২৩ জানুয়ারি ২০২২, ০৯ মাঘ ১৪২৮, ১৯ জমাদিউস সানি ১৪৪৩
`

চুয়াডাঙ্গায় পরাজিত স্বতন্ত্র প্রার্থীর ওপর হামলা

চুয়াডাঙ্গায় পরাজিত স্বতন্ত্র প্রার্থীর ওপর হামলা - ছবি : নয়া দিগন্ত

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার ডাউকীতে সদ্য সমাপ্ত ইউপি নির্বাচনে পরাজিত স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী নাজমুল হুসাইনের ওপর হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। নাজমুল হুসাইন ডাউকী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের যুগ্ম আহ্বায়ক। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করতে যেয়ে পুলিশেরও চারজন সদস্য আহত হয়েছেন। গতকাল বুধবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। নাজমুল হুসাইন গত ২৮ নভেম্বর তৃতীয় ধাপে ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন। এই নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী তরিকুল ইসলাম নৌকা প্রতীক নিয়ে জয়লাভ করেন।

এদিকে, নাজমুল হুসাইনের ওপর নৃশংস হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের দাবিতে গতকাল রাত সাড়ে ১০টার দিকে আলমডাঙ্গা শহরে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে স্বেচ্ছাসেবক লীগ। এ বিক্ষোভ সমাবেশের পাল্টা বিক্ষোভ করতে গেলে নৌকা প্রতীকে বিজয়ী তরিকুল চেয়ারম্যানের লোকজনের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ বাধে। সংঘর্ষের সময় তরিকুলের বিক্ষুব্ধ সমর্থকেরা পুলিশকে লক্ষ করে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে এবং পুলিশের দুটি ও সাধারণ মানুষের চারটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে। এ ঘটনায় আলমডাঙ্গা থানার পরিদর্শক শাহাবুল, এএসআই শরিফুল ইসলামসহ চার পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। এ ঘটনার পর থেকে আলমডাঙ্গা শহরে থমথমে অবস্থা বিরাজ করছে। অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

গ্রামসূত্রে জানা যায়, আলমডাঙ্গার ডাউকী ইউনিয়নের পরাজিত স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী নাজমুল হুসাইন গতকাল বুধবার সন্ধ্যায় নিজ গ্রাম ডাউকী স্কুলমাঠে বসেছিলেন। অভিযোগে বলা হয়, ওই সময় আকস্মিকভাবে তার ওপর হামলা চালায়। এসময় লাঠির আঘাতে নাজমুল রক্তাক্ত জখম হলে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে আলমডাঙ্গার হারদী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। সেখানে তার শারীরিক অবস্থার উন্নতি না হলে পরে তাকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়। রাতেই নাজমুল হুসাইনকে হারদী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করা হয়েছে।

এবিষয়ে আলমডাঙ্গা হারদী হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. মাসুক রহমান বলেন, ‘নাজমুল হুসাইন নামের একজন গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে এলে আমরা তার প্রাথমিক চিকিৎসা প্রদান করি ও তার অবস্থা গুরুতর হওয়াই তাঁকে কুষ্টিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।’

এদিকে, নাজমুল হুসাইনকে নির্বাচন পরবর্তী সহিংসতায় আকস্মিক তার ওপর হামলা চালিয়ে রক্তাক্ত জখম করার ঘটনায় ক্ষোভে ফেটে পড়ে ডাউকী ইউনিয়নবাসী। রাতেই আহত নাজমুল হুসাইনের মাকে সামনে ইউনিয়নের সাধারণ মানুষ এবং উপজেলা ও পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতারা আলমডাঙ্গা শহরে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করে। বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ থেকে বক্তারা নৌকা প্রতীকের বিজয়ী প্রার্থী তরিকুল ইসলামসহ অপরাধীদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার দাবি জানান।

আলমডাঙ্গা উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক শরিফুল ইসলাম রিফাত প্রতিবাদ সভায় কঠোর হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেন, ‘যদি নাজমুল হুসাইনের ওপর হামলাকারী ও হামলার নেতৃত্ব দানকারী সদ্য নির্বাচিত চেয়ারম্যান তরিকুল ইসলামকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেফতার না করা হয়, তাহলে আলমডাঙ্গা ও চুয়াডাঙ্গায় কঠোর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।’

এদিকে, নাজমুল হুসাইনের সমর্থকদের বিক্ষোভ মিছিল করার সংবাদ পেয়ে তরিকুল ইসলামের লোকজন শহরে পাল্টা বিক্ষোভ করার প্রস্তুতি নেয়। তারা ওই এলাকার হাউসপুর এলাকায় অবস্থান নেন। তাৎক্ষণিক সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করতে তাদেরকে বিক্ষোভ মিছিল করতে বাধা দেয়। স্থানীয় সূত্র জানায়, এসময় পুলিশের সাথে তরিকুল চেয়ারম্যানের লোকজন সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। তখন বিক্ষুব্ধ সমর্থকেরা পুলিশের উদ্দেশ্যে করে ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করে এবং পুলিশের দুটি ও সাধারণ মানুষের চারটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে। এ ঘটনায় আলমডাঙ্গা থানার পরিদর্শক শাহবুল, এএসআই শরিফুল ইসলামসহ চার পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন।

আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘কর্তব্যরত পুলিশের ওপর তরিকুল চেয়ারম্যান পক্ষের লোকজন হামলা চালায়। তারা পুলিশের দুটি মোটরসাইকেল ও চারটি পাবলিকের মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে। এছাড়া বিক্ষুব্ধ সমর্থকদের হামলায় চার পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে এলাকায় বর্তমানে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।


আরো সংবাদ


premium cement