১৩ মে ২০২১
`

কালিগঞ্জে বিয়ের প্রলোভনে ১০ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ, শিক্ষক গ্রেফতার

কালিগঞ্জে বিয়ের প্রলোভনে ১০ম শ্রেণীর ছাত্রীকে ধর্ষণ, শিক্ষক গ্রেফতার - প্রতীকী ছবি

সাতক্ষীরার কালিগঞ্জে ধর্ষণ মামলায় হাফেজ আব্দুল মজিদ (৪২) নামে এক মাদরাসাশিক্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে কালিগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সেলিম রেজার নেতৃত্বে পুলিশ সদস্যরা অভিযান চালিয়ে মাদরাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করেন।

আসামিকে বুধবার আদালতের মাধ্যমে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

হাফেজ আব্দুল মজিদ শ্যামনগর উপজেলার শ্রীফলকাটি গ্রামের শওকত গাজীর ছেলে ও কালিগঞ্জের পাউখালি মাহবুবা রাজ্জাকিয়া হাফিজিয়া মাদরাসা ও এতিমখানার শিক্ষক।

থানা সূত্রে জানা যায়, শিক্ষক আব্দুল মজিদ শ্যামনগর উপজেলার নুরনগর মহিলা মাদরাসার ১০ম শ্রেণীর এক ছাত্রীর সাথে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন। ১৭ এপ্রিল বিকেলে ওই ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কালিগঞ্জের পাউখালি মাহবুবা রাজ্জাকিয়া হাফিজিয়া মাদরাসা ও এতিমখানায় নিয়ে আসেন। এরপর রাত ৯টার দিকে ওই ছাত্রীকে নিজের শয়নকক্ষে নিয়ে তার ইচ্ছার বিরুদ্ধে ধর্ষণ করেন ওই শিক্ষক। পর দিন সকালে ওই ছাত্রীকে মাদরাসা থেকে বের করে মোটরসাইকেলযোগে কালিগঞ্জের গড়ের হাট নামকস্থানে নামিয়ে দিয়ে আসেন তিনি। এরপর ওই ছাত্রীকে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানান হাফেজ আব্দুল মজিদ। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী ছাত্রীর বাবা থানায় মামলা দায়ের করেন। কালিগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দেলোয়ার হুসেন এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।



আরো সংবাদ