০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯, ৭ জিলহজ ১৪৪৩
`

ইবি ছাত্রলীগ কর্মীর বিরুদ্ধে সিনিয়রকে থাপ্পড় মারার অভিযোগ

অভিযুক্ত ফারহান লাবীব ধ্রুব। - ছবি : সংগৃহীত

হলে ঢোকার জন্য সাইড চাওয়ায় সিনিয়রকে থাপ্পড় মারার অভিযোগ ওঠেছে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ইবি) শাখা ছাত্রলীগের এক জুনিয়র কর্মীর বিরুদ্ধে।

শনিবার রাতের দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সাদ্দাম হোসেন হল গেটে এ ঘটনা ঘটে।

অভিযুক্ত ফারহান লাবীব ধ্রুব বাংলা বিভাগের ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী। ভুক্তভোগী সাদরিল হাসান হিসাব বিজ্ঞান ও তথ্যপ্রযক্তি বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী।

প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, সাদরিল বাইসাইকেল নিয়ে সাদ্দাম হোসেন হলের রিডিং রুমে যাচ্ছিলেন। এ সময় হলের ছাত্রলীগ কর্মী ধ্রুবসহ কয়েকজন হলের গেটে দাঁড়িয়ে থাকায় তাদের সরে দাঁড়াতে বলেন সাদরিল। এ নিয়ে তাদের মধ্যে বাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে সাদরিলকে থাপ্পড় মারেন ধ্রুব।

ধ্রুবর অভিযোগ, সাদরিল তার পায়ে সাইকেল ওঠিয়ে দেয়ায় বাকবিতণ্ডা শুরু হয়। এছাড়া তিনি ধ্রুবকে অকথ্য ভাষায় গালি দেন।

সাদরিলের দাবি, ধ্রুবর শরীরে সাইকেল লাগেনি, সাইকেল থেকে নেমে তাদের সরে যেতে বলেছিলেন তিনি।

এ সময় সাদরিলও তাকে মারতে উদ্যত হলে পাশে থাকা ছাত্ররা তাদের থামান। পরে ধ্রুব তার বন্ধুদের ডেকে এনে আরো একধাপে সাদরিলকে মারতে উদ্যত হন বলে জানা যায়। পরে উপস্থিত সকলে তাদের থামান।

ঘটনার বিচার চেয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড. জাহাঙ্গীর হোসেনের কাছে অভিযোগপত্র দিয়েছেন ভুক্তভোগী সাদরিল।

সাদরিল বলেন, আমি অ্যাসাইনমেন্ট করতে হলের রিডিং রুমে যাচ্ছিলাম। ধ্রুবসহ আরো একজন হলে ঢোকার গেটেই দাঁড়িয়ে ছিল। আমি জিজ্ঞেস করি, তোমরা এভাবে দাঁড়িয়ে আছো কেন? তখন ধ্রুব বলে, দাঁড়িয়ে আছি মানে বলেই খুব জোরে আমার গালে থাপ্পড় দেয়। পরে তারা আবার মারতে আসে। পরে সে হলের ছাত্রলীগ নেতাদের মাধ্যমে বিষয়টি মিটমাট করতে প্রস্তাব দিয়েছিল। আমি প্রশাসনের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছি।

এদিকে ধ্রবর বিরুদ্ধে আগেও সিনিয়র শিক্ষার্থীদের মারধরের অভিযোগ রয়েছে। গত বছর ১২ নভেম্বর সাদ্দাম হোসেন হল মাঠে বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজকর্ম বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের আরিফ ও তার বন্ধুদের মারধর করেন ধ্রুব ও তার বন্ধুরা।

অভিযোগের বিষয়ে ধ্রুব বলেন, উনি আমার পায়ে সাইকেল লাগিয়ে দিয়েছিলেন। আমি সাবধানে চালাতে বলায় বুকে হাত দিয়ে আমাকে সরিয়ে দেন। পরে তার সাথে হাতাহাতি হয়েছিল। এ সময় আমিও হাতে ব্যাথা পাই।


আরো সংবাদ


premium cement
রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে আরো সক্রিয় হওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ফুলবাড়ীতে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে কৃষকের মৃত্যু দেশবাসীকে ঈদের শুভেচ্ছা জানালেন আমিরে জামায়াত ‘বরিস হঠাও’ আন্দোলন তুঙ্গে : নির্বাচনের দিকেই কি হাঁটছে ব্রিটেন? রাস্তায় ফেলে পঞ্চায়েত সদস্যসহ ৩ জনকে হত্যা পদত্যাগ করছেন হোয়াইট হাউসের যোগাযোগ পরিচালক অবরুদ্ধ গাজার ‘প্রাচীর ভেঙে’ ফিলিস্তিনি তরুণী এখন সুইডেনের মেয়র বোনকে বাঁচাতে গিয়ে ভাইয়েরও মৃত্যু করোনায় মারা গেছেন ভারোত্তলনে স্বর্ণজয়ী রিয়ানা চাঁদপুরে ২০০ কোরবানির হাট : গরুর চড়া দামে বিপাকে ক্রেতা-বিক্রেতা হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু, অংশ নিয়েছেন ১০ লাখ মুসল্লি

সকল