০২ মার্চ ২০২১
`

আরো ভয়াবহ রূপে ফিরবে করোনা?

আরো ভয়াবহ রূপে ফিরবে করোনা? - ছবি : সংগৃহীত

আরো সংক্রমনাত্মক হয়ে উঠেছে কোভিড-১৯ ইউকে ভ্যারিয়েন্ট। গবেষকদের দাবি, করোনাভাইরাসের ওই ভ্যারিয়েন্ট নয়া কায়দায় মিউটেশন শুরু করেছে। এতে আরো বেশি সংক্রমণের আশঙ্কা সৃষ্টি হয়েছে। আদৌ টিকা এই ভ্যারিয়েন্টের ক্ষেত্রে কার্যকরী হবে কিনা, তা নিয়েও প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে ইতিমধ্যেই।

করোনা ওই নয়া লিনেজের বৈজ্ঞানিক নাম বি ১.১৩৫। এর আগে দক্ষিণ আফ্রিকায় ওই নতুন পদ্ধতিতে কোভিড-১৯ সংক্রমণের নজির দেখা গিয়েছিল। ব্রিটেনের সরকারি দফতর 'পাবলিক হেলথ ইংল্যান্ড' জানিয়েছে, বর্তমানে করোনা ২ লাখ ১৪ হাজার ১৫৯ জন আক্রান্তের মধ্যে ১১ জনের ওই নতুন মিউটেশন দেখা গেছে। তবে ওই ভ্যারিয়েন্ট বাড়তি ঝুঁকি তৈরি করছে না আপাতত, সে কথাও জানিয়েছে ব্রিটেন সরকার।

উল্লেখ্য, নয়া ইউকে ভ্যারিয়েন্টের কথা প্রকাশ্যে আসার পরেই সতর্ক হয়ে গিয়েছিল ভারত সরকার। ভারত ব্রিটেনের সঙ্গে সংযোগস্থাপনকারী সবকটি বিমান বাতিল করেছিল। তার আগে পর্যন্ত যারা ইংল্যান্ড থেকে ভারতে এসেছিলেন, তাঁদেরও মনিটারিংয়ে রাখা হয়েছিল। বিগত কয়েক দিনে যারা ব্রিটেন থেকে ভারতে ফিরেছেন, তাদের মধ্যে মোট ১৩৮ জনের দেহে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট বি.১.১.৭-এর উপস্থিতি দেখা যায়। তবে এখন পর্যন্ত বি ১.১৩৫-এর উপস্থিতি কারো দেহেই পরিলক্ষিত হয়নি। এমনকি দক্ষিণ আফ্রিকার ই৪৮৪কে ভ্যারিয়েন্ট দ্বারাও আক্রান্তের সন্ধান দেশে মেলেনি।

অন্যদিকে, ওষুধ নির্মাণকারী সংস্থা ফাইজার ও মর্ডানা কোভিড-১৯-এর নতুন স্ট্রেইন নিয়ে পরীক্ষানিরীক্ষা শুরু করে দিয়েছে। তাদের দাবি ছিল, ইউকে স্ট্রেইন ভ্যাকসিনের কার্যকারিতাকে কমিয়ে দিচ্ছে না। তবে মর্ডানা জানিয়েছিল, ইউকে ভ্যারিয়েন্টের ক্ষেত্রে তাদের টিকা সম্পূর্ণ কার্যকরি হলেও, আফ্রিকার স্ট্রেইন আরোগ্যের গতি কমিয়ে দিয়েছে। বর্তমান মিউটেশনের ক্ষেত্রে টিকার ক্ষমতা কমছে কিনা পরীক্ষার মাধ্যমে তা নির্ধারণের দিকে পা বাড়িয়েছে দুই সংস্থা।


এদিকে মার্কিন টিকা নির্মাতা নোভাভক্স জানিয়েছে, তাদের ভ্যাকসিন ইউকে স্ট্রেইনের ক্ষেত্রে ৮৯ শতাংশ কার্যকরী হলেও, আফ্রিকান করোনা স্ট্রেইনের ক্ষেত্রে মাত্র ৬০ শতাংশ কাজ করছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী লিখিত বিবৃতি দিয়ে জানিয়েছেন, ব্রিটেনের নতুন স্ট্রেইনের ক্ষেত্রে কোভ্যাকসিন কাজ করছে কিনা সে নিয়ে এখনো কোনো তথ্য পাওয়া যায়নি। তবে ভারত বায়োটেক ইন্টারন্যাশনাল লিমিটেডের ভ্যাকসিন যে করোনাভাইরাসের নতুন স্ট্রেইনকে হারাবে এ প্রমাণ মিলেছে, জানান মন্ত্রী।

গত সপ্তাহেই বায়োটেক জানিয়েছিল, তাদের বানানো টিকা কোভিড-১৯-এর ব্রিটেন স্ট্রেইনের বিরুদ্ধে কাজ করছে। তবে দক্ষিণ আফ্রিকার ভ্যারিয়েন্টের ক্ষেত্রে কোনো পরীক্ষা করেনি ওই সংস্থা।

টিকার ভুল ডোজ!
ডিসেম্বর থেকেই বিদেশ থেকে আগতদের পরীক্ষা করে করোনা রূপ পরিবর্তন করছে কিনা তা দেখছিল প্রশাসন। ৫ শতাংশ আক্রান্তের মধ্যে পরিবর্তন লক্ষ করা গেছে জানানো হলেও, বৃহৎ পরিসরে চিত্রটা কী তা স্পষ্ট নয় এখনও।

রুশ ভ্যাকসিন প্রায় ৯২% কার্যকর
বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, বি ১.১৩৫ ও বি.১.১৭-এর মধ্যে অনেকটাই মিল রয়েছে। দুই ক্ষেত্রেই এন৫০১ওয়াই নামক কি মিউটেশন কাজ করছে। তবে বি ১.১৩৫-এ এই কি মিউটেশন ছাড়াও ই৪৮৪কে রয়েছে। গবেষকরা এখনো করোনাভাইরাসের এই রূপান্তর সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা দিতে পারছেন না।

সূত্র : এই সময়



আরো সংবাদ


বিদ্যুৎক্ষেত্রে চীনের হানায় অন্ধকার হয়ে গিয়েছিল মুম্বাই! বিজেপিতে যোগ দিলেন শ্রাবন্তী যেকোনো সংকটে দেশের মানুষ ঢাবির দিকে তাকিয়ে থাকে : নুর ২০২১ সালের পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতি : পর্বসংখ্যা-৩ বিজ্ঞান প্রথম অধ্যায় : আমাদের পরিবেশ বাংলাদেশ ও বিশ্বপরিচয় প্রথম অধ্যায় : আমাদের মুক্তিযুদ্ধ ২০২১ সালের অষ্টম শ্রেণীর শিক্ষার্থীদের প্রস্তুতি : পর্বসংখ্যা-৩ এইচএসসি পরীক্ষার প্রস্তুতি : বাংলা প্রথম পত্র গল্প : অপরিচিতা এসএসসি পরীক্ষার লেখাপড়া : রসায়ন একাদশ অধ্যায় : খনিজ সম্পদÑ জীবাশ্ম আজ তৃতীয় দফা করোনা টেস্ট অ্যাতলেটিকো ও লিভারপুলের জয় বসুন্ধরা কিংসের খেলা মালদ্বীপে

সকল