২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২১
`

রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থার মামলায় উন্নয়ন প্রকল্পে স্থবিরতা

আড়াই বছরেও অগ্রগতি নেই বাড়ছে খরচ
-

রাষ্ট্রাত্ত প্রতিষ্ঠানের মামলার কারণে রাষ্ট্রের উন্নয়ন প্রকল্পই স্তব্ধ ও স্থবির হয়ে আছে। তিন বছরে প্রকল্প সমাপ্ত হওয়ার কথা থাকলেও আড়াই বছরে প্রকল্পের অগ্রগতি নেই। নতুন করে ভূমি অধিগ্রহণের মাধ্যমে প্রকল্প শুরু করতে এখন খরচ ও ব্যয় বাড়ছে। ফলে আড়াই বছর নষ্ট হয়েছে। পঞ্চগড় ও চাঁপাইনবাবগঞ্জের মহানন্দায় দুটি পর্যটনকেন্দ্র স্থাপন প্রকল্পের অর্থনীতিবিদরা বলছেন, ভূমি অধিগ্রহণ সংশ্লিষ্ট প্রকল্পগুলোর ক্ষেত্রে আগে ভূমি অধিগ্রহণের বিষয়টি সম্পন্ন করেই মূল প্রকল্পের কার্যক্রম হাতে নেয়া উচিত। তা না করা হলে ভূমি অধিগ্রহণ জটিলতার কারণে প্রকল্পই শুরু করা যায় না।
বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন অধিদফতর সূত্রের তথ্যানুযায়ী, ২২ কোটি ৪৩ লাখ ৭২ হাজার টাকা ব্যয়ে পঞ্চপড়ে পর্যটনকেন্দ্র স্থাপনের প্রকল্পটি ২০১৮ সালের নভেম্বরে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান অনুমোদন করেন। প্রকল্পটি ২০২১ সালের জুনে সমাপ্ত হওয়ার কথা। ২০১৮ সালে অনুমোদিত হলেও জমিসংক্রান্ত জটিলতার কারণে ২০২১ সালের জানুয়ারি পর্যন্ত প্রকল্পের ভৌত অবকাঠামোর কাজ শুরুই করতে পারেনি বাস্তবায়নকারী সংস্থা। অনুমোদিত প্রকল্প প্রস্তাবনায় জমিটি বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের নিজস্ব জমি হিসেবে দেখানো হয়। কিন্তু ডিপিপি অনুমোদনের পর পর্যটন অবকাঠামো নির্মাণের পদক্ষেপ নিলে সড়ক ও জনপথ অধিদফতরের (সওজ) সাথে জটিলতা দেখা দেয়। মামলা হয় জমির মালিকানা নিয়ে। এতে বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন হেরে যায়। জমির মালিকানা সওজর বহাল থাকে। ফলে প্রকল্পের কাজ আর এগুতে পারেনি। নতুন করে জমি খুঁজতে শুরু করে বাপক। আগে নিজস্ব জমি দেখানোয় জমি অধিগ্রহণ খাতে কোনো অর্থ বরাদ্দ ছিল না। মেয়াদ দেড় বছর অতিক্রান্ত হওয়ার পর জমি অধিগ্রহণ খাতে অর্থ বরাদ্দসহ প্রকল্পটি সংশোধনের উদ্যোগ নেয় ২০২০ সালের ২৯ জানুয়ারি।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, প্রশাসনিক মন্ত্রণালয়ের নির্দেশক্রমে নতুন করে জমির বন্দোবস্ত বা অধিগ্রহণের প্রক্রিয়া শুরু করে বাপক। তারা ব্যক্তিমালিকানাধীন এক একর জমি নির্বাচন করে। জমিটি পঞ্চগড়-বাংলাবান্ধা মহাসড়কের বাম পাশে ডাঙ্গা শ্রেণীর জমি। তবে জমির বিপরীতে পণ্যবাহী ট্রাক মাপার ওজন স্কেল এবং পল্লী বিদ্যুতের জোনাল অফিস। শহরের উপকণ্ঠে খাস জমি না পওয়ায় ব্যক্তি মালিকানাধীন জমি নির্বাচন করতে হয়েছে। এই জমির জন্য তিন গুণ দাম ধরে ব্যয় বরাদ্দের প্রস্তাব করা হয়েছে প্রায় ৫ কোটি ৭০ লাখ টাকা। এখন নতুন করে ড্রইং, ডিজাইন প্রণয়ন করা হয়েছে বলে বাপক জানিয়েছে। ফলে সার্বিকভাবে প্রকল্পেই ১৭ কোটি ৩০ লাখ টাকা ব্যয় বৃদ্ধি পেয়ে হচ্ছে ৩৯ কোটি ৭২ লাখ ৭৭ হাজার টাকা। আর বাস্তবায়ন মেয়াদ দেড় বছর বাড়ানো হয়েছে। এই ব্যয় বৃদ্ধি প্রশাসনিক মন্ত্রণালয় ১৫ শতাংশের মধ্যে সীমিত রাখার জন্য নির্দেশ দিয়েছে।
অন্য দিকে চাঁপাইনবাবগঞ্জের মহানন্দায় শেখ হাসিনা সেতু সংলগ্ন এলাকায় পর্যটনকেন্দ্র স্থাপনের জন্য ৪০ কোটি ৩৮ লাখ ৩৭ হাজার টাকা ব্যয়ে প্রকল্পটি অনুমোদন দেয়া হয়। তিন বছর মেয়াদে প্রকল্পটি ২০২১ সালের জুনে শেষ হওয়ার কথা ছিল। ডিপোজিট ওয়ার্কের আওতায় গণপূর্ত অধিদফতর কর্তৃক বাস্তবায়নের দায়িত্ব দেয়া হয়। প্রকল্পের অধীনে ৪৪.৫১ একর জমি ভূমি মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনক্রমে বাপক-এর অনুকূলে বন্দোবস্ত করা হয়। চার পাশের পিলার স্থাপন, সীমানা প্রাচীর নির্মাণ কাজের দরপত্র আহ্বান করা হয়। এখানেও এসে বাদ সাধে নদী রক্ষা কমিশন। সাথে রয়েছে জনগণ। মামলায় দরপত্র স্থগিত হয়। দুই বছর তিন মাস পর ভৌত কাজ আবার শুরু করা হয়। তবে গত ডিসেম্বরে টেন্ডার কার্যক্রম পুনরায় শুরু করার জন্য গণপূর্ত অধিদফতরকে অনুরোধ করে বাপক।
এ ব্যাপারে বিশ্বব্যাংকের সাবেক মুখ্য অর্থনীতিবিদ ড. জাহিদ হোসেন বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়ন প্রকল্পগুলোর বেশির ভাগই জমি অধিগ্রহণ জটিলতার কারণে বিলম্বিত ও সময়ক্ষেপণ হয়। আর এই বিলম্বের কারণে প্রকল্পের ব্যয়ও বৃদ্ধি পায়। তিনি বলেন, মন্ত্রণালয়গুলোর উচিত যেসব প্রকল্পের সাথে জমি অধিগ্রহণের সংশ্লিষ্টতা আছে আগে তা সম্পন্ন করা। তারপর মূল প্রকল্পের কাজে হাত দেয়া। তাহলেই প্রকল্প যথাসময়ে শুরু ও সম্পন্ন করা সম্ভব হবে। এ ছাড়া সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও সংস্থার মধ্যে সমন্বয়হীনতাও অন্যতম একটা কারণ প্রকল্প বিলম্বিত হওয়ার।



