২৬ মে ২০২০

বাবা-মাকে পিটিয়ে ১৩ বছরের মেয়েকে তুলে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গায় মামলা তুলে নিতে বাদীর পঞ্চম শ্রেণী পড়ুয়া ১৩ বছরের মেয়েকে গণধর্ষনের অভিযোগ পাওয়া গেছে আসামীদের বিরুদ্ধে। ঘটনার সাথে জাড়িত থাকার অভিযোগে রোবাবার দুপুরে লাল্টু নামে একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

এ ঘটনায় নির্যার্তিতা মেয়ের বাবা রোববার দুপুরে আলমডাঙ্গা থানায় তিনজনের নাম উল্লেখ করে নারী ও শিশু নির্যতনের মামলা দায়ের করেছে। নির্যাতিতা ওই শিশুকে বিকেলে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য পাঠিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, আলমডাঙ্গা উপজেলার নতিডাঙ্গা আবাসন এলাকার হতদরিদ্র পরিবারের মেয়েকে একই এলাকার জয়নালের ছেলে লাল্টু(৩৫), মৃত সভা ভোরামীর ছেলে শরীফুল(৪০) ও মিলনের ছেলে রাজু(৩০) প্রায় উত্তক্ত করে আসছিল। এ ঘটনায় ওই মেয়ের মা চুয়াডাঙ্গা আদালতে মাসখানেক আগে শ্লীলতাহানীর একটি মামলা করেছিল। ওই মামলার জের ধরেই শনিবার দিবাগত মধ্যরাতে আলমডাঙ্গার নতিডাঙ্গা আবাসন এলাকায় ওই হতদরিদ্র পরিবারের বাড়িতে হামলা করে লাল্টু, শরিফুল ও রাজু।

এসময় নির্যাতিতার বাবা মাকে মারধর করে মেয়েকে পাশের বাঁশবাগানে জোড় করে তুলে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে তারা। পরে এই ঘটনা পুলিশকে জানালে প্রাননাশেরও হুমকি দেয় অভিযুক্তরা। রোববার দুপুরে পুলিশ ভিকটিমের বাড়ি থেকে অভিযোগ পেয়ে নির্যার্তিতা মেয়েকে উদ্ধার করে আলমডাঙ্গা থানায় নিয়ে আসে।

পরে গোপন তথ্যের ভিত্তিতে নতিডাঙ্গা আবাসন এলাকায় অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত তিনজনের মধ্যে লাল্টুকে আটক করে পুলিশ। অন্য দুই আসামী পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়।

আলমডাঙ্গা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মাহাবুবুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, অভিযুক্ত একজনকে আটক করেছে পুলিশ বাকিদের গ্রেফতারে পুলিশের অভিযান চলছে।


আরো সংবাদ





maltepe evden eve nakliyat knight online indir hatay web tasarım ko cuce Friv gebze evden eve nakliyat buy Instagram likes buy Instagram likes cheap Adiyaman tutunu