২৪ নভেম্বর ২০২০

শরণখোলায় আমফানে ভেসে গেছে ঘের-পুকরের মাছ

শরণখোলায় আমফানে ভেসে গেছে ঘের-পুকরের মাছ - নয়া দিগন্ত

শরণখোলায় ঘূর্ণিঝড় আমফানে বেঁড়িবাধ ভেঙ্গে গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। ভেসে গেছে পুকর ও ঘেরের মাছ। ক্ষতি হয়েছে ভুট্রাসহ রবি ফসলের।

সাউথখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. মোজাম্মেল হোসেন জানান, সাউথখালী ইউনিয়নের তেরাবাকা থেকে গাবতলা পর্যন্ত দুই কিলোমিটার বেঁড়িবাধের ৮ টি জায়গা ভেঙ্গে বগী, গাবতলা ও শরণখোলা গ্রামের তিন শতাধিক বাড়ী ঘর প্লাবিত হয়েছে। বলেশ্বর নদীর জোয়ারের পানিতে বগী ও গাবতলার মানুষ ভাসছে। অনেক বাড়ী ঘরের চুলায় পানি ওঠায় রান্নাবান্না বন্ধ প্রায়। ওই ইউনিয়নের শতাধিক ঘের ও পুকুরের মাছ ভেসে গেছে এবং অনেক বাড়ীঘর ভেঙ্গেছে যার হিসাব করা হচ্ছে বলে তিনি জানান।

এ ছাড়া উপজেলার অন্যান্য স্থানে বাড় ঘর গাছপালার ব্যপক ক্ষতির খবর পাওয়া গেছে। সোনাতলা গ্রামের জাকির ও সরোয়ারসহ অনেকের মৎস্য ঘেরের মাছ জলোচ্ছ্বাসের ভেসে গেছে বলে তারা জানান।

শরণখোলা উপজেলা নির্বাহী অফিসার সরদার মোস্তফা শাহিন বলেন, ঘূর্ণিঝড় আমফানে শরণখোলায় বাড়ীঘর গাছপালা, মাছ ফসল সব মিলিয়ে কোটি টাকারও বেশী ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তবে সঠিক হিসাব নিরুপণ করা হচ্ছে বলে তিনি জানান।


আরো সংবাদ