০৩ এপ্রিল ২০২০

সাংবাদিকদের ওবায়দুল কাদের খালেদা জিয়াকে নিয়ে একই প্রশ্ন করে বিব্রত করবেন না

আওয়ামী লীগের বিশেষ যৌথসভায় বক্তব্য রাখছেন ওবায়দুল কাদের : নয়া দিগন্ত -


বেগম খালেদা জিয়ার বিষয়ে আওয়ামী লীগের কাছে বারবার কিছু জানতে চেয়ে বিব্রত না করতে সাংবাদিকদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বাংলাদেশ আজ এগিয়ে যাচ্ছে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে। এ দেশকে এগিয়ে নিতে হবে। আমাদের অনেক কর্মসূচি আছে, অনেক কাজ আছে। দেশের কাজ, দলের কাজ। একজন খালেদা জিয়াকে নিয়ে বারবার প্রশ্নের জবাব দেবো, সে সময় আমাদের নেই। এ নিয়ে অনেক কথা হয়েছে। আদালত যেটা সিদ্ধান্ত নেয়ার নেবেন। এটি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে নেই। কাজেই একই প্রশ্ন বারবার করে বিব্রত করবেন না।
গতকাল বুধবার বঙ্গবন্ধু অ্যাভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে ঢাকা বিভাগের সব সাংগঠনিক জেলা ও মহানগরীর সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক এবং সংসদ সদস্যদের নিয়ে আয়োজিত যৌথসভায় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের এ কথা বলেন। তিনি বলেন, খালেদা জিয়ার জামিনের ব্যাপারে তার আইনজীবীরা আদালতে আবেদন করেছেন। আদালতই বিষয়টি ঠিক করবে। এটি রাজনৈতিক নয়, দুর্নীতির মামলা। দুর্নীতির মামলায় যেটা হওয়ার সেটাই হবে। আদালত যেটা সিদ্ধান্ত নেয়ার নেবেন। এটি আওয়ামী লীগের হাতে নেই, শেখ হাসিনার হাতেও নেই।
তৃণমূল থেকে দলকে শক্তিশালী করার নির্দেশনা দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, নিজের দল ভারী করার জন্য বিতর্কিত ব্যক্তিদের দলে টানবেন না। তা হলে দল শক্তিশালী হবে না, দুর্বল হয়ে যাবে। তিনি বলেন, দল মতায় আছে বলে সাংগঠনিক দুর্বলতা উপলব্ধি করতে পারছেন না। দল সাংগঠনিকভাবে দুর্বল হলে সরকার কখনই শক্তিশালী হবে না। শক্তিশালী সরকার তখনই হবে যখন আ’লীগ শক্তিশালী হবে। আমাদের সব চাহিদা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একাই পূরণ করছেন। দল যদি শক্তিশালী থাকে তা হলে যেকোনো পরিস্থিত মোকাবেলা করতে পারব। যার যার জায়গা থেকে অবস্থান নিতে পারব।
যেসব সাংগঠনিক জেলায় সম্মেলন হয়নি সেগুলোতে আগামী এপ্রিল মাস থেকে কাউন্সিল করার নির্দেশনা দিয়ে ওবায়দুল কাদের বলেন, কেউ ঘরে বসে কমিটি করবেন না। কমিটি করতে হলে অবশ্যই সম্মেলন করতে হবে। আর কোনো কমিটি ভাঙতে হলে অবশ্যই কেন্দ্রীয় কমিটির অনুমতি লাগবে। কমিটি ভাঙার মতা আপনাদের নেই। আপনারা সুপারিশ করতে পারেন। কেন্দ্র থেকে সিদ্ধান্ত হবে আপনার সুপারিশ যথাযথ কি না।
করোনাভাইরাসের কারণে দেশের অর্থনীতিতে কোনো বিরূপ প্রভাব পড়ছে কি না জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, বিশ্ব অর্থনীতি যদি কোনো ঘটনায় তিগ্রস্ত হয়, কোনো কারণে মন্দা দেখা দেয়; তার প্রভাব সারা বিশ্বেই পড়ে। করোনাভাইরাসের কারণে আমাদের অর্থনীতি তিগ্রস্ত হওয়ার মতো অবস্থা এখনো আসেনি। এটা যদি বেশি দিন থাকে তা হলে তিগ্রস্ত হওয়ার আশঙ্কা আমরা উড়িয়ে দিচ্ছি না।
পদ্মা সেতুর কাজ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, করোনাভাইরাসের প্রভাব দীর্ঘমেয়াদে হলে পদ্মা সেতুর কাজে কিছুটা প্রভাব পড়তে পারে। পদ্মা সেতুতে চীনের আড়াই শ’ কর্মী, শ্রমিক তাদের নববর্ষের ছুটিতে স্বদেশে গেছেন। তারা এখনো ফিরে আসেননি। করোনাভাইরাসের বিরূপ প্রতিক্রিয়ার পরও পদ্মা সেতুর তিনটি স্প্যান বসে গেছে। আগামীকালও একটি স্প্যান বসার কথা।
চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচন ও সংসদের চারটি আসনের উপনির্বাচন প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, এবার চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন ও চারটি আসনের উপনির্বাচনে প্রার্থী দিয়েছি। তাদেরকে বিজয়ী করার জন্য দলের সবাইকে সর্বাত্মক অংশ নিতে হবে। সবার উদ্দেশ্য থাকবে ভোটার উপস্থিতিটা যাতে বেশি হয়। অতীত অভিজ্ঞতা থেকে শিা নিতে হবে।


আরো সংবাদ

করোনা নিয়ে উদ্বিগ্ন খালেদা জিয়া, শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল প্রধানমন্ত্রীর ৩১ দফা মেনে চলুন: কাদের করোনা সামলাতে পারলে ৭.৮ শতাংশ প্রবৃদ্ধি হবে ফ্রান্সে করোনাভাইরাসে আরো ৪৭১ জনের মৃত্যু সাম্প্রদায়িক এই ট্র্যাজেডি করোনাভাইরাসের চেয়েও বড় হুমকি : আরশাদ মাদানি সাতক্ষীরায় জ্বর, সর্দি নিয়ে কলেজছাত্রের মৃত্যু করোনার থাবায় যুক্তরাষ্ট্রে এক কোটি বেকার দেশে আরো ৫ করোনা রোগী শনাক্ত, মোট আক্রান্ত ৬১ করোনায় ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে রিভারসাইড ওয়েলফেয়ার ট্রাস্টের ত্রাণ বিতরণ ৩০০ কর্মহীন পরিবারের খাদ্যের দায়িত্ব নিলেন গ্রামের সচ্ছলরা ভারতে করোনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৫৬, আক্রান্ত ছাড়ালো ২৩০০

সকল