২০ আগস্ট ২০২২
`

প্রভাবশালী ৫ আরব শাসকের কার কবর কেমন? (ছবিসহ)

প্রভাবশালী ৫ আরব শাসকের কার কবর কেমন? - ছবি : সংগৃহীত

পৃথিবীতে আগমনকারী প্রতিটি মানুষকেই একদিন চলে যেতে হবে। ধনী কিংবা গরিব, রাজা কিংবা প্রজা, আমির কিংবা ফকির; কেউ পৃথিবীতে স্থায়ী হতে পারবে না। শুধু তাই নয়; পৃথিবীতে তার উপার্জিত কোনো সম্পদও সাথে নিয়ে যেতে পারবে না সে। মৃত্যুর পর এক টুকরো কাফন ও দুই গজ জমিনই তার একমাত্র সম্বল।

আরব বিশ্বের প্রভাবশালী পাঁচজন শাসক, যারা জীবদ্দশায় ছিলেন খুব প্রতাপশালী। কিন্তু মৃত্যুর পর তারাও সাধারণের মতো রিক্তহস্তেই সমাহিত হয়েছেন। তাদের কার কবর কেমন, তা তুলে ধরা হলো-

১. শেখ খলিফা বিন জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ান।
সদ্যই ইন্তেকাল করলেন সংযুক্ত আরব আমিরাতের প্রেসিডেন্ট শেখ খলিফা বিন জায়েদ বিন সুলতান আল নাহিয়ান। গত ১৩ মে ইন্তেকাল করেন তিনি। সূত্র অনুযায়ী শেখ খলিফা একজন প্রখ্যাত দানবীর ছিলেন। জীবদ্দশায় তিনি নিজের সম্পদ থেকে দুঃস্থ্যদের সহায়তায় অন্তত ৪৬০ মিলিয়ন মার্কিন ডলারেরও বেশি দান করেছেন। পৃথিবীর অত্যন্ত প্রতাপশালী এ শাসককেও খুবই সাদাসিধেভাবে সমাহিত করা হয়। সংযুক্ত আরব আমিরাতের মতো একটি ধনী রাষ্ট্রের প্রভাবশালী এক শাসকের এরকম সাধারণ কবর বিশ্ববাসীর জন্য উদাহরণ।kHALIFA-1

২. বাদশাহ ফাহাদ বিন আব্দুল আজিজ।
১৯৮২ সালে নিজের ভাই শাহ খালিদের ইন্তেকালের পর সৌদি আরবের শাসন ক্ষমতা হাতে পান বাদশাহ ফাহাদ বিন আব্দুল আজিজ। এরপর ১৯৯৭ সালে হৃদরোগে আক্রান্ত হন তিনি। ফলে তার পক্ষে আর শাসনকার্য পরিচালনা করা সম্ভব হয়ে ওঠে না। তাই শাসনভার ন্যাস্ত করেন তার সৎ ভাই ক্রাউন প্রিন্স আব্দুল্লাহর ওপর। পরে দীর্ঘ অসুস্থতায় ভুগে ২০০৫ সালে ৮৫ বছর বয়সে তিনি মারা যান। মৃত্যুর পর তাকেও রিয়াদের অখ্যাত একটি কবরস্তানে খুব সাদাসিধেভাবে দাফন করা হয়।KHALIFA-2

৩. বাদশাহ আব্দুল্লাহ বিন আব্দুল আজিজ।
বাদশাহ আব্দুল্লাহ বিন আব্দুল আজিজ আল সৌদ ছিলেন সৌদি আরবের ষষ্ঠ বাদশাহ। ভাই বাদশাহ ফাহাদ বিন আব্দুল আজিজের থেকে তিনি দেশটির শাসন ক্ষমতা গ্রহণ করেন। তার ভাই-ভাতিজারা তাকেও খুব সাধারণভাবে সাদা কাফনে আবৃত করে দাফন করেন। তাকেও দাফন করা হয় রিয়াদের একটি অপ্রসিদ্ধ কবরস্তানে।KHALIFA-3

৪. শেখ সাবাহ আল-আহমাদ সাবাহ।
২০০৬ সালে তেলের দেশখ্যাত কুয়েতের রাষ্ট্রক্ষমতা গ্রহণ করেন শেখ সাবাহ আল-আহমাদ সাবাহ। ২০২০ সালে তিনি ইন্তেকাল করেন। মৃত্যুর পর কুয়েতের জাতীয় পতাকায় তার লাশটিকে আবৃত করা হয়। পরে বিশাল গাড়ি বহরে তার স্বজনেরা তাকে নিয়ে যান মসজিদ বেলাল ইবনে রাবাহে। এখানে জানাজা শেষে তাকেও খুব সাদামাটাভাবে সমাহিত করা হয়।KHALIFA-4

৫. সুলতান কাবুস বিন সাঈদ।
আরব বিশ্বে সবচেয়ে দীর্ঘ সময়ের শাসক সুলতান কাবুস। তিনি ওমান সালতানাতের প্রভাবশালী সুলতান ছিলেন। ২০২০ সালে তার ইন্তেকাল হয়। তিনি ওমানের শাসকের পাশাপাশি দেশটির প্রধানমন্ত্রী, সেনাবাহিনী প্রধান, প্রতিরক্ষামন্ত্রী, অর্থমন্ত্রী ও স্টেট ব্যাংকের গভর্নরের দায়িত্ব পালন করতেন। তিনিও যখন মৃত্যুবরণ করলেন, তখন তাকে মাসকটের একটি কবরস্তানে স্বাভাবিকভাবেই দাফন করা হলো।KHALIFA-5

-হামারি নিউজ অবলম্বনে বেলায়েত হুসাইন


আরো সংবাদ


premium cement
পররাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যে হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রতিক্রিয়া আসাদের অপসারণ চায় না তুরস্ক : এরদোগান উড়ে গেল ম্যাকালামের দল, দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ইনিংসে হার ইংল্যান্ডের স্বামী-শ্বশুরের বিরুদ্ধে মামলার পর মুখে ‘অ্যাসিড’ নিক্ষেপের অভিযোগ ‘মাস্টারদা সূর্যসেন প্রীতিলতা ওয়াদ্দেদার ও কল্পনা দত্ত’ স্মারক বক্তৃতা অনুষ্ঠিত বাউবির এসএসসি পরীক্ষা শুরু গাজীপুরে শিক্ষক দম্পতির লাশ উদ্ধারের ঘটনায় মামলা কোনিয়া যেন মসজিদের শহর ‘নিম্নচাপ’ নিয়ে আবহাওয়ার ৩ নম্বর বিশেষ বিজ্ঞপ্তি মতলবে সেপটিক ট্যাংকে কাজ করতে গিয়ে ২ জনের মৃত্যু ব্যবসায়ী দুলাল হত্যা মামলার রহস্য ৪ দিনে উদঘাটন

সকল