০৭ জুলাই ২০২০

ছোট গণপরিবহন দাপিয়ে বেড়াচ্ছে রাজধানী

-

বাস-লেগুনা বন্ধ থাকলেও বন্ধ নেই অন্য গণপরিবহন। বাস-লেগুনা বন্ধ থাকায় ছোট ওই গণপরিবহনগুলো বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। অতিরিক্ত ভাড়া নিয়ে প্রধান প্রধান সড়কও দাপিয়ে বেড়াচ্ছে সিএনজি অটোরিকশা, ব্যাটারিচালিত ইজিবাইক, ভাড়ায় চালিত ট্যাক্সিক্যাবসহ উবার-পাঠাও। ঈদের সময় যত ঘনিয়ে আসছে প্রশাসনের চোখের সামনেই রোগী বহনকারী অ্যাম্বুলেন্স এবং নিত্যপণ্য বহনকারী পণ্যবাহী ট্রাক-কাভার্ডভ্যানের সাথে পাল্লা দিয়ে রাস্তায় নামছে প্রাইভেট কার।
অভিযোগ উঠেছে, এসব যানবাহন টাকার বিনিময়ে চলছে। আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর কিছু অসাধু সদস্য এগুলো চলার সুযোগ করে দিচ্ছেন। যে কারণে করোনাভাইরাসের সংক্রমণরোধে সরকারের নির্দেশে রাজধানীসহ সারা দেশে গণপরিবহন (বাস-লেগুনা) বন্ধ করে দিয়েছেন পরিবহন মালিক-শ্রমিকরা। দিন যত গড়াচ্ছে, করোনায় মৃত্যু ও আক্রান্তের সংখ্যা ততই বাড়ছে। গণপরিবহন বন্ধ থাকায় দীর্ঘ ছুটির কারণে পরিবহন শ্রমিকরাও দিনের পর দিন নিঃস্ব হয়ে পড়ছে। বাস-লেগুনার চাকা না ঘোরায় তাদের রুটিরুজির পথও বন্ধ হয়ে গেছে। বাস-লেগুনা বন্ধ থাকায় চিহ্নিত কিছু সিএনজি অটোরিকশা, ব্যাটারিচালিত ইজিবাইক, ভাড়ায় চালিত ট্যাক্সিক্যাবসহ উবার-পাঠাও রাস্তায় নামিয়েছে একটি সঙ্ঘবদ্ধচক্র।
রাজধানীর মানিকনগর স্কুলের সামনে থেকে ইত্তেফাক মোড় পর্যন্ত সিএনজি অটোরিকশা চলছে। এই গাড়িগুলো পাঁচজন করে যাত্রী বহন করছে। চালকসহ গাড়িতে থাকছে মোট ছয়জন। এই যাত্রীদের একজনের সাথে আরেকজনের শরীর লেপ্টে সিএনজিকে উঠতে হয়। পথে পথে থামিয়ে যাত্রী ওঠানামা করা হয়।
পুরান ঢাকার লালবাগের নবাবগঞ্জ সেকশন টু বাবুবাজার ব্রিজ রুটে চলছে ইজিবাইকসহ নানা যানবাহন। প্রতি ট্রিপেই ছয় থেকে আটজন যাত্রী তুলে নির্দিষ্ট গন্তব্যে চলছে এসব যানবাহন। স্থানীয় চাঁদাবাজ চক্রের সক্রিয় সদস্য বিপ্লব, সিরাজ তালুকদার, বাবাখোর ইমন, সমিতি জাবেদসহ আরো অনেকে তাদের কাছ থেকে নিয়মিত চাঁদা নিচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন একাধিক চালক। চক্রটি থানা ও ফাঁড়ি পুলিশের কথা বলে প্রতিটি ইজিবাইক থেকে গড়ে সাড়ে ৩০০ টাকা হারে চাঁদা তুলছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। কয়েকজন চালক জানান, রাজধানীর ছয়টি রুটের কেন্দ্রস্থল হলো পুরান ঢাকার লালবাগের নবাবগঞ্জ সেকশন বেড়িবাঁধ। এখান থেকে গুলিস্তান গোলাপ শাহ মাজার, নীলক্ষেত-নিউ মার্কেট, বাবুবাজার ব্রিজ, মোহাম্মদপুর বসিলা ক্রসিং ও কামরাঙ্গীরচরের বিভিন্ন এলাকা, কিল্লার মোড় থেকে গুলিস্তানসহ মোট ছয়টি রুটে সব মিলিয়ে প্রতিদিন প্রায় তিন হাজার ইজিবাইক চলাচল করছে। এসব ইজিবাইক থেকে থানা ও ফাঁড়ি পুলিশ এবং ট্রাফিক পুলিশের নাম করে প্রতি ইজিবাইক থেকে সাড়ে ৩০০ টাকা করে নিয়মিত চাঁদা তোলেন চাঁদাবাজ বিপ্লব চক্রের নিয়োজিত লাইনম্যান পারভেজ। যারা টাকা না দেয় সেই গাড়িগুলো পুলিশ ধরে নিয়ে যায় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোয়ারীঘাট ও বাবুবাজার এলাকায় প্রতিটি ইজিবাইক থেকে দু’টি পুলিশ ফাঁড়ি এবং থানা পুলিশ এমনকি বিট পুলিশের নামে ১০ থেকে ৫০ টাকা হারে চাঁদা তুলছেন বাবা সোহেল। সেকশন বেড়িবাঁধ স্ট্যান্ড থেকে কামরাঙ্গীরচরের আলীনগর রুটে চাঁদা তুলছেন হাসু, সেকশন বেড়িবাঁধ টু মোহাম্মদপুর রুটে চাঁদা তুলছেন ফায়সাল ও টুটুল। এ দিকে নবাবগঞ্জ সেকশন পুলিশ ফাঁড়ির বটতলা থেকে গুলিস্তান রুটে চলাচলকারী প্রতিটি ইজিবাইক থেকে শাহীন নামে এক যুবক নিয়মিত সাড়ে ৩০০ টাকা হারে চাঁদা তুলছেন বলে অভিযোগ করেছেন চালকরা। অটোচালকরা আরো জানান, গত ১৪ মে লালবাগের নবাবগঞ্জ সেকশন পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জের নির্দেশে টহল পুলিশ বেড়িবাঁধ থেকে অন্তত ২০টি ইজিবাইক আটক করে ফাঁড়িতে নিয়ে যায়। এরপর সে দিন রাতে ইনচার্জ এসআই মো: হান্নান হোসেন তালুকদার চালক ও মালিকদের ফাঁড়িতে ডেকে নিয়ে আর্থিক দেনদরবার করে ছেড়ে দিয়েছেন।
রাজধানীর অন্যান্য এলাকায়ও পাল্লা দিয়ে চলছে ইজিবাইক, সিএনজি অটোরিকশা এবং ব্যাটারিচালিত রিকশা। রাতে ব্যাটারিচালিত ভ্যানও চলছে যাত্রী নিয়ে। রামপুরা, বাড্ডা, মেরুল বাড্ডা, দক্ষিণখান, উত্তরখান, তুরাগ, দিয়াবাড়ি, মিরপুর, পল্লবী, আদাবর, যাত্রাবাড়ী, পোস্তগোলা, নয়াবাজারসহ বিভিন্ন এলাকায় এসব গণপরিবহন চলছে।


