২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৩ আশ্বিন ১৪২৯, ১ রবিউল আওয়াল ১৪৪৪ হিজরি
`

দর্শনায় গ্রাহকের লাখ লাখ টাকা দিয়ে উধাও ‘বি টাইগার্স’

দর্শনায় গ্রাহকের লাখ লাখ টাকা দিয়ে উধাও ‘বি টাইগার্স’ - ফাইল ছবি

চুয়াডাঙ্গার দর্শনায় লাভের আশা দেখিয়ে গ্রাহকের লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়ে উধাও হয়ে গেছে ‘বি টাইগার্স’ নামের একটি শপিং অ্যাপস এজেন্ট।

জানা গেছে, দর্শনার গড়াইটুপি ইউনিয়নের গহেরপুর ও আশপাশের এলাকার সহজ-সরল মানুষের হাজার হাজার টাকা লাভের প্রলোভন দেখিয়ে লগ্নি করিয়েছে ‘বি টাইগারস’ নামের শুপিং অ্যাপসভিত্তিক একটি প্রতিষ্ঠান। পরে তারা গ্রাহকের লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নয়ে প্রতিষ্ঠানটির প্রধান এজেন্ট ও তার সহযোগীরা উধাও হয়ে গেছে। বর্তমানে অ্যাপসটি ডিজেবল দেখাচ্ছে বলেও অভিযোগ উঠেছে।

সর্বশান্ত হওয়া কমল কর্মকারের অভিযোগ, গহেরপুর গ্রামের তাহের আলির ছেলে সুমন আলি প্রথমে অ্যাপসটির একাউন্ট খুলে লগ্নি করা শুরু করে। পর্যায়ক্রমে অধিক টাকার প্রলোভন দেখিয়ে এলাকার তিন শতাধিক মানুষকে লগ্নি করায়। সাধারণ মানুষ গরু ছাগল বিক্রি ও বিদেশ যাওয়ার টাকা অ্যাপসভিত্তিক এ কোম্পানিতে লগ্নি করে। এমনকি স্কুলছাত্র-ছাত্রীরাও এখানে ঝুঁকে পড়ে। পরে তারা গ্রাহকের টাকা নিয়ে উধাও হয়ে যায়।

আরেক লগ্নিকারী হায়দার আলির ছেলে মিজানুর রহমান জানান, শতাধিক লোকের মুখে শুনে লগ্নি করা অ্যাপসে টাকা তুলতে গেলে দেখা যায় অ্যাপসটি ওপেন হচ্ছে না। এ সময় এজেন্ট সুমন আলীকে ফোন দিলে তার নাম্বার বন্ধ পাওয়া যায়। পরে তার বাড়িতে গেলে সেখানেও তার কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি।

‘বি টাইগারস’ শপিং অ্যাপসের আঞ্চলিক (ইউজার) এজেন্ট সুমন আলী জানান, ‘এটি একটি আন্তর্জাতিক মানের অ্যাপস, যার ঢাকায় অফিস ও সারাদেশে শাখা রয়েছে। আমার মাধ্যমে লগ্নিকারীর সংখ্যা তিন শতাধিক। আমার নিজের তিন লাখ টাকাসহ লগ্নিকারীদের প্রায় আট লাখ টাকা রয়েছে। কিন্ত অ্যাপসটি ডিজেবল দেখাচ্ছে। আমি এখন কি জবাব দেব। আমার তো গা ঢাকা দেয়া ছাড়া উপায় নাই।’

স্থানীয় গড়াইটুপি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সফিকুল ইসলাম রাজু জানান, বিষয়টি নিয়ে বেশ কয়েকজন অভিযোগ জানিয়েছে।

দর্শনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ এইচ এম লুৎফুল কবির জানান, এ বিষয়ে কোনো লিখিত অভিযোগ পায়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যাবস্থা নেয়া হবে।


আরো সংবাদ


premium cement