২৯ মে ২০২২, ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ২৭ শাওয়াল ১৪৪৩
`

পূজা দেখতে যাওয়ার পথে সড়ক দুর্ঘটনা নিহত ২

পূজা দেখতে যাওয়ার পথে সড়ক দুর্ঘটনা নিহত ২ - ফাইল ছবি

সাতক্ষীরার আশাশুনিতে পূজা দেখতে যাওয়ার পথে আলম সাধুর সাথে মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে দুজন নিহত ও একজন গুরুতর আহত হয়েছেন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় আশাশুনি উপজেলার বড়দল ইউনিয়নের কালিবাড়ি সড়কে এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার নড়েরআবাদ গ্রামের গনেশ মন্ডলের ছেলে হিরামন মন্ডল (২৫) ও একই এলাকার সজিব মন্ডল (২১)। গুরুতর আহত রিপন মন্ডলকে (২৪) সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, পূজা দেখার জন্য বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টার দিকে তিন বন্ধু হিরামন মন্ডল, রিপন মন্ডল ও সজিব মন্ডল একটি মোটরসাইকেল বের হয়। পূজা মণ্ডপে যাওয়ার পথে আশাশুনি উপজেলার বড়দল ইউনিয়নের কালিবাড়ি এলাকায় সড়কে একটি আলম সাধুর সাথে তাদের মোটরসাইকেলের মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। এতে মোটরসাইকেলচালক হিরামন মন্ডল ঘটনাস্থলেই নিহত হন। গুরুতর আহত হয় অপর দুই আরোহী সজিব ও রিপন মন্ডল। খবর পেয়ে আশাশুনি ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সদস্যরা ঘটনাস্থল থেকে গুরুতর আহত সজিব মন্ডল ও রিপন মন্ডলকে উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তৃব্যরত চিকিৎস্যক সজিব মন্ডলকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত রিপনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের আশাশুনি স্টেশন অফিসার বেলায়েত হোসেন জানান, বৃহস্পতিবার বিকেল ৪টার দিকে পূজা দেখতে যাওয়ার পথে আশাশুনির কালিবাড়ি এলাকায় মোটরসাইকেল আরোহীরা আলমসাধু’র ধাক্কায় পড়ে যান। সেখানেই হিরামন মন্ডল নিহত হন। আরোহী সজিব ও রিপন মন্ডলকে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক সজিব মন্ডলকে মৃত ঘোষণা করেন। আহত রিপন মন্ডল সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি আছে। তবে তার অবস্থাও আশঙ্কাজনক।


আরো সংবাদ


premium cement
নেপালে নিখোঁজ বিমানের ধ্বংসাবশেষের খোঁজ মিলেছে আল্টিমেটামের ১৬ ঘণ্টায় র‌্যাবের অস্ত্র উদ্ধার, সাথে ছিল চিরকুট জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম সম্মাননা পেলেন নয়াদিগন্তের শাহাদাত মিথ্যা জি‌তে গে‌লে দে‌শের অস্তিত্ব থাকবে না : দুদু সৈয়দপুরে রকেটের কাটা পড়ে যুবকের মৃত্যু বেড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় ভ্যানচালক নিহত ‘আমি এখন রেকর্ড ম্যান’ : আনচেলত্তি আ’লীগের নেতাকর্মীরা ফ্যাসিবাদের পূজারী : রিজভী বাংলাদেশকে একটি শক্তিশালী শান্তি প্রতিষ্ঠাকারী দেশ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করুন : প্রধানমন্ত্রী জিয়াউর রহমান জনগণের প্রত্যাশা পূরণ করতে পেরেছিলেন : গয়েশ্বর নদীবন্দরগুলোয় ২ নম্বর হুঁশিয়ারী সংকেত

সকল