১০ এপ্রিল ২০২১
`

করোনা টিকার এক ডোজই যথেষ্ট : গবেষণা

করোনা টিকার এক ডোজই যথেষ্ট : গবেষণা - ছবি : সংগৃহীত

ইতোমধ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে এমন সংক্রমিতদের সুরক্ষায় করোনা টিকার একটি ডোজই যথেষ্ট। এদের দ্বিতীয় ডোজ টিকা দেয়ার অর্থ হলো, ‘মূল্যবান এই টিকাটি জলে ফেলে দেয়ার মতো অথবা অপচয় করার মতো।’ আমেরিকান ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের উপদেষ্টা এবং স্থানীয় একটি মেডিক্যাল কলেজের (মেহারি মেডিক্যাল কলেজ) প্রেসিডেন্ট ড. জেমস হিলড্রেথ বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে অনুমোদিত তিন কোম্পানির (ফাইজার, মডার্না এবং জনসন অ্যান্ড জনসন) করোনার টিকাই করোনা আক্রান্তদের জন্য একটি ডোজই যথেষ্ট।

নতুন একটি গবেষণায় বলা হয়েছে, ‘কেউ একবার করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর তাকে যদি আবারো করোনাভাইরাসে আক্রান্ত করে তাহলে তার শরীরে তৈরি হওয়া অ্যান্টিবডি (ইমিউন সিস্টেম) একই ভাইরাসকে চিনে নিতে পারে। অতএব করোনায় আক্রান্ত কোনো মানুষকে করোনার টিকা দেয়া হলে তার শরীরে একই কায়দায় অ্যান্টিবডি তৈরি হতে থাকে। তখন শরীরে যে অ্যান্টিবডি হয় সেগুলো খুবই শক্তিশালী হয় এবং এগুলো খুব দ্রুত শরীরকে সুরক্ষা দেয়ার জন্য প্রস্তুত হয়ে যায়।
গত ১০ মার্চ ‘নিউ ইংল্যান্ড জার্নাল অব মেডিসিন’-এ লিখিত যুক্তরাষ্ট্রের মাউন্ট সিনাইয়ের আইকান স্কুল অব মেডিসিনে ৩২ জন গবেষকের পাঠানো চিঠিতে তারা লিখেছেন, কোভিড-১৯ সংক্রমিতদের সিঙ্গেল ডোজ (এক ডোজ) টিকার ব্যাপারটি পরীক্ষা করে দেখা হোক। এই গবেষক দলটি একটি ছোট আকারের গবেষণায় দেখেছে যে, করোনা আক্রান্তদের ফাইজার বা মডার্নার টিকার এক ডোজ দেয়ার পর তাদের দেহে ১০ থেকে ৪৫ গুণ বেশি অ্যান্টিবডি তৈরি হয়েছে, তাদের তুলনায় যারা করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হননি। ব্রিংহাম অ্যান্ড ওমেন্স হাসপাতালের ইমার্জেন্সি মেডিসিনের চিকিৎসক ড. জেরেমি ফস্ট জানিয়েছেন, করোনা আক্রান্তদের করোনার প্রথম ডোজ টিকা দেয়া হলে তা বুস্টার ডোজ হিসেবে কাজ করে। তিনি বিজনেস ইনসাইডারকে বলেন, আপনি যদি করোনায় আক্রান্ত হন (সুস্থ হয়ে যাওয়ার পর) তাহলে আপনার জন্য এক ডোজ টিকা খুবই যথেষ্ট।

ইয়েল ইউনিভার্সিটির ইমিউরোলজিস্ট আকিকো আইওয়াসাকি বলেন, ‘কেউ যদি সন্দেহ করেন যে তার করোনা হয়েছে কিন্তু কোনো লক্ষণ অথবা উপসর্গ নেই সেক্ষেত্রে তার উচিত অ্যান্টিবডি পরীক্ষা করা। অ্যান্টিবডি টেস্ট পজিটিভ হলে তাকে করোনা টিকা দেয়াটা হবে অপ্রয়োজনীয়। এরপরও তাকে টিকা দেয়াটা হবে অপচয়।’

