২৫ মে ২০২০

শীর্ষ ২ পদের জন্য ৭৬ জনের মনোনয়নপত্র জমা ছাত্রদলের ষষ্ঠ কেন্দ্রীয় কাউন্সিল

-

উৎসাহ উদ্দীপনা ও আনন্দঘন পরিবেশের মধ্য দিয়ে ছাত্রদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদপ্রত্যাশী নেতারা দলের মনোনয়ন ফরম পূরণ করে জমা দিয়েছেন। গতকাল মঙ্গলবার সকাল থেকেই নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে তারা মনোনয়ন ফরম জমা দেন। গত ১৭ ও ১৮ আগস্ট দুই দিনে ছাত্রদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদের বিপরীতে ১১০ জন সম্ভাব্য প্রার্থী মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন। তবে গতকাল উভয় পদের বিপরীতে মোট ৭৫ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এর মধ্যে ২৭ জন সভাপতি এবং ৪৯ জন সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী। গতকাল সকাল থেকে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় ঘিরে উৎসবমুখর পরিবেশ তৈরি হয়। পদপ্রত্যাশী নেতা ও তাদের অনুসারীদের মুহুর্মুহু স্লোগানে এ সময় মুখর হয়ে ওঠে গোটা এলাকা। ছাত্রদলের সাবেক নেতৃবৃন্দ সংগঠনের আসন্ন কাউন্সিলে শীর্ষ পদপ্রত্যাশী নেতাদের মনোনয়ন ফরম জমা নেন। গতকালই মনোনয়ন দাখিলের শেষ দিন হওয়ায় বেলা ৩টার মধ্যেই সংশ্লিষ্টরা তা জমা দেন। এ সময় ছাত্রদলের সাবেক নেতাদের মধ্যে ফজলুল হক মিলন, শহীদ উদ্দীন চৌধুরী এ্যানী, কামরুজ্জামান রতন, আজিজুল বারী হেলাল, সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, আমিরুল ইসলাম খান আলিম, আব্দুল কাদির ভুঁইয়া জুয়েল, হাবিবুর রশিদ হাবিব প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন। পরে ছাত্রদলের ষষ্ঠ জাতীয় কেন্দ্রীয় কাউন্সিলের নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক খায়রুল কবির খোকনও উপস্থিত হন।
ছাত্রদলের কাউন্সিলের পুনরায় তফসিল মোতাবেক আগামী ১৪ সেপ্টেম্বর ষষ্ঠ জাতীয় কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে। সভাপতি পদপ্রার্থী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হাফিজুর রহমান বলেন, আমি সভাপতি পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছি। কাউন্সিলে সম্মানিত ভোটাররা আমার ত্যাগ, যোগ্যতা ও দক্ষতার মূল্যায়ন করবেন। আরেক প্রার্থী মামুন খান বলেন, আমি সভাপতি পদে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছি। এখন কাউন্সিলররা তাদের সুচিন্তিত মতামত দেবেন। নির্বাচিত হলে ছাত্রদলকে যুগোপযোগী হিসেবে গড়ে তুলতে চাই। অপর সভাপতি পদপ্রার্থী সাজিদ হাসান বাবু জানান, বৃহত্তর ময়মনসিংহ ও জামালপুর এলাকার একমাত্র প্রার্থী আমি। নির্বাচিত হলে আন্দোলনের মাধ্যমে গণতন্ত্রের মাতা দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করাই হবে আমার প্রধান লক্ষ্য। সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী তানজিল হাসান বলেন, সাধারণ সম্পাদক পদে মনোনয়নপত্র দাখিল করেছি। আশা করি সম্মেলনে কাউন্সিলররা যোগ্য ব্যক্তিকে ভোট দিয়ে নেতা নির্বাচিত করবেন। আরেক সাধারণ সম্পাদক পদপ্রার্থী আমিনুর রহমান বলেন, তিনিও ছাত্রদলের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক পদে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তার অনুসারীরা তাকে নিয়ে আশাবাদী।
ছাত্রদলের সাবেক সভাপতি ও বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, ছাত্রদলের কাউন্সিল ঘিরে এখন উৎসবমুখর পরিবেশ বিরাজ করছে। প্রার্থীরা ভোট চাচ্ছেন। কাউন্সিলের মাধ্যমে নেতা নির্বাচিত হবে। এটাইতো বিউটি অব ডেমোক্র্যাসি। আরেক সাবেক সভাপতি শহীদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানী বলেন, ছাত্রদলের সম্মেলন ঘিরে একটি পরিবেশ তৈরি হয়েছে। কাউন্সিলের মাধ্যমে গণতান্ত্রিকভাবে ছাত্রদলের শীর্ষ দুই নেতা নির্বাচিত হবে। এ নিয়ে সন্দেহের অবকাশ নেই।
ছাত্রদলের কাউন্সিলের পুনঃতফসিল মোতাবেক ১৭ ও ১৮ আগস্ট মনোনয়নপত্র বিতরণ এবং ১৯ ও ২০ আগস্ট জমা নেয়া হয়। প্রার্থী যাচাই-বাছাই করা হবে ২২, ২৩, ২৪, ২৫ ও ২৬ আগস্ট। খসড়া প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হবে ২৭ আগস্ট। ২৮ আগস্ট প্রার্থীদের আপত্তি গ্রহণ এবং ২৯ ও ৩০ আগস্ট প্রার্থীদের আপিল নিষ্পত্তি করা হবে। প্রার্থিতা প্রত্যাহার করা যাবে ৩১ আগস্ট। চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হবে ২ সেপ্টেম্বর। প্রচারণা চালানো যাবে ৩ সেপ্টেম্বর থেকে ১২ সেপ্টেম্বর রাত ১২টা পর্যন্ত। ভোট গ্রহণ করা হবে ১ সেপ্টেম্বর সকাল ১০টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত।

 

 


আরো সংবাদ





maltepe evden eve nakliyat knight online indir hatay web tasarım ko cuce Friv gebze evden eve nakliyat buy Instagram likes www.catunited.com buy Instagram likes cheap Adiyaman tutunu