২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯, ৫ রজব ১৪৪৪
ads
`

খুলনায় হাসপাতাল থেকে নবজাতক চুরি

খুলনায় হাসপাতাল থেকে নবজাতক চুরি। - ছবি : সংগৃহীত

খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল থেকে এক নবজাতক চুরির ঘটনা ঘটেছে।

মঙ্গলবার (২৪ জানুয়ারি) বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে হাসপাতালের জরুরি বিভাগের সামন থেকে শিশুটি চুরি হয়।

হারানোর পর থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত তার সন্ধান মেলেনি। নবজাতক চুরির বিষয়টি নিশ্চিত করেন হাসপাতালের পরিচালক ডা. মো: রবিউল হাসান।

নবজাতকের মামা মোস্তফা জানান, তার বোন রানিমা বেগমের প্রসব বেদনা উঠলে বাগেরহাটের ফকিরহাট উপজেলা থেকে অ্যাম্বুলেন্সে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের লেবার ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়। দুপুরে শিশু জন্ম নেয়ার পর বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তাদের ছাড়পত্র দেয়। গেটের সামনে এসে গাড়িভাড়া নিয়ে চালকের সাথে কথা কাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে ওই চালক গাড়ির চাবি দিয়ে তার মাথায় আঘাত করে। এরমধ্যে আরো কয়েকজন চালক উত্তেজিত হয়ে তার উপর মারমুখী আচরণ করে। তাদের সাথে একজন নারীও ছিলেন। চালকদের হাত থেকে ভাইকে উদ্ধার করতে বোন রানিমা বেগম এগিয়ে আসেন। এ সময় এক নারী নবজাতককে তার খালা সোনিয়া বেগমের কাছ থেকে নিয়ে ভিড়ের মধ্যে হারিয়ে যান। ঘটনার পর থেকে হাসপাতাল এলাকায় বাচ্চাটিকে খুঁজেও সন্ধান পাইনি।

হাসপাতালের পরিচালক ডা. রবিউল হাসান জানান, ওই নবজাতককে মঙ্গলবাব বিকেলে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়। বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে নবজাতকের মা ও একজন স্বজন তাকে নিয়ে বাড়ি যাওয়ার সময় হাসপাতালের সামনে যায়। এ সময় একজন অপরিচিত ব্যক্তি বাচ্চাটিকে তাদের কাছ থেকে কোলে নেন। গাড়ি ঠিক করার সময় ওই ব্যক্তি বাচ্চাটিকে নিয়ে মুহূর্তের মধ্যে পালিয়ে যান।

এ ঘটনায় র‌্যাব সদস্যরা সন্দেহভাজন এক ব্যক্তিকে আটক করেছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এছাড়া হাসপাতালের সিসি টিভি পরীক্ষা করে একজনকে শনাক্ত করা হয়েছে। তাকেও আটকের চেষ্টা করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।


আরো সংবাদ


premium cement