২০ জানুয়ারি ২০২১
`

মাগুরায় স্বামীকে গাছের সাথে বেঁধে স্ত্রীকে গণধর্ষণ


মাগুরায় স্বামীকে গাছের সাথে বেঁধে স্ত্রীকে গণধষর্ণের অভিযোগ উঠেছে। ভুক্তভোগী নারী নিজেই অজ্ঞাত পাঁচজনকে আসামী করে রোববার সন্ধ্যায় মাগুরা সদর থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

মাগুরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা জয়নাল আবেদীন জানান, এ ঘটনায় ধর্ষণের স্বীকার গৃহবধূ নিজেই রোববার মাগুরা সদর থানায় অজ্ঞাতনামা পাঁচজনকে আসামী করে একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেছেন। ইতোমধ্যে ধর্ষণের শিকার গৃহবধূর ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

ধর্ষিতার স্বামী জানান, ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার বন্দেখালি গ্রাম থেকে ২০ দিন আগে দিনমজুর হিসেবে অন্যের জমিতে ধান সংগ্রহের কাজ করতে আসি মাগুরা সদরের জাগলা গ্রামে। আমরা স্বামী-স্ত্রী এলাকার মাঠেই তাবু খাটিয়ে বসবাস করছিলাম। শনিবার রাতে আনুমানিক সাড়ে ৭টার দিকে পাঁচজনের একটি সঙ্ঘবদ্ধ দুষ্কৃতিকারী অস্ত্রের মুখে আমাকে গাছের সাথে বেঁধে আমার স্ত্রীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। এ সময় আমার কাছে থাকা পাঁচ হাজার টাকাও তারা ছিনিয়ে নিয়ে যায়।

মাগুরা সদর হাসপাতালের চিকিৎসক ডাক্তার অন্যন্যা জানান, গণধর্ষণের শিকার ভিকটিম আমাদের হাসপাতালে ভর্তি হয়নি। তবে সদর থানার মাধ্যমে তার পরীক্ষা ও নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট আসলেই প্রকৃত কারণ জানা যাবে।



আরো সংবাদ