আরো সংবাদ

সাতক্ষীরার কালিগঞ্জে করোনা উপসর্গ নিয়ে মায়ের পর ছেলের মৃত্যু তালেবান সহিংসতা আফগান শান্তি প্রক্রিয়ায় ‘মারাত্মক হুমকি’ : আশরাফ গনি খুলনার সেই ২ শ্রমিক নেতাকে গ্রেফতার দেখিয়েছে পুলিশ বাংলাদেশে করোনায় আরো ৫৫ জনের মৃত্যু লকডাউনের চতুর্থ দিনে যেমন চলছে ওয়ারী আমেরিকায় অনলাইনে ক্লাস করা বিদেশি ছাত্র-ছাত্রীদের ভিসা প্রত্যাহার করা হবে নাসিরনগরে বিএনপির উদ্যোগে কর্মহীন ও দরিদ্রদের মাঝে নগদ অর্থ প্রদান জামালপুরে নতুন ৮ জনের করোনা শনাক্ত ভাড়াটিয়াদের মধ্যে ঝগড়ায় একজন নিহত শৈলকুপায় করোনা উপসর্গ নিয়ে ১ জনের মৃত্যু দুর্নীতি ও লুটপাটই হচ্ছে ওবায়দুল কাদেরের কাছে পূর্ণিমার আলো : রিজভী

সকল