১১ এপ্রিল ২০২০

পুলিশ-সাংবাদিকদের নিরাপত্তা সরঞ্জাম দিতে হবে : হাইকোর্ট

-

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের আতঙ্কের মধ্যে পেশাগত দায়িত্বপালনকারী আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য ও সাংবাদিকদের নিরাপত্তা সরঞ্জাম সরবরাহ করতে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ ও নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের মালিকদের ব্যবস্থা গ্রহণ করতে বলেছেন হাইকোর্ট।
গতকাল বুধবার বিচারপতি আশরাফুল কামাল ও বিচারপতি সরদার মো: রাশেদ জাহাঙ্গীরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট ডিভিশন বেঞ্চ এ পর্যবেক্ষণ দিয়ে জনস্বার্থে করা রিট আবেদনটি নিষ্পত্তি করে দেন।
আদালত তার পর্যবেক্ষণে বলেন, সব আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর দায়িত্বরত সদস্য যারা নিজেদেরকে করোনাভাইরাস মোকাবেলায় উৎসর্গ করেছেন তাদের নিরাপত্তার লক্ষ্যে নিরাপদ পোশাক ও আনুষঙ্গিক সরঞ্জাম দ্রুততম সময়ের মধ্যে সংশ্লিষ্ট নিজ নিজ দফতরের খরচে ক্রয় করে সরবরাহ করবেন। এ ছাড়া সব ইলেকট্রনিকস ও প্রিন্ট মিডিয়ার মালিকপক্ষ নিজ নিজ খরচে তাদের সাংবাদিকদেরকে নিরাপদ পোশাক ও আনুষঙ্গিক সরঞ্জামাদি দ্রুততম সময়ের মধ্যে সরবরাহ করবেন এমনটাই প্রত্যাশা করেন আদালত। পরে আবেদনটি নিষ্পত্তি করে দেন।
করোনাভাইরাস থেকে রক্ষায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য ও সাংবাদিকদের নিরাপত্তা সরঞ্জাম সরবরাহের নির্দেশনা চেয়ে ২৩ মার্চ হাইকোর্টে জনস্বার্থে রিটটি দায়ের করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো: জে আর খান রবিন। এ ছাড়াও রিটে ডায়াগনস্টিক সুবিধার এবং কোয়ারেন্টিন ও চিকিৎসাসেবা বাড়ানোর নির্দেশনা চাওয়া হয়।
রিটে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সচিব, সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব, তথ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব, বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিলের মহাব্যবস্থাপক, বাংলাদেশ প্রেস ইনস্টিটিউটের চেয়ারম্যান, পুলিশের আইজি, আইইডিসিআর পরিচালক এবং আইসিডিডিআর,বি-সহ মোট ১১ জনকে বিবাদি করা হয়। এর আগে গত ১৯ মার্চ আইনি নোটিশ পাঠিয়েছিলেন আইনজীবী জে আর রবিন।
গতকাল বুধবার রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী মো: জে আর রবিন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল প্রতীকার চাকমা।

 


আরো সংবাদ