৩০ মে ২০২০

স্থানীয় ও রোহিঙ্গাদের জন্য বিশ্বব্যাংকের ৩৫ কোটি ডলার

স্থানীয় ও রোহিঙ্গাদের জন্য বিশ্বব্যাংকের ৩৫ কোটি ডলার - ছবি : সংগৃহীত

বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ শরণার্থী সমস্যা সামাল দিতে বাংলাদেশকে সাহায্য করার জন্য তিনটি প্রকল্পে ৩৫ কোটি মার্কিন ডলার আর্থিক অনুদান অনুমোদন করেছে বিশ্বব্যাংক।

এ অনুদান কক্সবাজার জেলার স্থানীয় জনগোষ্ঠী এবং বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গাদের জন্য স্বাস্থ্যসেবা, লিঙ্গ-ভিত্তিক সহিংসতা রোধ, সামাজিক সুরক্ষা, মৌলিক সেবা ও অবকাঠামো উন্নয়নে বাংলাদেশকে সাহায্য করবে বলে দাতা সংস্থাটি ওয়াশিংটন থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে।

বাংলাদেশ ও ভুটানে বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর মার্সি টেম্বন বলেন, ‘প্রায় ১১ লাখ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ বিরাট নেতৃত্ব দেখিয়েছে। এ সংখ্যাটি টেকনাফ ও উখিয়া উপজেলার স্থানীয় জনগোষ্ঠীর প্রায় তিনগুণ। যার ফলে তা স্বাভাবিকভাবেই বিদ্যমান অবকাঠামো ও সামাজিক সেবা প্রদানে বিপুল ধকল সৃষ্টি করেছে এবং স্বাস্থ্য ও দুর্যোগের ঝুঁকি বাড়িয়ে দিয়েছে।’

‘তিনটি অনুদান স্থানীয় জনগোষ্ঠী ও রোহিঙ্গা সম্প্রদায় উভয়ের প্রয়োজন পূরণ করবে। সেই সাথে এগুলো বাংলাদেশের সেবা প্রদানের সক্ষমতা জোরদার এবং প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও জলবায়ু পরিবর্তনের সাথে খাপ খাইয়ে নেয়া বৃদ্ধি করবে,’ যোগ করেন তিনি।

অনুদানগুলোর মধ্যে ১৫ কোটি ডলার দেয়া হবে কক্সবাজার জেলার হেলথ অ্যান্ড জেন্ডার সাপোর্ট প্রজেক্টে। এর ফলে রোহিঙ্গাসহ ৩৬ লাখ মানুষ স্বাস্থ্য, পুষ্টি ও পরিবার পরিকল্পনা সেবা যেমন পাবে সেই সাথে লিঙ্গ-ভিত্তিক সহিংসতা রোধ করা হবে।

প্রকল্পটি কক্সবাজারের স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্রগুলোর উন্নয়ন করবে। সেই সাথে শূন্য পদে স্বাস্থ্য কর্মী নিয়োগ ও পর্যাপ্ত চিকিৎসা সামগ্রী সরবরাহ নিশ্চিত করবে।

ইমার্জেন্সি মাল্টি-সেক্টর রোহিঙ্গা ক্রাইসিস রেসপন্স প্রজেক্টে দেয়া হবে অতিরিক্ত ১০ কোটি ডলার। যা রোহিঙ্গা ও তাদের আশপাশে থাকা স্থানীয়দের জন্য বিদ্যুৎ, পানি, স্যানিটেশন ও দুর্যোগ-সহনশীল অবকাঠামো উন্নয়ন করবে। এতে ১ লাখ ৪০ হাজার ৮০০ স্থানীয় বাসিন্দাসহ ৭ লাখ ৮০ হাজার ৮০০ মানুষ উপকৃত হবেন।

অতিদরিদ্রদের জন্য সুরক্ষা প্রকল্পে দেয়া অতিরিক্ত ১০ কোটি ডলার দরিদ্র ও ঝুঁকিপূর্ণদের জীবিকা ও আয়ের ব্যবস্থা করবে। এতে ৪০ হাজার স্থানীয় এবং ৮৫ হাজার রোহিঙ্গা পরিবার উপকৃত হবে।

এ তিন অনুদান মিলিয়ে বিশ্বব্যাংক বাংলাদেশকে রোহিঙ্গা সংকট মোকাবিলায় অনুদান হিসেবে মোট ৪৮ কোটি ডলার দিল।

সূত্র : ইউএনবি


আরো সংবাদ