২৮ জানুয়ারি ২০২১
`

এএসআই ও ছাত্রসহ ৮ জন নিহত

-

বিভিন্ন স্থানে সড়ক দুর্ঘটনায় আটজন নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে পুলিশের এএসআই, কলেজছাত্র এবং এক বিএনপি নেতা রয়েছেন।
দেবীগঞ্জ (পঞ্চগড়) সংবাদদাতা জানান, পঞ্চগড়ের দেবীগঞ্জ উপজেলায় ট্রাকের ধাক্কায় দুলাল চন্দ্র রায় (৪২) নামে মোটরসাইকেল আরোহী পুলিশের এএসআই নিহত হয়েছেন। গত মঙ্গলবার রাত ১১টায় জেলার দেবীগঞ্জ উপজেলার লক্ষ্মীর হাট এলাকায় এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহত মোটরসাইকেল আরোহী দুলাল চন্দ্র রায় দেবীগঞ্জ উপজেলার টেপ্রীগঞ্জ ইউনিয়নের বলরামপুর এলাকার হলেশ্বর চন্দ্র রায়ের ছেলে। তিনি ঠাকুরগাঁও সদর থানার এএসআই হিসেবে কর্মরত ছিলেন। পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার রাতে ঠাকুরগাঁও থেকে মোটরসাইকেলযোগে দেবীগঞ্জে যাওয়ার সময় লক্ষ্মীরহাট এলাকায় একটি দ্রুতগামী ট্রাক মোটরসাইকেলকে ধাক্কা দিলে ঘটনাস্থলে মোটরসাইকেল আরোহী দুলাল চন্দ্র রায় মারা যান। দেবীগঞ্জ থানার ওসি মো: রবিউল হাসান সরকার ট্রাকের ধাক্কায় ওই মোটরসাইকেল আরোহী পুলিশের এএসআই নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ট্রাকটি জব্দ করা হলে চালক পালিয়ে যায়।
মিরসরাই (চট্টগ্রাম) সংবাদদাতা জানান, চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে কাভার্ডভ্যান চাপায় এক মোটরসাইকেল আরোহী নিহত হয়েছেন। গতকাল সকালে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মিরসরাই পৌর সদরে এই দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনায় নিহত ব্যক্তির নাম মো: নুরুল আলম (৫০)। তিনি উপজেলার ৫ নম্বর ওচমানপুর ইউনিয়নের পাতাকোট গ্রামের আহমেদুর রহমানের ছেলে।
জানা গেছে, নুরুল আলম তার বেয়াই নেয়ামত উল্লাহর সাথে মোটরসাইকেলযোগে ওচমানপুর থেকে সীতাকুন্ড যাচ্ছিলেন। মিরসরাই সদর অতিক্রম করার সময় একটি গাড়ি চাপ দিলে মোটরসাইকেলে থাকা নুরুল আলম ছিটকে সড়কে পড়ে যান। এ সময় পেছন দিক থেকে আসা দ্রুতগামী একটি কাভার্ডভ্যান চাপা দিলে ঘটনাস্থলে তিনি মারা যান।
ধামইরহাট (নওগাঁ) সংবাদদাতা জানান, নওগাঁর ধামইরহাটে মোটরসাইকেল ও ভটভটির মুখোমুখি সংঘর্ষে এক যুবক নিহত হয়েছেন। ধামইরহাট থানা পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, গতকাল বেলা ১টার দিকে ধামইরহাট-নওগাঁ আঞ্চলিক মহাসড়কের বিহারীনগর ব্রিজের দক্ষিণে রাস্তার বাঁক মোড়ে এ সংঘর্ষ বাধে। মোটরসাইকেল আরোহী আশরাফ সিদ্দিকী হিলু (২৫) আমাইতাড়া থেকে নিজ বাড়িতে ফেরার পথে ওই স্থানে পৌঁছামাত্র বিপরীত দিক থেকে বেপরোয়া গতিতে ছুটে আসা মাছবোঝাই একটি ভটভটির সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ বাধে। এতে ঘটনাস্থলে মোটরসাইকেল আরোহী আশরাফ মারা যান। নিহত আশরাফ উপজেলার আড়ানগর ইউনিয়নের অন্তর্গত সিঙ্গারুল গ্রামের মৃত ফজলুর রহমানের ছেলে। সংঘর্ষের পর ভটভটি রেখে চালক পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে ধামইরহাট থানার অফিসার ইনচার্জ মো: আব্দুল মমিন বলেন, লাশ দাফনের জন্য পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।
ঝিকরগাছা (যশোর) সংবাদদাতা জানান, যশোরের ঝিকরগাছায় মর্মান্তিক মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় যশোর সদর উপজেলার রামনগর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা বিএনপির সদস্য রেজাউল হাসানের (৫৫) মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে। এ সময় হাবিল নামে এক ব্যক্তি মারাত্মকভাবে আহত হয়েছেন। তিনি বর্তমানে যশোর-২৫০ শয্যা হসপিটালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে, গতকাল বেলা ১১টায় ঝিকরগাছার যশোর-বেনাপোল মহাসড়কের কীর্তিপুর মেঠোপাড়া জামে মসজিদের সামনে। নিহত রেজাউল হাসান ঝিকরগাছা উপজেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি শহীদ নাজমুল ইসলামের বড় শ্যালক ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান কেন্দ্রীয় বিএনপির সদস্য সাবিরা নাজমুল মুন্নির বড় ভাই। বিএনপি এই নেতার মৃত্যুর খবর শুনে যশোর জেলা ও ঝিকরগাছা উপজেলা বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ সেখানে ছুটে আসেন। বেলা আড়াইটায় কীর্তিপুর জমিরশাহ্ ঈদগাহ মাঠে মরহুমের প্রথম নামাজে জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজা পরিচালনা করেন মাওলানা লুৎফর রহমান মাদানী। এ সময় যশোর সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি নুরুন্নবী, সাধারণ সম্পাদক কাজী আজম, ঝিকরগাছা উপজেলা বিএনপির আহবায়ক মোর্তজা এলাহী টিপু, যুগ্ম-আহবায়ক খোরশেদ আলম, সরদার শহিদুল ইসলাম, মুরাদুন্নবী মুরাদ, পৌর বিএনপির আহবায়ক হারুণ অর রশীদ, যুগ্ম-আহবায়ক নজরুল ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।
ভাণ্ডারিয়া (পিরোজপুর) সংবাদদাতা জানান, পিরোজপুরের ভাণ্ডারিয়ায় টেম্পো উল্টে মো: হাসান হাওলাদার (১৭) নামের এক কলেজছাত্রের মৃত্যু হয়েছে। গতকাল এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। নিহত ওই কলেজছাত্র পাশর্^বর্তী ঝালকাঠি জেলার কাঁঠালিয়া উপজেলার উত্তর চেঁচরি গ্রামের জুয়েল আহম্মেদ হাওলাদারের ছেলে। তিনি ঢাকার একটি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্র।
স্থানীয় ও নিহতের পরিবার সূত্র জানায়, ওই কলেজছাত্র গতকাল সকাল সাড়ে ১০টার দিকে তার মায়ের সাথে ভাণ্ডারিয়া উপজেলার নানাবাড়ি থেকে নিজ বাড়ির দিকে কৈখালী যাচ্ছিলেন। এ সময় বানাই সড়কের কানুয়া সরকারি পুকুরের কাছে পৌঁছালে ট্রলার টেম্পো হঠাৎ উল্টে পড়ে। এতে ওই কলেজছাত্র নিহত হন। ওই ছাত্র রক্তাক্ত অবস্থায় পড়ে থাকার খবর পেয়ে স্থানীয় ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া সংবাদদাতা জানান, ঢাকা-সিলেট মহাসড়কে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিজয়নগরে যাত্রীবাহী বাস ও নছিমনের মুখোমুখি সংঘর্ষে তিনজন নিহত ও পাঁচজন আহত হয়েছেন। গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় উপজেলার রামপুরা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। বিজয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো: আতিকুর রহমান জানান, মাজার জিয়ারতের জন্য ঢাকা থেকে সিলেটের উদ্দেশে আসা একটি বাসের সাথে বিপুরীত দিক থেকে আসা একটি নসিমনের সাথে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে নসিমনে থাকা আক্তার হোসেন, রমজান ও শহীদুল্লাহ ঘটনাস্থলেই মারা যান। নিহতদের সবার বাড়ি বিজয়নগর চর ইসলামপুর গ্রামে। এ ঘটনায় আরো পাঁচজন আহত হয়েছেন। নিহতদের লাশ উদ্ধার করে খাঁটিহাতা হাইওয়ে থানায় পাঠানো হয়েছে। এ দিকে দুর্ঘটনার কারণে মহাসড়কে প্রায় আধা ঘণ্টা যানবাহন বন্ধ ছিল।

