২৮ জানুয়ারি ২০২৩, ১৪ মাঘ ১৪২৯, ৫ রজব ১৪৪৪
ads
`

বাগেরহাটে ধর্ষণ মামলার সাক্ষীকে কুপিয়ে হত্যা

বাগেরহাটে ধর্ষণ মামলার সাক্ষীকে কুপিয়ে হত্যা - ছবি : নয়া দিগন্ত

বাগেরহাটের বাঁশবাড়িয়া এলাকায় ধর্ষণ মামলার সাক্ষী শামিম নামের এক যুবককে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৭টার দিকে ফিরোজ হাওলাদের বাড়ির সামনে দিয়ে যাওয়ার পথে হামলার শিকার হন শামিম। পরে গভীর রাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি।

নিহত শামীম বাশঁবাড়িয়া এলাকার ইউসুফ হাওলাদারের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিহত শামিমের মামাতো বোন ধর্ষণের ঘটনায় একটি মামলা হয়। বাঁশবাড়িয়ার ফিরোজ হাওলাদারসহ ৭-৮ জন ওই মামলার আসামি। ওই দিন ফিরোজ হাওলাদের বাড়ির সামনে দিয়েই যাচ্ছিলেন শামিম। এ সময় লুকিয়ে থাকা অজ্ঞাত দুর্বৃত্তরা তার ওপর হামলা করে। এতে গুরুতর আহত হন তিনি। এ অবস্থায় তাকে রাস্তায় ফেলে রেখে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়।

স্থানীয়রা আরো জানায়, এরপর শামিমের চিৎকারে আশপাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে বাগেরহাট জেলা হাসপাতালে ভর্তি করে। ভর্তির পর অবস্থার অবনতি হতে থাকলে তাকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মঙ্গলবার গভীর রাতে তার মৃত্যু হয়। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত নিহতের লাশ খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে রয়েছে।।

বাগেরহাট জেলা পুলিশের মিডিয়া সেলের প্রধান এসএম আশরাফুল আলম জানান, এলাকায় দুটি গ্রুপের মধ্যে দীর্ঘ বছরের জমাজমিসহ নানা বিষয় নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। এ ঘটনায় ইতোপূর্বে একটি ধর্ষণের ঘটনাও রয়েছে। নিহত শামীম ওই ধর্ষণ মামলার সাক্ষী ছিলেন। তবে ওই মামলার এজাহার নামীয় আসামিরা কারাগারে রয়েছেন। পুলিশ ঘটনার প্রকৃত কারণ জানতে ও খুনিদের ধরতে বিভিন্ন স্থানে অভিযান অব্যাহত রেখেছে।


আরো সংবাদ


premium cement