ারি ২০২২, ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৪ জমাদিউস সানি ১৪৪৩
`
মাদারীপুরে ৭ জন গুলিবিদ্ধসহ আহত ২৫

নওগাঁয় নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় আহত যুবকের মৃত্যু

-

নওগাঁর বদলগাছীতে ইউনিয়ন নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতায় বিধান ওড়াও (২৫) নামে আহত এক যুবক চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন। অন্য দিকে মাদারীপুর সদরে সহিংসতায় সাতজন গুলিবিদ্ধসহ অন্তত ২৫ জন আহত হয়েছেন।
মান্দা (নওগাঁ) সংবাদদাতা জানান, নওগাঁর বদলগাছীতে নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতায় আহত যুবক বিধান ওড়াও (২৫) চিকিৎসাধীন অবস্থায় গতকাল মারা গেছেন। এ ঘটনায় শাকিল হোসেন নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ।
থানা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বিলাশবাড়ী ইউনিয়নের ৫ ওয়ার্ডের বিজয়ী ও পরাজিত দুই মেম্বার প্রার্থীর সমর্থকদের দুই পক্ষের মধ্যে সোমবার দুপুরে সংঘর্ষ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় প্রায় ২০ জন আহত হয়। তাদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করার পর নিহত যুবকের অবস্থা আশঙ্কাজনক হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য বগুড়া মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিজয়ী মেম্বার শাহিন আলমের সমর্থক বিধান ওড়াও গতকাল বেলা ৩টার দিকে মারা যান। তিনি চকাবীর আধিবাসী পাড়ার গোপাল চন্দ্র ওড়াওয়ের ছেলে। আটক শাকিল হোসেন উপজেলার নাজিরপুর গ্রামের মোসলেম উদ্দিনের ছেলে।
বদলগাছী থানার ওসি আতিকুল ইসলাম বলেন, নির্বাচনী-পরবর্তী সহিংসতায় দুই পক্ষের মেম্বার (বিজয়ী ও পরাজিত) বাদি হয়ে থানায় পৃথক দু’টি মামলা করেছে। এ ঘটনায় শাকিল হোসেন নামে এক যুবককে মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে আটক করা হয়েছে।
মাদারীপুর সংবাদদাতা জানান, মাদারীপুর সদরে ইউনিয়ন পরিষদ-ইউপি নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতায় সাতজন গুলিবিদ্ধসহ অন্তত ২৫ জন আহত হয়েছেন। সদর উপজেলার কেন্দুয়া ইউনিয়নের তালতলা গ্রামে গত সোমবার সন্ধ্যা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। গুলিবিদ্ধরা হলেন- দত্ত কেন্দুয়া গ্রামের বাবুল মজুমদার, মো: কুদ্দুস, মাসুদ, রণজিত, শাজাহান মিয়া, রফিক ও মো: কায়সার।
পুলিশ জানায়, ২৮ নভেম্বর কেন্দুয়া ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে শাহ মো: রায়হান কবীর জয়ী হন। পরাজয়ের পর সোমবার সন্ধ্যায় প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী সাগর মিয়ার সমর্থকরা রায়হানের সমর্থকদের বাড়িতে হামলা, লুটপাট চালায় ও আগুন দেয়। এরপর দুই পক্ষের লোকজনের সংঘর্ষ শুরু হলে সাতজন গুলিবিদ্ধসহ ২৫ জন আহত হন। আহতদের মাদারীপুর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখান থেকে গুলিবিদ্ধদের ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
সদর থানার ওসি কামরুল ইসলাম মিঞা বলেন, ‘সংঘর্ষের ঘটনায় এখনো কেউ কোনো অভিযোগ করেনি। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এখন পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে।’ এর আগে সোমবার বিকেলে মস্তফাপুর ইউনিয়নের চাপাতলী গ্রামের করিম বাজার এলাকায় সংরক্ষিত নারী সদস্যপদে জয়ী হাসিয়া বেগমের এক সমর্থকের বাড়িতে পরাজিত সুফিয়া বেগমের লোকজনের হামলার অভিযোগ ওঠে। হাসিয়ার সমর্থক আনোয়ার মাতবরের
অভিযোগ, সুফিয়ার সমর্থকরা তার বাড়িঘর ভাঙচুর করে টাকা ও স্বর্ণালঙ্কার লুট করে নিয়ে গেছেন। হামলায় আহত হয়েছেন তার স্ত্রীসহ পরিবারের পাঁচ সদস্য।
মাদারীপুর জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) গোলাম মোস্তফা রাসেল বলেন, ‘নির্বাচন-পরবর্তী সহিংসতার বিরুদ্ধে আমরা কঠোর অবস্থান নিয়েছি। কোথাও সংঘর্ষের খবর পেলে দ্রুত সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়। কোনোভাবেই কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।’

 


আরো সংবাদ


premium cement
আইসিবি এএমসিএল পেনশন হোল্ডারসথ ইউনিট ফান্ডের ১০ টাকা লভ্যাংশ ঘোষণা জুমার নামাজ শেষে মসজিদে দোয়ার আহ্বান হেফাজতের সাংবাদিক এমদাদুল হক খানের ওপর সন্ত্রাসী হামলা ইউক্রেন নিয়ে অবস্থান ব্যাখ্যা করল রাশিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র দুবাইয়ে খেলবেন জোকোভিচ জাতীয় উশুতে এসএ গেমস স্কোয়াড বাছাই ইরাককে হারিয়ে বিশ্বকাপের চূড়ান্ত পর্বে খেলার সুযোগ পেল ইরান পোশাক শিল্পে নারী শ্রমিকদের হার কমে যাওয়ার কারণ কী? কোটি ডলার ব্যয়ের উৎস বিএনপিকে ব্যাখ্যা করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী বিটকয়েন : ক্রিপ্টোকারেন্সি তৈরিতে যেভাবে খনি হয়ে উঠেছে কাজাখস্তান দেশের অধস্তন আদালত তদারকিতে ৮ বিচারপতির মনিটরিং কমিটি

সকল