১১ আগস্ট ২০২২
`

টুথব্রাশ এবং ইন্টারডেন্টাল ব্রাশ

টুথব্রাশ এবং ইন্টারডেন্টাল ব্রাশ -

আপনার টুথব্রাশে ই-কোলাই, স্টেফাইলোকক্কাইসহ মিলিয়ন ব্যাকটেরিয়া থাকতে পারে। আপনার মুখের অভ্যন্তরভাগ ব্যাকটেরিয়া দিয়ে পরিপূর্ণ। মুখে ব্যাকটেরিয়ার একটি ভারসাম্য সবসময় বজায় থাকে। তবে এন্টিবায়োটিকসহ ওষুধ সেবন ও বিভিন্ন রোগের কারণে মুখে ব্যাকটেরিয়ার ভারসাম্য নষ্ট হয়ে গেলে আপনি খাবার গ্রহণের সময় যথাযথভাবে স্বাদ পাবেন না। আবার খেতেও ইচ্ছা করবে না। টুথব্রাশের যথাযথ পরিচর্যা করলে তা আপনার মুখের কোনো ক্ষতি করবে না। টুথব্রাশ হোল্ডারে প্রচুর ব্যাকটেরিয়া থাকে। তাই টুথব্রাশ হোল্ডার সব সময় পরিষ্কার রাখতে হবে। তবে পরিবারের সবার টুথব্রাশ এক সাথে রাখা ঠিক নয়। সবার টুথব্রাশ আলাদা আলাদাভাবে রাখা উচিত। কারণ করোনাভাইরাস সংক্রমণসহ অন্যান্য ভাইরাস ও ছত্রাক টুথব্রাশের মাধ্যমেও বিস্তার লাভ করতে পারে। দাঁত ব্রাশ করার পর টুথব্রাশ একটি নির্দিষ্ট নিয়মে পরিষ্কার করে তবেই যথাস্থানে রাখতে হবে। দাঁত ব্রাশ করার পর টুথব্রাশ সবসময় শুষ্ক স্থানে রাখতে হবে। অন্যমনস্ক হয়ে কখনোই টুথব্রাশ ব্যবহার করবেন না। এতে করে টুথব্রাশের খোঁচা লেগে আপনার মুখের অভ্যন্তরে আলসার বা ঘাঁ সৃষ্টি হতে পারে। শিশুদের ক্ষেত্রে সবসময় বেবি টুথব্রাশ ব্যবহার করবেন। মাড়ির রোগীদের ক্ষেত্রে ইন্টারডেন্টাল ব্রাশ ব্যবহার করতে হবে। দুই দাঁতের মাঝখানে পরিষ্কার করার জন্য ইন্টারডেন্টাল ব্রাশ ব্যবহার করতে ভুলবেন না। দুই দাঁতের ফাঁকে যদি খাবার বেশি পরিমাণে জমে থাকে অথবা সবসময় জমে থাকে তাহলে টুথব্রাশ ব্যবহার করার পাশাপাশি ইন্টারডেন্টাল ব্রাশ ব্যবহার করা উচিত। টুথব্রাশ ব্যবহারের আগে অবশ্যই পানি দিয়ে পরিষ্কার করে নেবেন। তারপর টুথব্রাশে সামান্য পরিমাণে টুথপেস্ট নিয়ে দাঁত ব্রাশ করবেন। টুথব্রাশে অতিরিক্ত টুথপেস্ট ব্যবহার করবেন না। টুথপেস্টে রাসায়নিক উপাদান এসএলএস অর্থাৎ- সোডিয়াম লরিল সালফেট বিদ্যমান থাকে যা মুখে আলসার সৃষ্টি করতে পারে। তাই অতিরিক্ত টুথপেস্ট আলসার ছাড়াও আপনার মুখের জন্য বিরূপ প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করতে পারে।
সবসময় নরম ফাইবারযুক্ত একটি টুথব্রাশ ব্যবহার করবেন। টুথব্রাশের ফাইবারগুলো বেঁকে গেলে অবশ্যই টুথব্রাশ পরিবর্তন করবেন। কারণ বাঁকানো ফাইবার দিয়ে আপনার দাঁত পরিষ্কার করা যাবে না। একটি টুথব্রাশ দুই মাসের বেশি ব্যবহার না করাই ভালো। কম দামের শক্ত টুথব্রাশ ব্যবহার করবেন না। এতে করে আপনার দাঁতের সমস্যাসহ মাড়ির রোগ ও মাড়ি সরে যেতে পারে। আড়াআড়িভাবে টুথব্রাশ ব্যবহার করবেন না। এতে করে আপনার গাম রিসেশন অর্থাৎ মাড়ি জায়গা থেকে সরে যেতে পারে। প্রয়োজনের অতিরিক্ত সময় টুথব্রাশ দিয়ে দাঁত ব্রাশ করবেন না। এতে করে আপনার দাঁতের ক্ষয় ছাড়াও দাঁত শির শির করতে পারে। আকা-বাঁকা দাঁতের চিকিৎসা করার সময় অবশ্যই টুথব্রাশের পাশাপাশি ইন্টারডেন্টাল ব্রাশ ব্যবহার করতে হবে।
ইমপ্রেস ওরাল কেয়ার
বর্ণমালা সড়ক, ইব্রাহিমপুর, ঢাকা


আরো সংবাদ


premium cement
বগুড়ায় বাবাকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ মাদকাসক্ত ছেলের বিরুদ্ধে মোহাম্মদ নামের শ্রেষ্ঠত্ব শিবালয়ে কবরস্থান থেকে ১২ কঙ্কাল চুরি বেটউইনারের সাথে চুক্তি বাতিল করলেন সাকিব উন্নয়ন ও মেগা প্রকল্পের নামে লুণ্ঠন করছে সরকার : জিএম কাদের দেশে করোনায় আরো ১ জনের মৃত্যু, কমেছে শনাক্তের হার কুলাউড়ায় মাইক্রোবাস খাদে পড়ে যুক্তরাজ্য প্রবাসীসহ আহত ৪ হুসাইন রা:-এর স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে অশ্রুসিক্ত হলেন সানা খান শিল্প-কারখানা এলাকাভিত্তিক এক দিন বন্ধ রাখতে প্রজ্ঞাপন জারি শ্রীপুরে পিকআপের ধাক্কায় ময়লার স্তূপে দেবে বেকারির ডিস্ট্রিবিউটর নিহত সরকার দেশের জনগণকে সমস্যায় ফেলে দিয়েছে : আমীর খসরু

সকল