২৪ অক্টোবর ২০২১, ৮ কার্তিক ১৪২৮, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩ হিজরি
`

মিয়ানমারে ফিরে না গেলে রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে পাঠানো হবে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

-

আজ থেকে মিয়ানমারের নাগরিক, কক্সবাজারের একাধিক শিবিরে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর রাখাইনে ফেরত যাওয়ার কথা। কিন্তু মিয়ানমার এখনো রাখাইনে অনুকূল পরিবেশ সৃষ্টি করতে না পারায় এবং এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত কক্সবাজারের শিবিরগুলোতে রোহিঙ্গাদের আচরণ পর্যবেণে দেখা যাচ্ছে, আসন্ন প্রত্যাবাসন আবারো বাতিল হতে যাচ্ছে। তবে এখনো প্রত্যাবাসন শুরু হবে বলে বাংলাদেশ বিশ্বাস করে। সারাবাংলাডটনেট।
অন্য দিকে যারা মিয়ানমারে ফিরে যেতে চাইবেন না তাদেরকে নোয়াখালীর ভাসানচরে পাঠানো হবে বলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন জানিয়েছেন। পাশাপাশি কক্সবাজারের একাধিক শিবিরে যেসব বেসরকারি বিদেশী উন্নয়ন সংস্থা প্রত্যাবাসনের বিপে প্রচারণা চালাচ্ছে, তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানিয়েছেন।
পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন বুধবার রাতে বলেন, ‘আমরা আশা করছি, বৃহস্পতিবার থেকে প্রত্যাবাসন শুরু হবে। কিন্তু পত্র-পত্রিকায় তো নেতিবাচক খবর পাচ্ছি। শুনতে পাচ্ছি যে, কক্সবাজারের শিবিরগুলোতে প্রচারণা চালানো হচ্ছে যাতে ওরা (মিয়ানমারের নাগরিক রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী) ফিরে না যায়। শিবিরগুলোতে লিফলেটও বিতরণ করা হচ্ছে। লিফলেটগুলোতে বলা হচ্ছে যে, পাঁচটি দাবি না মানলে রোহিঙ্গারা ফেরত যাবে না। কিন্তু ইস্যুটা হচ্ছে, বাংলাদেশ কেন নট বি হোস্টেজ টু দেয়ার ডিমান্ড, রোহিঙ্গাদের ডিমান্ডে বাংলাদেশকে হোস্টেজ করা যাবে না, এটা ঠিক না। আগেও এসব কারণে ওরা (রোহিঙ্গারা) যায়নি। কিন্তু না গেলে ভবিষ্যৎটা তাদের খারাপ হবে। কারণ, তাদের তো আমরা এত দিন বসিয়ে খাওয়াতে পারব না। তাদের পেছনে আমরা কোটি কোটি টাকা খরচ করছি। বিদেশীরা যে সাহায্য করছে আগামীতে এ সাহায্যও কমে যাবে।’
তিনি আরো বলেন, ‘যেসব বিদেশী সংস্থা ফিরে না যাওয়ার জন্য প্রচারণা চালাচ্ছে, আমার মনে হয় ওইসব সংস্থার দেশে তাদেরকে পাঠিয়ে দেয়া ঠিক হবে। আমি শুনেছি যে, হংকংভিত্তিক একটি গ্রুপ হিউম্যান রাইটস ওয়াচ বলেছে, এদের (রোহিঙ্গা) পাঠানো উচিত না। আমরা এখন ওই সংস্থাকে বলব যে, তবে তোমরা রোহিঙ্গাদের হংকং নিয়ে যাও। যেসব সংস্থা কক্সবাজারের শিবিরগুলোতে কাজ করছে এবং ফিরে না যাওয়ার জন্য প্ররোচনা দিচ্ছে, আমার মনে হয়, দেয় সুড বি উইড্র ফ্রম দিস প্লেস।’



আরো সংবাদ


ভারত-বাংলাদেশ সম্পর্ক অন্য যে কোনো অংশীদারদের চেয়ে গভীরতর : শ্রিংলা টস হেরে ব্যাটিংয়ে বাংলাদেশ ফেরিঘাটে ফেলে যাওয়া অসুস্থ বৃদ্ধের চিকিৎসার দায়িত্ব নিলেন ইউএনও আকাশপথে বাংলাদেশে ভ্রমণকারীদের কোয়ারেন্টিনের বিধিনিষেধ শিথিল পাকিস্তান-ভারত ক্রিকেটকে দেশের স্বার্থবিরোধী বললেন ভারতীয় যোগগুরু! অপরাধী যে দলেরই হোক তার বিচার হবে : আইনমন্ত্রী লিবিয়ার তারহুনাতে পাওয়া গেল নতুন গণকবর ১৩৫ দিন যাবত মেয়ের মুখ দেখেননি জয়াবর্ধনে আরিয়ানের বিরুদ্ধে স্বাক্ষ্য দিতে সাক্ষীকে টাকা দেয়ার অভিযোগ দেশের ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্তকারীদের সম্পর্কে সচেতন হওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর সংঘর্ষের মধ্যেই চলছে ইসলামাবাদ অভিমুখে টিএলপির পদযাত্রা

সকল

বাংলাদেশ দখলের হুমকি দিয়ে লাভ কার (৫৬২৪৫)অভাবের তাড়নায় ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে আত্মহত্যা করলেন বিজিবি সদস্য! (১৭৫২২)ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেন আন্তর্জাতিক তায়কোয়ান্দোর রেফারি ড. পেটেল (১৫৭৭০)গেইলের প্রয়োজন ৯৭ রান, সাকিবের ১ উইকেট (৯১৫৯)প্রতিরক্ষার মতোই যোগাযোগ অন্যের হাতে রাখতে পারি না : এরদোগান (৬৬৫৪)মিয়ানমারের উত্তরাঞ্চলে ব্যাপক সৈন্য সমাবেশ, গণহত্যার আশঙ্কা জাতিসঙ্ঘের (৬৬০৪)ভারতের বিরুদ্ধে দলে যাদের রেখেছে পাকিস্তান (৬৩২১)সিরিয়ায় ইসরাইলি বিমান হামলায় বাধা দিবে না রাশিয়া (৬২২৬)আজ থেকে সুপার লিগ : সুপার টুয়েলভের কখন কোন দলের খেলা (৫৮৭২)পাকিস্তানের আকাশসীমা ব্যবহারের বিষয়ে চুক্তির দ্বারপ্রান্তে যুক্তরাষ্ট (৫৭৭৯)