ফ্রান্স গত ফেব্রুয়ারিতে যাদের ইতোমধ্যে কোভিড-১৯ হয়েছে তাদেরকে করোনার সিঙ্গেল ডোজ দেয়ার পরামর্শ দিয়েছে।
যুক্তরাষ্ট্রের মাউন্ট সিনাই হাসপাতালের এই গবেষণা ছাড়াও আরেকটি প্রাথমিক গবেষণায় দেখা গেছে যে কোভিড-১৯ হয়েছে এমন লোকদের প্রথম ডোজ টিকা দেয়ার পরই তাদের শরীরে উচ্চ হারে অ্যান্টিবডি তৈরি হয়েছে। নতুন ওই গবেষণার সহগবেষক ড. মুহাম্মদ সাজাদি বিজনেস ইনসাইডারকে বললেন, করোনা সংক্রমণের দুই থেকে তিন সপ্তাহের মধ্যে সংক্রমিত ব্যক্তির দেহে সাধারণত অ্যান্টিবডি তৈরি হয়ে থাকে। কিন্তু টিকা দেয়ার প্রথম সপ্তাহ পরই স্বাস্থ্যকর্মীরা পরীক্ষায় উচ্চহারে অ্যান্টিবডি খুঁজে পেয়েছেন।

গত ফেব্রুয়ারিতে ব্রিটেনের একই ধরনের পরীক্ষায় যারা ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছেন তাদের মধ্যে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে ১৪০ গুণের বেশি অ্যান্টিবডি পেয়েছেন গবেষকরা তাদের তুলনায়, যারা টিকা নেননি কিন্তু কোভিড-১৯ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। গবেষকরা বলছেন, প্রথম ডোজ টিকা নেয়ার পর উচ্চহারে অ্যান্টিবডি তৈরি হলেও এখনো সিঙ্গেল ডোজ টিকা দেয়ার সিদ্ধান্ত হয়নি। আইওয়াসাকি বলেন, এখানে রাষ্ট্রীয় পলিসি বিজ্ঞানের চেয়ে পিছিয়ে রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব অ্যালার্জি অ্যান্ড ইনফেকশাস ডিজিজের পরিচালক ড. অ্যান্থনি ফাউসি এনবিসি নিউজকে গত ফেব্রুয়ারিতে জানিয়েছেন, ‘এই ব্যাপারটি বিবেচনার দাবি রাখে। এ ক্ষেত্রে সিঙ্গেল ডোজ টিকাই যথেষ্ট তবে গবেষণায় যে তথ্য-উপাত্ত (ড্যাটা) পাওয়া গেছে তা গুরুত্বসহকারে পরীক্ষা করে সিদ্ধান্ত নিতে হবে।’



আরো সংবাদ


লক খোলা লকডাউন, রোববার নতুন নির্দেশনা (১৫৪৬৩)র‌্যাবের ৪ সদস্যকে গ্রেফতার করলো পুলিশ (১৪৫৪৯)১৪ এপ্রিল থেকে জরুরি সেবার প্রতিষ্ঠান ছাড়া সব বন্ধ : জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী (১২০৮১)ষড়যন্ত্রমূলক মামলা প্রত্যাহার করুন : বাবুনগরী (৮৫১১)১৪ এপ্রিল থেকে সর্বাত্মক লকডাউনের চিন্তা সরকারের : কাদের (৮৩৮২)এবার টার্গেট জ্ঞানবাপী মসজিদ! (৭১৪৪)আপনি যে পতনের দ্বারপ্রান্তে তা বুঝবেন কিভাবে? (৫৪২১)মিয়ানমারে নিরাপত্তা বাহিনীর বিরুদ্ধে বন্দুক নিয়ে লড়ছেন বিক্ষোভকারীরা (৪৫৯৮)হিমছড়িতে ভেসে এলো বিশাল তিমি (৪৪৫৭)বিজেপির নির্বাচনী গানে বাংলাদেশে ইসলামপন্থীদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষের ছবি (৪২৪৬)