২৭ অক্টোবর ২০২০

বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে মাহবুবে আলমের দাফন সম্পন্ন

অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের নামাজে জানাজা; ইনসেটে মাহবুবে আলম : নয়া দিগন্ত -

বাংলাদেশের অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমকে মিরপুরের বুদ্ধিজীবী কবরস্থানে দাফন করা হয়েছে। গতকাল সোমবার বেলা সোয়া ১টার দিকে তাকে দাফন করা হয়। এর আগে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি প্রাঙ্গণে বেলা ১১টা ৩৫ মিনিটে তার নামাজ জানাজা অনুষ্ঠিত হয়।
সুপ্রিম কোর্ট জামে মসজিদের পেশ ইমাম আবু সালেহ মো: সলিম উল্লাহ নামাজে জানাজায় ইমামতি করেন। সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে সকাল ১০টা ৫০ মিনিটে তার লাশ নেয়া হয়। নামাজে জানাজায় অংশ নেনÑ প্রধান বিচারপতি, সুপ্রিম কোর্টের উভয় বিভাগের বিচারপতি, মন্ত্রিপরিষদের সদস্য ও আইনজীবীরা।
নামাজে জানাজা শেষে তার কফিনে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়। এরপর প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন, আইনমন্ত্রী আনিসুল হক, প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম, রেলমন্ত্রী মো: নূরুল ইসলাম সুজন, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র শেখ ফজলে নূর তাপস ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। এ ছাড়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি, পুলিশের আইজি, অ্যাটর্নি জেনারেলের কার্যালয়, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি, বঙ্গবন্ধু আওয়ামী আইনজীবী পরিষদ, ল’ রিপোর্টার্স ফোরামসহ বিভিন্ন সংগঠন ও ব্যক্তি ফুল দিয়ে শ্রদ্ধায় জানান।
নামাজে জানাজা শেষে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি এ এম আমিন উদ্দিন বলেন, মাহবুবে আলম নিজের সর্বোচ্চটা দিয়ে গেছেন আইন পেশা ও আইনজীবীদের প্রতি দায়বদ্ধতা রক্ষার জন্য। সেই দায়বদ্ধতা রক্ষা করতে গিয়ে যদি কোনো ভুল করে থাকেন, তবে আপনারা তাকে ক্ষমা করে দেবেন।
অ্যাটর্নি জেনারেলের সম্মানে বসেনি সুপ্রিম কোর্ট : অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের সম্মানে গতকাল সোমবার সুপ্রিম কোর্টের উভয় বিভাগের বিচারিক কার্যক্রম স্থগিত রাখা হয়। সোমবার আপিল বিভাগের ভার্চুয়াল বেঞ্চে প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বলেন, আমরা ব্যথিত। অ্যাটর্নি জেনারেলের সম্মানে আজ সুপ্রিম কোর্ট বসছে না। এ সময় ভার্চুয়ালি যুক্ত ছিলেন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল মুরাদ রেজা, সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সম্পাদক ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজলসহ অন্যান্য আইনজীবী।
জাতীয় আইনজীবী সমিতির শোক : বাংলাদেশ জাতীয় আইনজীবী সমিতির সভাপতি অ্যাডভোকেট শাহ মো: খসরুজ্জামান এবং সেক্রেটারি জেনারেল অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ সগীর আনোয়ার বিশিষ্ট আইনবিদ অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। গতকাল এক বিবৃতিতে তারা বলেন, আশির দশকে দেশে গণতন্ত্র ও আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় আইনজীবীদের আন্দোলনে তিনি যে অগ্রণী ভূমিকা রেখেছিলেন, ইতিহাসে তা স্মরণীয় হয়ে থাকবে।
এ ছাড়া অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলমের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছে জাহাঙ্গীরনগর ইউনিভার্সিটি ল’ইয়ারস অ্যাসোসিয়েশন (জুলা)। সংগঠনটির সভাপতি অ্যাডভোকেট ফজলুল হক মাতুব্বর এবং সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার শিহাব উদ্দিন খান এক শোকবার্তায় তার রূহের মাগফিরাত কামনা করেন।
করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত রোববার সন্ধ্যা ৭টা ২৫ মিনিটে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে মারা যান অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। গত ৪ সেপ্টেম্বর জ্বর নিয়ে ঢাকা সিএমএইচে ভর্তি হয়েছিলেন মাহবুবে আলম। মাহবুবে আলম ২০০৯ সালে অ্যাটর্নি জেনারেলের পদে নিয়োগ পান। তিনি এক মেয়াদে সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি এবং এক মেয়াদে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছিলেন। মাহবুবে আলমের জন্ম ১৯৪৯ সালের ১৭ ফেব্রুয়ারি মুন্সীগঞ্জের লৌহজং উপজেলার মৌছামান্দ্রা গ্রামে।


আরো সংবাদ