 



আরো সংবাদ


চসিক নির্বাচন : সংঘর্ষে ছেলের নিহতের খবর শুনে মারা গেলেন মা (২৬৫৪৪)এরদোগানের পরাজয়ের জন্য নিজের জীবন দিতে চান এই নেতা (২৪৪৬০)পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে জন কেরির ফোন (১৩৭১৫)নির্বাচন নিয়ে বিরোধ : ভাইকে গলা কেটে হত্যা (১১২৪০)ফিলিস্তিনের ব্যাপারে যে পদক্ষেপ নিচ্ছেন যুক্তরাষ্ট্রের নতুন প্রেসিডেন্ট বাইডেন (১১২৩০)বিবাহবিচ্ছেদ সবচেয়ে বেশি সৌদি আরবে, কী বলছেন বিশেষজ্ঞরা? (১১০৭৯)শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার সময় নিয়ে যা বললেন প্রতিমন্ত্রী (১০৭১৩)দেশে প্রথম করোনা টিকা নিচ্ছেন রুনু, জানালেন কারণ (৮৩৭৩)চট্টগ্রামের নতুন মেয়র রেজাউল করিম চৌধুরী (৭৫৯৪)ইরান ও আমেরিকার প্রতি যে আহ্বান ফ্রান্সের (৭৩২১)