আরো সংবাদ


কাতার কাপের শিরোপা জিতলো আল সাদ আশুলিয়ায় ৫২ কেজি গাঁজাসহ দুই মাদক কারবারি আটক লিবীয় উপকূল থেকে দেড় শ’র বেশি অবৈধ অভিবাসী উদ্ধার এলডিসি থেকে উত্তরণের চূড়ান্ত সুপারিশ পেলো বাংলাদেশ দুই রাষ্ট্র এক জাতি : নাগরনো-কারাবাখ বিজয়ের স্মরণে স্মৃতিসৌধ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার ব্যাপারে জানা যাবে বিকেলে হাইতিতে কারাগারে সহিংসতায় ২৫ জনের মৃত্যু চকরিয়ায় ১২ ঘণ্টার ২ সড়ক দুর্ঘটনা : ৪ জনের মৃত্যু, আহত ১০ নেইমারের সাথে নতুন চুক্তি নিয়ে আলোচনায় পিএসজি এরদোগানের ২০২০ গ্লোবাল মুসলিম পার্সোনালিটি অ্যাওয়ার্ড অর্জন বিদেশী নেতার সাথে দ্বিতীয় ‘ভার্চুয়াল’ সম্মেলন করতে যাচ্ছেন বাইডেন : হোয়াইট হাউস

সকল