২৫ নভেম্বর ২০২০

খুলনাবাসী দাদু ভাইয়ের অবদান চিরদিন স্মরণ রাখবে

খুলনাবাসী দাদু ভাইয়ের অবদান চিরদিন স্মরণ রাখবে - সংগৃহীত

বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা মন্ডলীর সদস্য ও খুলনা মহানগর বিএনপির সাবেক সভাপতি ভাষা সৈনিক এম নূরুল ইসলাম দাদু ভাইয়ের জানাজার আগে বক্তব্যে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল সাবেক এমপি অধ্যাপক মিয়া গোলাম পরওয়ার বলেন, ‘এম নূরুল ইসলাম দাদু ভাই প্রায় শতবর্ষী হলেও তিনি সকলের কাছে দাদু ভাই। তিনি মুক্তিযুদ্ধের একজন সংগঠক ও ভাষা আন্দোলনে অগ্রণী ভূমিকা রেখেছেন।

আমি তার সাথে খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার আন্দোলন, শ্রমিক আন্দোলন ও বৃহত্তর খুলনার উন্নয়নে আন্দোলন করেছি। দাদু ভাইয়ের পরিবারের প্রতি জামায়াতের আমীর ডা. শফিকুর রহমানের দোয়া সালাম ও সমবেদনা পৌছে দিতে বলেছিলেন। আমি দাদু ভাইয়ের বাসায় গিয়ে শোকাহত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা ও সালাম জানিয়ে এসেছি।’ এ সময় তিনি জানাজায় উপস্থিত সকলের প্রতিও সালাম জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, মানুষের প্রতি ভালোবাসা এবং মানুষকে কাছে টানার এক মোহনীয় ব্যক্তিত্ব তার ছিল। সকল নেতা-কর্মীর জন্য তাই তিনি ছিলেন প্রশান্তির ঠিকানা। তার এই শূণ্যতা পুরণ হওয়ার নয়। দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের উন্নয়ন ও সকল আন্দোলন সংগ্রামে খুলনাবাসী দাদু ভাইয়ের অবদান চিরদিন স্মরণ রাখবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

তিনি আরো বলেন, এখানে উপস্থিত আমরা যারা রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত তাদের সকলের ব্যাপারে কিছু বা বিতর্ক করার সুযোগ আছে। কিন্তু দাদু ভাই এসব প্রশ্ন ও বিতর্কের উর্দ্ধে একজন জননন্দিত ব্যক্তিত্ব হয়ে উঠেছিলেন। আল্লাহ তায়ালা দাদু ভাইয়ের সকল আমল কবুল করে তাকে মাফ করে দেন।

খুলনা মহানগরী জামায়াতের শোক
সাবেক এমপি নূরুল ইসলাম দাদু ভাইয়ের মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ ও তার শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে জামায়াতে ইসলামীর খুলনা মহানগরীর আমীর মাওলানা আবুল কালাম আজাদ, নায়েবে আমীর মাস্টার শফিকুল আলম, ও সেক্রেটারি অধ্যাপক মাহফুজুর রহমান এক বিবৃতি দেন।


আরো সংবাদ